channel 24

সর্বশেষ

  • মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে আজ থেকে টেলিফোনের নতুন ও...

  • পুনঃসংযোগ ফি সম্পূর্ণ মওকুফ: টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

  • সীমানা পেরিয়ে বরগুনায় ভারতীয় জেলেদের ইলিশ শিকার; আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজরদারি বাড়ানোর দাবি স্থানীয়দের।

  • সড়ক দুর্ঘটনা ঠেকাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে পুলিশের উদ্যোগ; বেপরোয়া গতি ও মাদকাসক্ত চালক ধরা পড়বে সহজেই।

  • শরীয়তপুর-চাঁদপুর আঞ্চলিক সড়ক যেন মরণফাঁদ; চরম ভোগান্তিতে যাত্রীরা

  • ফের আলোচনায় ডাকসু জিএস রাব্বানী; এমফিলে ভর্তির বিষয়টি জানতো না সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ

পুষ্টিগুন সম্পন্ন মাছ বিক্রি করে লাভবান চাষিরা

পুষ্টিগুন সম্পন্ন মাছ বিক্রি করে লাভবান চাষিরা

ভালো পোনা, পুষ্টিগুন সম্পন্ন মাছ বিক্রি করে লাভবান হচ্ছেন চাষিরা। একই সাথে এগিয়ে চলেছে ভালো ব্রুড মাদারের দ্বিতীয় জেনারেশনের কাজ। কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জন খুব বেশি দূরে নেই। ফিড দ্য ফিউচারের অন্যতম অংশ হিসেবে ইউএসএআইডির অর্থায়নে যশোরসহ সারা দেশে কাজ করছে ওয়ার্ল্ড ফিস।

'মাছে ভাতে বাঙালি' এই প্রবাদের পুরোটাই মিলবে যশোরের মথুরা গ্রামে। মাছ চাষে যেমন পূরণ হচ্ছে আমিষের অভাব, তেমনি স্বাবলম্বী হচ্ছেন কৃষক।

মাছ চাষের জন্য এই গ্রামের গল্পটাই ভিন্ন। এখন আর উন্নত জাতের মাছের পোনা খুঁজতে হয় না এখানকার চাষীদের। মাঠ পর্যায়ের চাষিদের মান সম্পন্ন পোনা নিশ্চিত করছে মধুমতি হ্যাচারিসহ এলাকার অন্তত ৮৫টি হ্যাচারি। অর্ধযুগেরও বেশি সময় ধরে ইউএসএআইডির অর্থায়নে ওয়ার্ল্ড ফিস পরিচালনা করছে প্রকল্পটি। এত অন্তত ৭ লাখ চাষি পাচ্ছে সুস্থ-সবল মাছের পোনা।

মথুরাপুর গ্রামের মাছ চাষি শেফালি। আগে নিম্ন মানের পোনায় ফলাফল ভাল না পাওয়ায়, আট মাস ধরে ব্যবহার করছেন এই প্রকল্পের পোনা। এতে মিলছে কাঙ্খিত ফল।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে শুধু মাছের গুণগত পোনাই নয়, আধুনিকায়ন করা হয়েছে চাষের প্রক্রিয়াও।

সবশেষ হিসাব বলছে, এই প্রকল্পের আওতায় ২০১৬ সালে মাছের উৎপাদন বেড়েছে ২ লাখ মেট্রিকটন। যা থেকে আয় হয় প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর