channel 24

সর্বশেষ

  • ছেলে সন্তানের বাবা হয়েছেন আশরাফুল

  • শ্বেতাঙ্গ পুলিশের নৃশংসতায় ৯ রাজ্যে বিক্ষোভ; ৪ পুলিশ অফিসার বরখাস্ত

  • মাটিতে পুঁতে রাখার ১১ মাস পর ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • সোমবার থেকে চলবে গণপরিবহন, রোববার নৌযান

  • জন্মের মাত্র একদিনের মাথায় প্রাণঘাতী করোনার সাথে যুদ্ধ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা, আহত ১১

  • কর্মস্থলে যোগ দিতে চট্টগ্রামে ফিরছে মানুষজন

  • পার্বত্য জেলাগুলোতে সেনাবাহিনীর খাদ্য সহায়তা অব্যাহত

  • করোনা চিকিৎসায় চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালগুলো পুরোপুরি তৎপর নয়

  • কুষ্টিয়ায় করোনা রোগীদের সেবায় একদল স্বেচ্ছাসেবী

  • চট্টগ্রামে নতুন করে ২‘শ ২৯ জন করোনায় আক্রান্ত

  • আর্চ্যারি ঘিরে স্বপ্ন ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা জানালেন রোমান সানা

  • করোনায় সর্বোচ্চ ২৫২৩ জন শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ২৩

  • কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় হাইড্রোক্সো-ক্লোরোকুইন ওষুধ না রাখার পরামর্শ

প্রযুক্তিই বলে দিচ্ছে লাল বাতি এড়ানোর উপায়

প্রযুক্তিই বলে দিচ্ছে লাল বাতি এড়ানোর উপায়

আপনারা যারা গাড়ি চালান, তাদের সবার সাথেই নিশ্চই কমবেশি এমন হয়েছে যে সিগন্যাল পার হবার সময় একেবারে শেষ মুহুর্তে যেয়ে আটকে গেলেন। এবং হয়ত সেই সময়টাতেই আপনার কোথাও যাবার তাড়া সবচেয়ে বেশি।

কি বিরক্তিকর! সেই বিরক্তি আর কেউ বুঝুক না বুঝুক যুক্তরাজ্যের একদল গবেষক বুঝেছে। তারা আবিষ্কার করেছে এমন এক প্রযুক্তি যে আপনাকে বলে দিবে যে ঠিক কত গতিতে এগুলে লাল বাতি পড়বার আগেই আপনি সিগনাল এড়িয়ে যেতে পারবেন। সেই সাথে ঐ প্রযুক্তিতে থাকছে যানজট কমানোর আরো নানা ফিচার।

তবে ঢাকার মত যেসব নগরে সবুজ ও লাল বাতি দেখে গাড়ি পারাপার হয় কদাচিতই সেখানে খুব স্বাভাবিকভাবেই এমন প্রযুক্তি ব্যবহারের সুযোগ নেই।

সড়ক পথে সিগ্যনালের দীর্ঘ গাড়ির সাড়ি আ সড়কে জ্যাম ঠেকাতে নতুন বেশ কিছু নতুন প্রযুক্তি হাতে নিয়েছেন যুক্তরাজ্যের গবেষকরা।

এর মধ্যেই একটি ভেহিক্যাল টু ইনফ্রাসটেকচার প্রযুক্তি ব্যবহার করে ট্রাফিক লাইটের সাথে গাড়ির সংযোগ দেয়া হবে। সিগ্যনালের কাছাকাছি পৌঁছনোর আগেই চালককে জানিয়ে দেয়া হবে, দ্য গ্রিন লাইট অপটিমাল স্পিড অ্যাডভাইসরি সিস্টেমের মাধ্যমে। এতে সর্বোচ্চ কত গতিতে এগুলো সিগ্যনাল এড়াতে পারবেন চালক তা জানিয়ে দেয়া হবে।

প্রায় বিশ মিলিয়ন গাড়ির ওপর নতুন এ প্রযুক্তির পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা হয়েছে। সাফল্য পেলে ভবিষ্যতে অনেক দেশেই ব্যবহার হবে এটি। এমন আশা এর গবেষকদের।  

সড়ক পথে ভোগান্তি ঠেকাতে আরো বেশকিছু প্রযুক্তির পরীক্ষামূলক কার্যক্রম চলছে। এরমধ্যে রয়েছে ইন্টারসেকশন কলিশন ওয়ার্নিং যার মাধ্যমে অনিরাপদ সড়ক সম্পর্কে চালককে পূর্বেই সতর্ক করা হবে। এছাড়া একই স্টেশন বা মোড়ে বিভিন্ন দিক থেকে আসা গাড়ির সঠিক ক্রম সম্পর্কেও দিকনির্দেশনা দেয়া হবে।

এছাড়া গাড়ির গ্যারেজে পার্কিংয়ের খালি জায়গা দেখিয়ে দেয়া, জরুরী কাজে নিয়োজিত যেমন: অ্যাম্বুলেন্স,পুলিশ কিংবা ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি আশপাশে থাকলে ইমার্জেন্সি ভ্যেহিক্যাল ওয়ার্নিংয়ের মাধ্যমে চালককে জানিয়ে দেয়া ইত্যাদির জন্যও আলাদা কিছু প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে ব্রিটিশ প্রযুক্তিবিদরা।  

তারা বলছেন, পরীক্ষামূলক নতুন এসব প্রযুক্তি যথাযথভাবে প্রয়োগ করা গেলে জ্যাম কমার পাশাপাশি কমবে পরিবেশ দূষণও। একই সাথে ট্রাফিক সিগ্যনালে যানবাহনের দীর্ঘ সারি দূর হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

তথ্য প্রযুক্তি খবর