channel 24

সর্বশেষ

  • সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ স্লোগানে...

  • আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ২১ দফা অঙ্গীকার...

  • অতীতের ভুলভ্রান্তি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর

  • বিএনপির নির্বাচনি ইশতেহার ঘোষণা করলেন মির্জা ফখরুল...

  • জাতীয় সংসদে উচ্চকক্ষ প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি...

  • রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতায় ভারসাম্য আনাসহ ১৯ প্রতিশ্রুতি

  • নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন না খালেদা জিয়া...

  • প্রার্থিতা বাতিলের বিরুদ্ধে রিট তৃতীয় বেঞ্চেও খারিজ

  • জামায়াতের ২২ নেতার প্রার্থিতা বাতিলে হাইকোর্টের রুল...

  • তিন কার্যদিবসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে ইসিকে নির্দেশ

৮২ বছর আগের রেকর্ড ভাঙল ইয়াসির শাহ

৮২ বছর আগের রেকর্ড ভাঙল ইয়াসির শাহ

আবুধাবি টেস্ট খেলতে নামার আগে ইয়াসিরের নামের লেখা ছিল ৩২ টেস্টে ১৯৫ উইকেট। উইকেটের 'ডাবল সেঞ্চুরি' তুলে নিতে দরকার ছিল আর ৫ উইকেট। সেটি আবুধাবিতেই যে পেয়ে যাবেন, তা প্রত্যাশা করেছিলেন অনেকেই।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়া ইয়াসিরের ঘূর্ণির সামনে কিউইরা যে দাঁড়াতেই পারে নাই।

নিউজিল্যান্ডের প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেট নেওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে টম লাথামকে তুলে নিয়ে মাত্র ১ উইকেটের দূরত্বে দাঁড়িয়ে ছিলেন ইয়াসির। সমারভিলকে ফাঁদে ফেলে ইয়াসির  শুধুই ২০০ উইকেটের মাইলফলক পৌছাননি, তিনি টেস্ট ক্রিকেটে দ্রুততম ২০০ উইকেট নেওয়ার ৮২ বছর আগের এক রেকর্ড ভেঙেছেন।

ক্ল্যারি গ্রিমেট দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরুর আগেই টেস্ট ক্যারিয়ার শেষ হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার সাবেক এই লেগ স্পিনারের। ১৯৩৬ সালে জোহানেসবার্গ টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২০০তম উইকেটের দেখা পেয়েছিলেন গ্রিমেট। ক্যারিয়ারের ৩৬তম টেস্টে এসে এই মাইলফলকের দেখা পেয়েছিলেন তিনি।

ইয়াসির সমারভিলকে আউট করার আগ পর্যন্ত গত ৮২ বছর ধরে টেস্টে গ্রিমেটই ছিলেন দ্রুততম ২০০ উইকেট নেওয়ার রেকর্ডধারি।

আবুধাবিতে আজ সেই গ্রিমেটকে পেছনে ফেলে ইয়াসির ২০০তম উইকেটের দেখা পেলেন ক্যারিয়ারের ৩৩তম ম্যাচে।

দুজনের মধ্যে আরেকটি পার্থক্য হলো, গ্রিমেট এই কীর্তি গড়তে সময় নিয়েছিলেন ১০ বছর ৩৫৩ দিন। ইয়াসির তা গড়তে সময় নিলেন মাত্র ৪ বছর ৪২ দিন।

টেস্টে দ্রুততম ২০০ উইকেটশিকারি পাঁচ বোলার:

ইয়াসির শাহ (পাকিস্তান) - ৪ বছর ৪২ দিন - ৩৩ ম্যাচ
ক্ল্যারি গ্রিমেট (অস্ট্রেলিয়া) - ১০ বছর ৩৫৩ দিন - ৩৬ ম্যাচ
অশ্বিন (ভারত) - ৪ বছর ৩২১ দিন - ৩৭ ম্যাচ
ডেনিস লিলি (অস্ট্রেলিয়া) - ৪ বছর ৯ দিন - ৩৮ ম্যাচ
ওয়াকার ইউনুস (পাকিস্তান) - ৬ বছর ২৩ দিন - ৩৮ ম্যাচ

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর