channel 24

সর্বশেষ

  • পদ্মা সেতুর ৮৪ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

  • অনুশীলনে পাঁজরের ইনজুরিতে তামিম ইকবাল...

  • খেলছেন না জাতীয় লিগের দ্বিতীয় রাউন্ড...

  • ভারত সফরের দলে পাওয়া নিয়ে নির্বাচকদের শঙ্কা

  • হাসপাতাল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে...

  • মোবাইল টাওয়ার দ্রুত সরানোর নির্দেশ হাইকোর্টের; পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ

  • ঢাকা জেলার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক...

  • প্রসিকিউটরের পদ থেকে জাহাঙ্গীর আলমকে অব্যাহতি: আইন মন্ত্রণালয়

  • রাজধানীর গাবতলী থেকে নব্য জেএমবির ৩ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ

  • চট্টগ্রামে ১৪১ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে...

  • মিশম্যাক শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডের মালিক মিজানুর রহমান ও...

  • মার্কেন্টাইল ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক নন্দ দুলালের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

  • প্রধানমন্ত্রীর সাথে ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনোর সৌজন্য সাক্ষাৎ

বাংলাদেশ পাকিস্তান ম্যাচের পরিসংখ্যান

বাংলাদেশ পাকিস্তান ম্যাচের পরিসংখ্যান

১৯৮৬ সাল থেকে শুরু। ওয়ানডেতে এবার ৩৭ বারের মতো দেখা হবার অপেক্ষায় বাংলাদেশ-পাকিস্তান। একদিনের ম্যাচে প্রথম প্রতিপক্ষের বিপক্ষে বিশ্বকাপে একবারই খেলেছে বাংলাদেশ। ১৯৯৯ আসরে টাইগারদের সেই জয় এখনও দেশের ক্রিকেট ইতিহাসে অন্যতম আলোচিত। ওয়ানডেতে জয়ের পরিসংখ্যানে পাকিস্তান এগিয়ে থাকলেও সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানে শেষ চারে ম্যাচে জয়ী দল বাংলাদেশ।

১৯৯৭ সালে কুয়ালালামপুরের এই দৃশ্য যেমন বাংলাদেশের ক্রিকেট উত্থানের প্রতীক। ঠিক দু বছর পর নর্দাম্পটন দিয়েছিলো সামর্থ্যের প্রমান দিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটে টিকে থাকার বিশ্বাস।

প্রথমবার বিশ্বকাপের মঞ্চে গিয়ে নিজেদের দ্বিতীয় জয়টা এসেছিলো  সেসময়ের মহাপরাক্রমশালী পাকিস্তানের বিপক্ষে, যারা সেই বিশ্বকাপেরই ফাইনালিস্ট দল। ৩১ মে'র সেই লড়াই-ই এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের একমাত্র দেখা। মাঝে পেরিয়েছে চার আসর। কখনও আর বিশ্ব আসরে মুখোমুখি হয়নি দুদল। সেই হিসাবে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে শতভাগ সফল টিম বাংলাদেশ।

১৯৮৬ এশিয়া কাপে এই পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই ওয়ানডে অভিযাত্রা শুরু হয়েছিলো। নর্দাম্পটন বীরত্বের আগে ওই ম্যাচটি সহ আরও ৫ দেখাতেও জুটেছিলো পরাজয়ের লজ্জা।

৯৯এর প্রেরণাকে অঘটনের গন্ডি থেকে অবশ্য সহসা বের করতে পারেনি বাংলাদেশ। এরপর হেরেছে টানা ২৫ ওয়ানডে। ওই সময়ের মধ্যে আছে, হৃদয়ভাঙ্গা ২০১২ এশিয়া কাপও। ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হেরে জেতা হয়নি এশিয়ান শ্রেষ্ঠত্ব। আর ২০১৪ এশিয়া কাপে ৩২৬ রান করেও হারতে হয়েছিলো আফ্রিদি ঝড়ে।  

এরপর নতুন ইতিহাস লেখা শুরু বাংলাদেশ। জয়ের সংখ্যাটা কম হলেও, দুদলের শেষ চার ম্যাচে জয়ী দল বাংলাদেশ।

২০১৫ তে হোম সিরিজে টানা তিন ম্যাচ জিতে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করেছে বাংলাদেশ। প্রথমবারের মতো পাকিস্তানকে টপকে র‍্যাঙ্কিংয়ে ওপরে উঠে যায় বাংলাদেশ। তাও আবারও ছয়ে। যা এখন পর্যন্ত টাইগারদের সর্বোচ্চ র‍্যাঙ্কিং।

দুদলের সবশেষ লড়াইটা জমেছিল সবশেষ এশিয়া কাপে। পাকিস্তানকে সুপার ফোর থেকে বিদায় করে শিরোপা লড়াইয়ে নিজেদের নিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ।

৯৯ এ যেমন শেষ ম্যাচ ছিলো, এবারও  ইংল্যান্ড আসরের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবার অপেক্ষায় দুদল। সেবার আগেই পরের রাউন্ড নিশ্চিত করে রাখা পাকিস্তান এবার সেমিতে যাবার কঠিন সমীকরণে। যেখানে বাংলাদেশের লক্ষ্য শুরুর মতই জয়ের তৃপ্তি নিয়ে শেষ করার।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর