channel 24

সর্বশেষ

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুটি ট্রেনের সংঘর্ষে নিহত ১৬, আহত ৬২...

  • নিহতরা হলেন- মুজিবুর, মরিয়ম, ফারজানা, কাকলী ও কুলসুম (চাঁদপুর)...

  • ইয়াসিন, সুজন, আল আমিন, রিপন, ইউসুফ ও পেয়ারা বেগম (হবিগঞ্জ)...

  • জাহেদা (মৌলভীবাজার), শিশু আবিদা (হবিগঞ্জ) ও সোহামনি (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)...

  • এখন পর্যন্ত ৭ জনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর...

  • আহতদের চিকিৎসা খরচ বহন করবে সরকার...

  • তূর্ণা নিশীথার চালকের ভুলেই এই দুর্ঘটনা: রেলমন্ত্রী...

  • তদন্তে ৫টি কমিটি; তূর্ণা নিশীথার চালক ও সহকারী সাময়িক বরখাস্ত...

  • রেল চালকদের আরও উন্নত প্রশিক্ষণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর

  • সরকারের অবহেলায় বারবার রেল ও সড়কে দুর্ঘটনা: ফখরুল

  • স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে নিহত নূর হোসেনকে নেশাখোর বলায়...

  • সমালোচনার মুখে পরিবারের কাছে জাপা মহাসচিব রাঙ্গার দুঃখ প্রকাশ...

  • ক্ষমা চেয়ে লাভ নেই, জনগণ ক্ষমা করবে না: ওবায়দুল কাদের

  • আয়কর মেলা শুরু ১৪ নভেম্বর; ৩ হাজার কোটি টাকা...

  • রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্য: এনবিআর চেয়ারম্যান

  • হাবিবুল্লাহ রাজনের পরিবর্তে জেলে থাকা রাজন ভূঁইয়ার মুক্তি

  • আগামী অর্থবছরে আরও ৭৬০টি সাইক্লোন সেন্টার হবে: সংসদে দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী

রোহিঙ্গা ঢলের ২ বছর, অনেকটাই স্বাভাবিক তাদের জীবনযাত্রা

রোহিঙ্গা ঢলের ২ বছর, অনেকটাই স্বাভাবিক তাদের জীবনযাত্রা

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর চালানো নির্মম বর্বরতা এখনও ভুলতে পারেননি বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা। তবুও গেল দুই বছরে জীবন অনেকটাই স্বাভাবিক হওয়ার পথে। তবে আশঙ্কার দিক হলো, স্থানীয়দের সাথে প্রায়ই সংঘাতে জড়িয়ে পড়ছেন তারা। বিষয়টি মাথায় রেখে, বিশেষ বাহিনী নিয়োগ করতে যাচ্ছে সরকার। বিশ্লেষকরা বলছেন, প্রতিবার বিষয়টি জাতিসঙ্ঘের সাধারণ অধিবেশনে নিয়ে যাবার নাটক করে মিয়ানমার।

ছোট ভাই মৃত্যুর দৃশ্য এখন ভুলতে পারেননি করিমউল্লাহ। ভাই এর কথা মনে হলে কষ্টে চোখ ভিজে যায় মনের অজান্তেই।

নিজ ভুই ছেড়ে ভিন দেশেই জীবনের শেষাংষ কাটাতে চান মোহাম্মদ ইউনুস।

মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে, সুই সুতোয়ই জীবন আটকে আছে তবে ভিন দেশে আছে নিরাপত্তা।

দুই বছর আগে আসা রোহিঙ্গাদের জীবন এখন অনেকটাই স্বাভাবিক গতিতে চলছে, নেই কোন ঝুঁকি। বাংলাদেশ সরকার ও আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থার সহায়তায়, পুষ্টিকর খাবার, নিয়মিত স্বাস্থ্য সেবা, নিজ ভাষায় শিক্ষাসহ প্রয়োজনীয় সবকিছুই পাচ্ছেন তারা। চলাচলের জন্য ক্যাম্পগুলোতেও তৈরী হয়েছে বড় রাস্তা, আছে বাজার।

তবে শুরু থেকে এখন পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের দেয়া আশ্রয়, সার্বিকভাবে সহজ ছিল না সরকারের জন্য। একদিকে মানবিকতা পরিচয় দিতে হয়েছে, অন্যদিকে স্থানীয়দের অধিকার ও রোহিঙ্গাদের সাথে স্থানীয়দের নিয়মিত সংঘাতকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে, বেগ পেতে হয়েছে বেশ। কারণ গেল দুই বছরে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে প্রায় ৫০০ মামলা হয়েছে।

শুধু তাই নয়, রোহিঙ্গাদের নিয়মিত বাজার ব্যাবস্থাকে সরকার চেষ্টা করছে একটি সুনির্দিষ্ট কাঠামোর মধ্যে আনতে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, বাংলাদেশ সবকিছু করলেও, ফিরে রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া না যাওয়া সব দায়ভার বর্তায় মিয়ানমারের উপর।

বর্তমানে ৩৪টি ক্যাম্পে প্রায় ১১ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থাকে। ভিন্নদিকে উখিয়া টেকনাফ এলাকায় স্থানীয় জনসংখ্যা প্রায় ৫ লাখ।

নিউজটির ভিডিও প্রতিবেদন-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর