channel 24

সর্বশেষ

  • প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় ঢাবি 'ঘ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায়...

  • পাস করা শিক্ষার্থীদের ফের পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত: উপাচার্য

  • মানহানি মামলা: ব্যারিস্টার মইনুলকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

  • ২৬ অক্টোবর সংসদীয় কমিটির বৈঠকের পর...

  • নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত: সেতুমন্ত্রী

  • ব্যারিস্টার মঈনুলকে বেআইনিভাবে আটক করা হয়েছে: রিজভী

  • ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাথে নির্বাচন কমিশনের বৈঠক চলছে

  • জিয়া অরফানেজ মামলা: শুনানি পেছাতে খালেদা জিয়ার...

  • আইনজীবীদের আবেদন খারিজ; দুদকের যুক্তি উপস্থাপন শেষ

  • জাতীয় নির্বাচনে রাজনৈতিক দলের জোট গঠন করে একদলের প্রার্থী...

  • অন্য দলের প্রতীকে নির্বাচন অসাংবিধানিক ঘোষণা চেয়ে হাইকোর্টে রিট

  • মানহানির মামলায় ব্যারিস্টার মঈনুল গ্রেপ্তার; আজ নেয়া হবে আদালতে

  • সিরিজ জয়ের পাশাপাশি উন্নতির ধারাবাহিকতা রাখাই লক্ষ্য: মাশরাফী

বুদ্ধিমান শৌচাগার

বুদ্ধিমান শৌচাগার

ইন্টেলিজেন্ট টয়লেট বা বুদ্ধিমান শৌচাগার। অত্যাধুনিক ন্যানো প্রযুক্তির সহায়তায় তৈরি এই টয়লেট, প্রস্রাব পরীক্ষার মাধ্যমে শারীরিক অবস্থা জানাবে তাৎক্ষণিকভাবে। ফলে রোগের লক্ষণ জানা যাবে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে না গিয়েও।

ইন্টেলিজেন্ট টয়লেট বা বুদ্ধিমান শৌচাগার দেখতে কমোডের মত হলেও এটি ছোটখাট স্বাস্থ্য পরীক্ষার যন্ত্র।

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ন্যানো ফটোনিক্স সেন্টারের বিশেষজ্ঞরা তৈরি করেছেন এমন টয়লেট। যা ব্যবহারকারীর প্রস্রাবের সাথে বেরিয়ে যাওয়া শরীরের গুরুত্বপূর্ণ সব অণু ন্যানোগ্যাপ সেন্সিং পদ্ধতিতে পরীক্ষা করে জানান দেবে ব্যক্তির শারীরিক অবস্থা। মাদকের উপস্থিতি নির্ণয় ও বিষণ্ণতায় আক্রান্তদের শরীরে ওষুধের মাত্রা নির্ধারণে দারুণ কার্যকর এটি।

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ন্যানো ফটোনিক্স সেন্টারের ড. গিলিয়ানা ডি মার্টিনো বলেন, 'এর মাধ্যমে বাড়িতে বসেই স্বাস্থ্যসেবা সম্ভব। সন্তান মাদক নিচ্ছে কিনা, সহজেই জানা যাবে তাও। ইন্টেলিজেন্ট টয়লেটের কাজ হচ্ছে প্রস্রাবের যাবতীয় ক্ষুদ্র বায়ো মার্কার শনাক্ত করা।'

ইন্টেলিজেন্ট টয়লেট প্রতিবার ব্যবহারেই রক্তচাপ, হৃৎস্পন্দনের মত প্রয়োজনীয় তথ্য তাৎক্ষণিকভাবে জানা যাবে। পাশাপাশি স্বয়ংক্রিয়ভাবে তা চলে যাবে স্মার্ট ফোনে।   

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ন্যানো ফটোনিক্স সেন্টারের ড. গিলিয়ানা ডি মার্টিনো বলেন, 'অসুস্থ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে না। লক্ষণ দেখা দেয়া মাত্রই ইন্টেলিজেন্ট টয়লেট সতর্ক বার্তা দেবে।' তবে গবেষকরা বলছেন, এ প্রকল্প বাস্তবায়নে আরও ১০ থেকে ২০ বছর লাগতে পারে। 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

তথ্য প্রযুক্তি খবর