channel 24

সর্বশেষ

  • খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে আন্তর্জাতিক মহলকে অবহিত করা হবে: ফখরুল

  • বকেয়া পরিশোধ না হলে চামড়া বিক্রি বন্ধ: আড়তদার সমিতি

  • ধ্বংসাত্মক রাজনীতির কারণে ভুলের চোরাবালিতে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

  • ভারতের নয়াদিল্লিতে অল ইন্ডিয়া মেডিকেল ইনস্টিটিউটের আগুন নিয়ন্ত্রণে

  • অবসর বিষয়ে মাশরাফীর সিদ্ধান্ত দুই মাস পর: বিসিবি সভাপতি

  • ক্রিকেট দলের নতুন হেড কোচ দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ক্রেগ ডোমিঙ্গো...

  • দায়িত্ব নেবেন ২১ আগস্ট, চুক্তি দুই বছরের: বিসিবি সভাপতি

  • গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ভর্তি ১ হাজার ৪শ' ৬০: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • ডেঙ্গুতে ঢাকা মেডিকেলে নারী ও ফরিদপুর মেডিকেলে কলেজছাত্রের মৃত্যু

  • ডেঙ্গু প্রতিরোধ: ঢাকা উত্তরের প্রতিটি ওয়ার্ডকে...

  • ১০ ভাগে ভাগ করে চিরুনি অভিযান: মেয়র আতিকুল

  • ঢাকাকে হংকং, সিঙ্গাপুর বানানোর ঘোষণা স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর

  • বকেয়া পরিশোধ না করায় ট্যানারিতে আপাতত...

  • চামড়া না দেয়ার ঘোষণা পোস্তার আড়তদারদের...

  • কাল সরকারের সাথে বৈঠকের পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত...

  • চামড়া বিক্রি করা না করা তাদের নিজস্ব ব্যাপার...

  • বকেয়া পরিশোধ হবে কেস টু কেস ভিত্তিতে: ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন

  • সুপরিকল্পিতভাবে রাজনীতিকে শূন্য করার চক্রান্ত চালাচ্ছে সরকার: ফখরুল

  • কলকাতায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২ বাংলাদেশি নিহত

২০১৫ বিশ্বকাপ পরবর্তী দলগুলোর পারফরমেন্সের পরিসংখ্যান

২০১৫ বিশ্বকাপ পরবর্তী দলগুলোর পারফরমেন্সের পরিসংখ্যান

মাত্র কয়েক দিনের অপেক্ষা ক্রিকেট শ্রেষ্ঠত্বের মহাযজ্ঞের পর্দা উঠতে। তার আগে আলোচনায় ফেভারিট ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া-ভারত কিংবা দক্ষিণ আফ্রিকা। কোহলি-বোল্টদের ওপরও স্পটলাইট কম নয়। সব কিছুর মূলে পরিসংখ্যান তথা সংখ্যাতত্ত্ব।

ডাকছে বিশ্বকাপ ইংল্যান্ড তৈরি তার ঐতিহ্য আর আধুনিকতা নিয়ে। চার বছর পর উড়বে নতুনের শ্রেষ্ঠত্বের পতাকা নাকি অব্যাহত থাকবে অজি রাজ? তা জানতে অপেক্ষা ১৪ জুলাই পর্যন্ত। ২০১৫ থেকে ঊনিষের পথচলায় নানা ক্রিকেটীয় হিসাব আর পরিসংখ্যানে একক দাপট নেই কোনো দলের। তবে ইংল্যান্ড-ভারত-অস্ট্রেলিয়া কিংবা দক্ষিণ আফ্রিকা যে সেরা প্রস্তুতি নিয়ে বিশ্বমঞ্চে নামার অপেক্ষায় তা সন্দেহাতীত। 

২০১৫ বিশ্বকাপ পরবর্তী সময়ে ইংল্যান্ড আর ভারতের দাপট দেখেছে বিশ্ব। ১৫মে পর্যন্ত পরিসংখ্যানে ৮৬ ম্যাচের ৫৬টায় জয় ইংলিশদের। সমান ম্যাচে জয় সমান হলেও পরাজয়ের সংখ্যা বেশি টিম ইন্ডিয়ার। তিনে দক্ষিণ আফ্রিকা। সময়টা ভালো কাটেনি অস্ট্রেলিয়ার তবে, শ্রীলঙ্কার বিপর্যয় সব ছাপিয়ে। ৮৪ ম্যাচের ৫৫টায় হেরেছে ৯৬-র চ্যাম্পিয়নরা।

শুধু তাই নয় দু বিশ্বকাপের মাঝের সময়টায় লঙ্কানদের ব্যাটিং গড় সর্বনিম্ন..২৬ দশমিক সাত নয়। বোলিং গড় দ্বিতীয় সর্বনিম্ন সবচে খরুচে বোলিং ইউনিট করুণারত্নের দল।বিপরীত অবস্থা  ইংল্যান্ডের। ২০ সিরিজ/টুর্নামেন্টের ১৫টায় শিরোপা স্বাগতিকরা। ২০১৫-থেকে ১৯  পর্যন্ত পাচবার চার শতাধিক স্কোর দেখেছে বিশ্ব যার চারটা করেছে ইংলিশরা। আর ৩শ পেরিয়েছে ৩৮বার। টপ অর্ডারের স্ট্রাইকরেট রীতিমতো ভয় জাগানিয়ে ১০০-র ওপরে।

প্রথম ১০ ওভারে রান তোলায়ও সেরা ইংল্যান্ড। আর রান কম দেয়ার গেলো চার বছরে ধারাবাহিক নিউজিল্যান্ড। ইকোনমি চার দশমিক সাত।

দলগত পরিসংখ্যানে ইংল্যান্ডের সাথে টিম ইন্ডিয়ার লড়াই ছিল চোখে পড়ার মতো। তবে ব্যাট হাতে বিরাট কোহলির আশপাশে নেই কেউ। চার হাজার তিনশতাধিক রান করেছেন প্রায় ৮০ গড়ে। স্ট্রাইকরেট ১০০ ছুইছুই আর সেঞ্চুরি ১৯টি। চার বছরে ওয়ানডেতে ১৯ সেঞ্চুরি নি:সন্দেহে অসাধারণ।

গড়ের হিসাবে কোহলির পরই আছেন রস টেলর প্রায় ৭০ অ্যাভারেজে। রোহিত শর্মা-ডু প্লেসিদের এলিট ক্লাবে বাংলাদেশের ব্যাটিং নির্ভরতা তামিম ইকবাল। অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপের পর ৫৮ গড়ে রান করেছেন, বেমানান শুধু স্ট্রাইকরেটটা।

চার বছরে দুবার ডাবল সেঞ্চুরি দেখেছে বিশ্ব। এই ক্লাবের দুই সদস্য চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তানের। দুবছর আগে লঙ্কানদের বিপক্ষে করা রোহিত শর্মার ২০৮ রান গেলো বছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ছাড়িয়ে যান ফখর জামান, অপরাজিত ২১০ রানের ইনিংসে।

বল হাতে সেরা আফগান লেগস্পিনার রশিদ খান। ৫৪ ইনিংসে শিকার ১২৩ উইকেট, গড়টাও অবিশ্বাস্য...মাত্র ১৫। পরের অবস্থানগুলোয় ট্রেন্ট বোল্ট, কুলদিপ যাদব, জাসপ্রিত বুমরা। সেরা পাচে আছেন ৪৫ ইনিংসে ৮৩ উইকেট নিয়ে কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ।

প্রথম দশ ওভারের পাওয়ার প্লেতে স্বাভাবিকভাবেই দাপট ফাস্ট বোলারদের। নেতৃত্বে ট্রেন্ট বোল্ট ৪৪ উইকেট নিয়ে, তালিকায় একমাত্র স্পিনার আফগানিস্তানের মুজিব উর রহমান।

দিন তিনেক পরই শুরু হবে ব্যাট-বলের আসল লড়াই। গেলো চার বছরের সংখ্যাতত্ত্ব কতটা কার্যকর হয়..সে পরীক্ষাটা শুরু হবে তখনই।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর