channel 24

সর্বশেষ

  • ৮ বছর পেরিয়ে নয়ে পা রাখলো চ্যানেল টোয়েন্টিফোর

  • করোনায় মারা গেলেন আ.লীগের সাবেক এমপি হাজী মকবুল

  • অনির্দিষ্টকাল মানুষের আয়ের পথ বন্ধ রাখা সম্ভব নয় জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী

  • ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে শেখ হাসিনার ভাষণ

  • মহামারিতে কাল বিষাদের ঈদ

  • শারীরিক দূরত্ব মেনে বায়তুল মোকাররমে ৫টি জামাত

  • হালদা নদীতে আরও একটি ডলফিন মারা পড়লো

  • ৮ জুন থেকে লা লিগা ফিরতে বাধা নেই

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান কাদেরের

  • পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার তৌফিক উমর করোনায় আক্রান্ত

  • জয়পুরহাটে অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছে 'করোনা যুদ্ধে আমরা' সংগঠন

  • করোনায় ভেঙে পড়েছে ই-কমার্স খাত

  • ভিন্ন প্রেক্ষাপটে উদযাপিত হবে এবারের ঈদ

  • অনুমোদন না পেলেও মঙ্গলবার থেকে করোনা পরীক্ষা শুরু করবে গণস্বাস্থ্য

  • শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় বিপাকে কিন্ডারগার্টেনের শিক্ষকরা

বিশ্বকাপ ফাইনালে আম্পায়ারের ভুল নিয়ে সমালোচনা

বিশ্বকাপ ফাইনালে আম্পায়ারের ভুল নিয়ে সমালোচনা

ফাইনালে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে সমালোচনা চলছে বিশ্বজুড়ে। শেষ ওভারে ওভারথ্রোতে এক রান বেশি পেয়েছে ইংল্যান্ড এমন দাবি করে আলোচনার সূত্রপাত করেছেন আইসিসির তিনবারের বর্ষসেরা আম্পায়ার সায়মন টফেল। তারপরই ইংল্যান্ড বোর্ড, আইসিসি, নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটার, কোচ পাল্টাপাল্টি কথা বলেছেন। নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন লজ্জিত সেরা দল বেছে নেয়ার প্রক্রিয়ায়।

মারাদোনার যে হাত ইংল্যান্ডকে পুড়িয়েছে আজীবন, ক্রিকেটে ইংলিশদের ইতিহাস সেরা অর্জনে জন্ম নিলো 'ব্যাট অফ গড'।

ইংল্যান্ড পেলো ছয় রান। নতুন রং পেলো ফাইনাল। তবে আম্পায়ারদের এই সিদ্ধান্তে ভুল খুঁজে পেয়েছেন আইসিসির তিনবারের বর্ষসেরা আম্পায়ার, সায়মন টফেল।

আইনের ১৯র আট ধারা মতে অতিরিক্ত রান তখনই দেয়া যায় থ্রো অথবা একই অবস্থায় যে রান পূর্ণ হয়েছে। সেক্ষেত্রে গাপটিলের থ্রোর সময় বেন স্টোকস ও আদিল রশিদ দ্বিতীয়বার নিজেদের অতিক্রম করেননি।

সাবেক আম্পায়ার সায়মন টফেল বলেন, 'ইংল্যান্ডকে পাঁচ রান দেয়া উচিত ছিলো। ছয় নয়। এটা পরিষ্কার ভুল। হয়তো ঐ মুহূর্তে আম্পায়াররা ভেবেছে ব্যাটসম্যানরা নিজেদের অতিক্রম করে গেছে।'

তবে আইনের ব্যাখ্যাও একেকজনের কাছে একেকরকম। কারো কাছে ব্যাটে বা শরীরে বল লাগার মুহূর্ত থেকে বিবেচিত।

ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক অ্যাশলে জাইলস এমন প্রশ্নে ভাবান্তর। তার কাছে এটি কোনো আলোচনার বিষয় নয়।

আইসিসিও ফাইনালের আম্পায়ার ইরাসমাস ও ধর্মসেনার ওপর আস্থা রেখেছে। মুখপাত্রের মাধ্যমে দিয়েছে বিবৃতি।

আইসিসি মুখপাত্র বলেন, 'মাঠের পরিস্থিতি বিবেচনায় এনে আইনের ব্যাখ্যা ও বিশ্লেষণ করেন আম্পায়াররা। আমরা নিয়ম মেনে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।'

তবে এতে শান্ত হতে পারছে না নিউজিল্যান্ড। কোচ গ্যারি স্টিড মুখ খুলেছেন ফাইনালের পরদিন। তার মতে দুই দলকেই যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা উচিত।

নিউজিল্যান্ড কোচ গ্যারি স্টিড বলেন, 'সাত সপ্তাহের লড়াইয়ের পর যখন ফাইনাল শেষেও কাউকে আলাদা করা যায় না, তখন ভিন্ন কিছু ভাবা যেতেই পারে। আমার মনে হয় সময় এসেছে পুরো বিষয়টি পুর্নবিবেচনা করার। এখনই তার সেরা সময়।'

ধীর স্থির, আর আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে প্রতিবাদহীন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন লজ্জিত। তার কাছেও সেই মুহূর্তে অজানা ছিলো আইনটি।

নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন বলেন, 'যেভাবে টুর্নামেন্টে সেরাদের বেছে নেয়া হয়েছে তা সত্যিই লজ্জার। দুই দলই সমানে সমান ছিলো। দুইটা সেরা দলের লড়াই। শেষ পর্যন্ত টাই।'

প্রশ্নবিদ্ধ আম্পায়ারিং-এর বিশ্বকাপ আবারো আলোচনায়। নিয়ম পরিবর্তনে পটু আইসিসি এবার কি নিয়ে অপেক্ষায়?

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর