channel 24

সর্বশেষ

  • ছাত্রলীগের এমন ঘটনা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য লজ্জার: ভিপি নুর

  • জঙ্গিবাদ-মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে শোভন-রাব্বানীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: কাদের

  • ছাত্রলীগের ভাবমূর্তি নষ্ট হলে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায়...

  • পুনরুদ্ধারে কাজ করার অঙ্গীকার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের

  • আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের জন্য সতর্কবার্তা: শেখ সেলিম

  • ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী এমন সিদ্ধান্ত: ঢাবি উপাচার্য

  • পুলিশের সেবা নিতে গিয়ে কেউ যেন হয়রানি না হয়: ডিএমপি কমিশনার

  • রংপুর-৩ উপনির্বাচনে প্রার্থিতা নিয়ে আওয়ামী লীগের সাথে...

  • আলোচনা হয়েছে, কালকের মধ্যে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত: রাঙ্গা

  • ৩ মাসের মধ্যে পুঁজিবাজারে নিবন্ধিত হতে হবে সব বিমা কোম্পানিকে...

  • অর্থমন্ত্রীর সাথে বৈঠক শেষে আইডিআরএ চেয়ারম্যান

  • ঋণ পুনঃতফসিলীকরণ নিয়ে টিআইবির বিবৃতিতে কোম্পানির ভাবমূর্তি...

  • ক্ষুণ্ন হওয়ায় প্রতিবাদ জানিয়েছে বেক্সিমকো গ্রুপ

রোহিঙ্গা ঢলের ২ বছর, অনেকটাই স্বাভাবিক তাদের জীবনযাত্রা

রোহিঙ্গা ঢলের ২ বছর, অনেকটাই স্বাভাবিক তাদের জীবনযাত্রা

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর চালানো নির্মম বর্বরতা এখনও ভুলতে পারেননি বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা। তবুও গেল দুই বছরে জীবন অনেকটাই স্বাভাবিক হওয়ার পথে। তবে আশঙ্কার দিক হলো, স্থানীয়দের সাথে প্রায়ই সংঘাতে জড়িয়ে পড়ছেন তারা। বিষয়টি মাথায় রেখে, বিশেষ বাহিনী নিয়োগ করতে যাচ্ছে সরকার। বিশ্লেষকরা বলছেন, প্রতিবার বিষয়টি জাতিসঙ্ঘের সাধারণ অধিবেশনে নিয়ে যাবার নাটক করে মিয়ানমার।

ছোট ভাই মৃত্যুর দৃশ্য এখন ভুলতে পারেননি করিমউল্লাহ। ভাই এর কথা মনে হলে কষ্টে চোখ ভিজে যায় মনের অজান্তেই।

নিজ ভুই ছেড়ে ভিন দেশেই জীবনের শেষাংষ কাটাতে চান মোহাম্মদ ইউনুস।

মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে, সুই সুতোয়ই জীবন আটকে আছে তবে ভিন দেশে আছে নিরাপত্তা।

দুই বছর আগে আসা রোহিঙ্গাদের জীবন এখন অনেকটাই স্বাভাবিক গতিতে চলছে, নেই কোন ঝুঁকি। বাংলাদেশ সরকার ও আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থার সহায়তায়, পুষ্টিকর খাবার, নিয়মিত স্বাস্থ্য সেবা, নিজ ভাষায় শিক্ষাসহ প্রয়োজনীয় সবকিছুই পাচ্ছেন তারা। চলাচলের জন্য ক্যাম্পগুলোতেও তৈরী হয়েছে বড় রাস্তা, আছে বাজার।

তবে শুরু থেকে এখন পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের দেয়া আশ্রয়, সার্বিকভাবে সহজ ছিল না সরকারের জন্য। একদিকে মানবিকতা পরিচয় দিতে হয়েছে, অন্যদিকে স্থানীয়দের অধিকার ও রোহিঙ্গাদের সাথে স্থানীয়দের নিয়মিত সংঘাতকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে, বেগ পেতে হয়েছে বেশ। কারণ গেল দুই বছরে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে প্রায় ৫০০ মামলা হয়েছে।

শুধু তাই নয়, রোহিঙ্গাদের নিয়মিত বাজার ব্যাবস্থাকে সরকার চেষ্টা করছে একটি সুনির্দিষ্ট কাঠামোর মধ্যে আনতে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, বাংলাদেশ সবকিছু করলেও, ফিরে রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়া না যাওয়া সব দায়ভার বর্তায় মিয়ানমারের উপর।

বর্তমানে ৩৪টি ক্যাম্পে প্রায় ১১ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থাকে। ভিন্নদিকে উখিয়া টেকনাফ এলাকায় স্থানীয় জনসংখ্যা প্রায় ৫ লাখ।

নিউজটির ভিডিও প্রতিবেদন-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর