channel 24

সর্বশেষ

  • শুদ্ধি অভিযানে টার্গেটকৃতদের আইনের আওতায় আনা হবে: কাদের

  • সড়ক দুর্ঘটনা: ঝিনাইদহে ২, হবিগঞ্জে ২ ও মৌলভীবাজারে নারী নিহত

  • চট্টগ্রামের নিমতলীতে একটি বাসা থেকে বাবা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার

  • আর্থিক সংকট: শনি ও রোববার বন্ধ থাকবে জাতিসংঘ সদর দপ্তর

নাটকীয় পরিবর্তনের আভাস পাকিস্তানের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে

নাটকীয় পরিবর্তনের আভাস পাকিস্তানের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে

ক্রিকেট মানেই পরিসংখ্যান, রেকর্ড ভাঙ্গা-গড়ার খেলা। চার দশকে এগার বিশ্ব আসরে হাজারো রেকর্ড হয়েছে। এই যেমন সর্বোচ্চ দলগত রান অস্ট্রেলিয়ার। সর্বনিম্ন কানাডার। এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ৫৯ রান অতিরিক্ত দিয়েছে পাকিস্তান। এমন কিছু বিশ্বকাপ রেকর্ডকে যেনে নেবো এবার।

৪ দশক ধরে চলছে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। সেই ১৯৭৫ সাল থেকে ২০১৫, ১১ আসরে সৃষ্টি হয়েছে অসংখ্য রেকর্ড, ইতিহাস গড়েছে বহু ক্রিকেটার। তবে সবকিছুকে ছাপিয়ে সেরার কাতারে সর্বশ্রেষ্ঠ আসনটি টিম অস্ট্রেলিয়ার।

৫ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বলে কথা। শুরুটা ১৯৮৭ সাল দিয়ে। এরপর ৯৯, ২০০৩, ২০০৭ আসরের শিরোপা জিতে হয়েছে হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন। সবশেষ ২০১৫ বিশ্বকাপেও সেরা অস্ট্রেলিয়া।

বিশ্বকাপে দলীয় সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডও অস্ট্রেলিয়ার দখলে। গেলো আসরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সংগ্রহ করেছিলো ৬ উইকেটে ৪১৭ রান। সেই ম্যাচটি ২৭৫ রানে জিতে সবচেয়ে বেশি ব্যবধানে জয়ের রেকর্ডও গড়ে অজিরা।

বিশ্ব আসরে সর্বনিম্ন রানের রেকর্ডটি কানাডার। ২০০৩ আসরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাত্র ৩৬ রানে অলআউট হয় উত্তর আমেরিকার দলটি।

সবচেয়ে কম ১ রানে জয়ের রেকর্ড দুবারই অস্ট্রেলিয়ার। প্রতিবার ভারতের বিপক্ষে। ১৯৮৭ ও ১৯৯২ আসরে।

বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি রেকর্ডের অধিকারী শচীন টেন্ডুলকার। ৬ বিশ্বকাপ খেলে সর্বোচ্চ ২ হাজার ২শ ৭৮ রান করেছেন। সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি ও হাফ সেঞ্চুরির মালিকও তিনি। এক আসরে সবচেয়ে বেশি রানের কীর্তিও লিটল মাস্টারের। ২০০৩ বিশ্বকাপে করেছিলেন ৬৭৩ রান।

শচীন ৬ বিশ্বকাপ খেললেও সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন রিকি পন্টিং। ৪৬টি। সবচেয়ে বেশি ক্যাচও ধরেছেন এ সাবেক অজি অধিনায়ক। সবচেয়ে বেশি ম্যাচে নেতৃত্ব দেয়ার রেকর্ডও তার দখলে।

তবে বিশ্বকাপে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ রানের মালিক মার্টিন গাপটিল। গেলো আসরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অপরাজিত ২৩৭ রান সংগ্রহ করেন এ কিউই ব্যাটসম্যান।

বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ জুটির রেকর্ডও হয়েছে ২০১৫ আসরে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ক্রিস গেইল ও মারলন স্যামুয়েলস গড়েন ৩৭২ রানের জুটি।

এবার বোলারদের কথায় আসা যাক। বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকারী গ্লেন ম্যাকগ্রা। ৭১টি। সেরা বোলিং ফিগারও এ সাবেক অজি পেসারের দখলে। ২০০৩ আসরে নামিবিয়ার বিপক্ষে মাত্র ১৫ রানে ৭ উইকেট নিয়েছিলেন। এক আসরে সবচেয়ে বেশি ২৬ উইকেট নিয়েছিলেন ২০০৭ বিশ্বকাপে।

বিশ্বকাপের সেরা উইকেটরক্ষক কুমার সাঙ্গাকারা। সবচেয়ে বেশি ৫৪ ডিসমিসাল করেছেন এ সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক।

বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি শূন্য রানের আউট হবার কীর্তি দুই ব্যাটসম্যানের। নাথান অ্যাস্টল ও ইজাজ আহমেদ। দুজনই ৫ বার করে ফিরেছেন রানের খাতা খোলার আগেই।

এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ৫৯ অতিরিক্ত রান দিয়েছে পাকিস্তান। ৯৯ বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে।

আর বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ৪৬ ম্যাচে আম্পায়ারিংয়ের রেকর্ডটা প্রয়াত ইংলিশ আম্পায়ার ডেভিড শেফার্ড।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর