channel 24

সর্বশেষ

  • রণদা প্রসাদসহ ৭ জন হত্যার ঘটনায়...

  • টাঙ্গাইলে মাহবুবুর রহমানের ফাঁসির আদেশ

  • বরগুনায় প্রকাশ্যে স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা...

  • হাইকোর্টের নজরে এনেছেন এক আইনজীবী...

  • প্রশাসন কী পদক্ষেপ নিয়েছে, তা জানানোর নির্দেশ হাইকোর্টের...

  • বরিশাল মেডিকেলে নিহত রিফাতের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

  • জাহালমের ঘটনায় নিম্ন আদালতে ৩৩ মামলা চলতে বাধা নেই: হাইকোর্ট...

  • কে জড়িত ২ সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্ট দাখিলের নির্দেশ হাইকোর্টের

  • নুসরাত হত্যা: সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়েছে

  • আসামির কাছ থেকে অর্থ দাবি ও থানায় নির্যাতনের অভিযোগে...

  • কিশোরগঞ্জের ভৈরব থানার ২ পরিদর্শক, ৮ এসআই ও ৪ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে মামলা...

  • দুদক ও পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ আদালতের

  • বৈরী আবহাওয়া: আজ বসানো হচ্ছে না পদ্মা সেতুর ১৪তম স্প্যান

পাকিস্তানকে হারিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশ

পাকিস্তানকে হারিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশ

এশিয়া কাপে টানা দ্বিতীয়বার ফাইনালে উঠে গেল বাংলাদেশ। সর্বশেষ চার এশিয়া কাপের তিনবারই ফাইনালে উঠল বাংলাদেশ।

টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে, ১২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চরম বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। চতুর্থ উইকেটে মুশফিক-মিঠুন ১৪৪ রানের জুটি উদ্ধার করে বাংলাদেশকে। মুশফিক ৯৯ রানে ফিরেছেন। মিঠুন করেছেন ৬০।

এই জুটির ভিত্তিটা কাজে লাগাতে পারেনি বাংলাদেশ। ৫ উইকেটে ১৯৭ তোলার পরও, ৭ বল বাকি থাকতে ২৩৯ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহ খেলেন ২৫ রানের ইনিংস। মাশরাফি করেন ১৩।

উজ্জীবিত পাকিস্তানকে মাটিতে নামিয়ে আনে বাংলাদেশের বোলিং। শুরুটাও করেছিলেন মিরাজ। পাকিস্তানের ইনিংসের পঞ্চম বলেই ফখর জামানকে রুবেলের ক্যাচ বানান। পরের ওভারে বাবর আজমকে এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলেন মোস্তাফিজ। ৩ বলের

মধ্যে দুই ব্যাটসম্যান নেই পাকিস্তানের।  নিজের দ্বিতীয় ও ইনিংসের চতুর্থ ওভারে সরফরাজ মুশফিকের ক্যাচ বানান মোস্তাফিজ। ১৮ রানে ৩ উইকেট নেই পাকিস্তানের।

সেখান থেকে ৬৭ রানের জুটি গড়েছিলেন ইমাম ও শোয়েব মালিক। রুবেলের বলে, মিডউইকেটে মাশরাফির দুর্দান্ত এক ক্যাচের শিকার হয়ে ফেরেন শোয়েব মালিক(৩০)।

তারপর সৌম্যের বাউন্সারে শাদাব উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিলে ৯৪ রানে পঞ্চম উইকেট হারায় পাকিস্তান।

ষষ্ঠ উইকেটে আসিফ আলীকে সঙ্গে নিয়ে ৭১ রানের জুটি গড়েন ইমাম-উল হক। মোস্তাফিজের বলে সহজ ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন

আসিফ, মুশফিকের বদলে কিপিং করা লিটন, এক হাতে ক্যাচটি ধরতে গিয়ে গ্লাভসবন্দী করতে পারেননি।

লিটন পরে দুটি দারুণ স্টাম্পিং করেন। প্রথমে মিরাজের বলে আসিফকে (৩১), এরপর মাহমুদউল্লাহর বলে ইমামকেও (৮৩)।  ১৬৭ রানে পাকিস্তান হারায় ৭ উইকেট।

মাহমুদউল্লাহ-সৌম্য বোলিংয়ের শূন্যতা ভালোভাবেই পুষিয়ে দিয়েছেন। মাহমুদউল্লাহ ১০ ওভার বোলিং করে মাত্র ৩৮ রান দিয়েছেন। তার শিকার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইমাম-উল হকের উইকেটটি।

আর শেষে দুই উইকেট নিয়ে মোস্তাফিজ ৪টি উইকেট শিকার করেন। পাকিস্তান ৫০ অভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২০২ রান করে।

শুক্রবারের ফাইনালে প্রতিপক্ষ ভারত। গতবারের ফাইনালেও মুখোমুখি হয়েছিল এই দুই দল।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর