channel 24

সর্বশেষ

  • ধানের ন্যায্য দামের দাবিতে কৃষি ও খাদ্যমন্ত্রীর কুশপুত্তলিকা দাহ

  • ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

  • রূপপুর প্রকল্পে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বেতন পান সরকারি স্কেলে

  • স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দেয় পুলিশ!

  • খুলনায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে পাটকল শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি

  • সঠিক ওজন নিশ্চিতে ভালো মানের যন্ত্রপাতি ব্যহার করতে হবে: শিল্পমন্ত্রী

  • যুক্তরাষ্ট্রের সাথে যুদ্ধে জড়ালে ইরান ধ্বংস হয়ে যাবে: ট্রাম্প

  • ফলের বাজারে কেমিক্যাল মেশানো রোধে মনিটরিং টিম গঠনের নির্দেশ

  • রূপপুর প্রকল্পে অনিয়মে তদন্ত শেষে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

  • ভগ্নিপতি আয়ুষ শর্মাকে বড় পর্দায় আনছেন বলিউড ভাইজান সালমান

  • ওয়ানডে ইতিহাসের সবচেয়ে ধীর গতির ব্যাটিং ছিল প্রথম বিশ্বকাপেই

  • প্রকৃত কৃষকের কাছ থেকে ধান সংগ্রহের আহ্বান মাশরাফীর

  • মহেশখালীতে কবরস্থান দখলের প্রতিবাদে মানববন্ধন

  • জুলাই মাসে বাংলাদেশ সফরে আসছে আফগানিস্তান 'এ' দল

  • ঈদে বিআরটিসি বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু

৬ মাস পর কেউ চাইলেও আপত্তিকর ওয়েবসাইটে যেতে পারবে না: তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী

৬ মাস পর কেউ চাইলেও আপত্তিকর ওয়েবসাইটে যেতে পারবে না: তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার জানিয়েছেন, আগামী ৬ মাস পর ইন্টারনেটে একটিও আপত্তিকর ওয়েবসাইট থাকবে না।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ইতিমধ্যে ২০ হাজারের বেশি আপত্তিকর ওয়েবসাইট বন্ধ করা হয়েছে।

আরও: প্রকল্পগুলো চলমান রাখাই সামনের দিনগুলোর জন্য বড় চ্যালেঞ্জ

বাংলাদেশি 'লায়লা' হচ্ছেন আঁখি আলমগীর

কি হবে পৃথিবীতে যদি মাত্র ৫ সেকেন্ড অক্সিজেন না থাকে!

আপনার হাতে কি দু’টি বিবাহরেখা? জানেন এর অর্থ?

সোমবার (১১ মার্চ) সকালে নাসিরাবাদ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় (বালক) মাঠে আয়োজিত ই-লার্নিং মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী বলেন, অভিভাবকরা যারা ছেলে-মেয়েদের ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তিত তাদের বলতে চাই আগামী ছয় মাসে এমন ব্যবস্থা করবো যাতে কেউ চাইলেও আপত্তিকর ওয়েবসাইটসাইটে যেতে পারবে না। সবগুলো সাইট বন্ধ করে দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, ইন্টারনেট হচ্ছে জ্ঞানের উৎস। তবে ইন্টারনেটে কিছু খারাপ দিক আছে। আমরা ইন্টারনেট থেকে সেটুকু নেবো যা আমাদের জন্য ভালো।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, একটা সময় স্বপ্ন দেখেছিলাম শিক্ষার্থীরা লেখাপড়ার জন্য খাতা কলমের দরকার হবে না। পরীক্ষার জন্য পরীক্ষার্থীকে হলে যেতে হবে না। এটি এখন স্বপ্ন নয় বাস্তবতা।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আজকের পৃথিবী পাঠ্যপুস্তুকের নির্ভর নয়। পাঠ্যপুস্তক কিছু বাছাই করা জ্ঞান দেয়, যা নিঃসন্দেহে আমার কাজে লাগে। কিন্তু আমি যদি পাঠ্যপুস্তকের বাইরে জ্ঞান অর্জন না করি, তাহলে চলবে না। ডিজিটালাইজেশনের যুগে নিজেকে টিকিয়ে রাখতে হলে পাঠ্যবইয়ের বাইরে জ্ঞান অর্জন করতে হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

তথ্য প্রযুক্তি খবর