channel 24

সর্বশেষ

  • বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০১৯ এর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • বিএনপির নেতৃত্ব অস্তিত্ব সংকটে, পরিণত হবে মুসলিম লীগের মতো: কাদের

  • মাত্রা কমলেও ঘুষ যে নেই অস্বীকার করা যাবে না: দুদক চেয়ারম্যান

  • এনটিভির ভিডিও এডিটর আতিক হত্যা মামলায়...

  • একজনের মৃত্যুদণ্ড ও ২ জনের যাবজ্জীবন বহাল

  • সিরাজগঞ্জে সরকারি কলেজের বিজয় র‍্যালি ঘিরে আ.লীগ-বিএনপির সংঘর্ষ

  • রংপুরের বোতলায় অন্তঃসত্ত্বা মা ও ২ সন্তানের মরদেহ উদ্ধার...

  • পুলিশের দাবি শ্বাসরোধ করে হত্যা; স্বামী আটক, হত্যার দায় স্বীকার

  • এসএ গেমস: আর্চারিতে দলগত ৩ ইভেন্টে বাংলাদেশের স্বর্ণ জয়

  • এসএ গেমসে আজ নেপালকে হারাতে পারলে...

  • ফুটবলারদের ৪০ হাজার ডলার বোনাস দেবে ফুটবল ফেডারেশন

  • নারী ক্রিকেট: শ্রীলঙ্কাকে ২ রানে হারিয়ে স্বর্ণ জিতেছে বাংলাদেশ...

  • স্কোর: বাংলাদেশ ৯১/৮, শ্রীলঙ্কা ৮৯/৯ (নাহিদা ২/৯)

ডেঙ্গুর বাহক এডিস মশা রোধে পরমাণু কমিশনের প্রযুক্তি উদ্ভাবন

ডেঙ্গুর বাহক এডিস মশা রোধে পরমাণু কমিশনের প্রযুক্তি উদ্ভাবন

ডেঙ্গুর বাহক এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে পরমাণু প্রযুক্তির সফল প্রয়োগ করেছেন পরমাণু শক্তি কমিশনের বিজ্ঞানীরা। তারা জানান, এই পদ্ধতিতে পুরুষ এডিস মশাকে বন্ধ্যা করে নির্দিষ্ট এলাকায় ছেড়ে দিলে সহজেই মশার বংশ বিস্তার রোধ করা যাবে। এই গবেষণা কার্যক্রম পরিদর্শন করে বিজ্ঞানমন্ত্রী ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান জানান, শিগগিরই মাঠ পর্যায়ে প্রয়োগ করা হবে এই পদ্ধতি।

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে সারাবিশ্বের মানুষের জন্য অন্যতম বড়ো হুমকির নাম এডিস মশা। পরমাণু শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহার তদারক প্রতিষ্ঠান আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি এজেন্সি (আইএইএ) বেশ কয়েক বছর ধরেই মশা নিয়ন্ত্রনে পরমাণু প্রযুক্তি ব্যবহারে সহযোগিতা করছে।

স্টেরাইল ইনসেক্ট টেকনিক (এসআইটি) পদ্ধতিতে পুরুষ এডিস মশাকে নির্দিষ্ট মাত্রায় গামা রশ্মি প্রয়োগ করে বন্ধ্যাকরণ করা হয়। পরে ডেঙ্গুর প্রভাব রয়েছে এমন এলাকায় এই মশাগুলোকে অবমুক্ত করা হয়। এগুলো স্ত্রী এডিসের সাথে মিলিত হয়ে, মশার বংশ বিস্তার বন্ধ করে দেয়।

টানা এক যুগ গবেষণা করার পর, এই পদ্ধতি প্রয়োগে সফল হয়েছেন বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের বিজ্ঞানীরা।

সাভারে অবস্থিত কমিশনের খাদ্য ও বিকিরণ জীব বিজ্ঞান ইন্সটিটিউটের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা নাহিদা সুলতানা জানান, ডেঙ্গুর বাহক পুরুষ এডিস মশার পুরো জীবন চক্রে পর্যায়ক্রমে গবেষণা করেছেন তারা।

এই পদ্ধতি প্রয়োগ করে ইতিমধ্যেই সাফল্য পেয়েছে মেক্সিকো, ব্রাজিল ও ইতালি। অন্যদিকে দুই সপ্তাহ আগে চীনের দুটি দ্বীপেও প্রয়োগ করা হয়েছে এসআইটি'র। গবেষণা চলছে থাইল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরে।

এজন্য একটি প্রকল্প প্রতিবেদন তৈরির নির্দেশনা পেয়েছে গবেষক দলটি।

সপ্তাহের শুরুতেই এই গবেষণার কারিগরি ও প্রায়োগিক দিক পর্যবেক্ষণ করেন বিজ্ঞানমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান। তিনি বলেন, এই গবেষণার ফলাফল মাঠ পর্যায়ে নিয়ে যেতে উদ্যোগ নেবেন তিনি।

এই গবেষণা কার্যক্রমে প্রতি বছর ৫০০ ইউরো করে ৫ বছরে আড়াই হাজার ইউরো অর্থ সহায়তা দিয়েছে আইএইএ। সেই টাকায় ছোট্ট ল্যাবরেটরিতেই সাফল্য দেখালেন বাংলাদেশের পরমাণু বিজ্ঞানীরা।

দেখুন নিউজটির ভিডিও প্রতিবেদন-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর