channel 24

সর্বশেষ

  • করোনার সম্মুখ যোদ্ধা গণমাধ্যমকর্মী ও পুলিশের ঈদ

  • বিষাদের ঈদ: নিম্নআয়ের অনেকের ঘরেই জ্বলেনি চুলা

  • একটু স্বস্তির খোঁজে শেষ বিকেলে রাজধানীর হাতিরঝিলে মানুষের ভিড়

  • করোনায় চিকিৎসক আর স্বাস্থ্যসেবীদের ঈদ কাটছে পরিবার ছাড়াই

  • হাঁটুপানিতে ঈদের নামাজ আদায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের

  • বৈশাখী টেলিভিশনের সিনিয়র সাংবাদিক অশোক চৌধুরী সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত

  • করোনা ভয় উপেক্ষা করেই সাবেক সংসদ সদস্য মকবুলের জানাজায় হাজারো মানুষ

  • খবর পেলেই করোনায় মৃতদের দাফন বা সৎকারে ছুটে যান কাউন্সিলর খোরশেদ

  • পবিত্র ঈদুল ফিতরে দুঃসময় কাটিয়ে সুদিন ফেরার প্রার্থনা

  • দেশে করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৯৭৫

  • কাজী নজরুল ইসলামের ১২১তম জন্মবার্ষিকী আজ

  • ঈদ আনন্দে বেদনার ছাপ; জামাতে মানা হয়নি শারীরিক দূরত্ব

  • ঈদেও কর্মব্যস্ত করোনার সম্মুখ যোদ্ধারা; স্বজনহারাদের হৃদয়ে বিষাদের সুর

  • ঈদের নামাজে সেজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

  • বিশ্বজুড়ে অব্যাহত করোনায় মৃত্যুর মিছিল

গত ছয় মাসে ধর্ষণের শিকার চার শতাধিক নারী ও শিশু

গত ছয় মাসে ধর্ষণের শিকার চার শতাধিক নারী ও শিশু

দশ বছর পূর্ণ হওয়ার আগে ধর্ষণের শিকার দেশের ৫ দশমিক এক সাত শতাংশ মেয়ে শিশু। আর কিশোরী হয়ে ওঠার আগে পরিবার থেকে শারীরিক নিপীড়নের শিকার ২২ শতাংশ। সম্প্রতি শিশু ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় বিভিন্ন সামজিক সংগঠনের পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে এ তথ্য। যেখানে বলা হয়েছে, গত ছয় মাসে দেশে নারী ও শিশু ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে ৪০৮টি। সমাজকর্মীরা বলছেন, সুশাসনের অভাবে বাড়ছে সামাজিক অবক্ষয়।

রাজধানীর ওয়ারীর সাত বছরের শিশু সামিয়া আফরিন সায়মা গত শনিবার ধর্ষণের পর তাকে নির্মমভাবে হত্যা করেন হারুন নামে এক ঘাতক।

নারায়ণগঞ্জে ইংরেজি মাধ্যমের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে ২০ শিক্ষার্থী ও আরেক মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১২ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ।

প্রতিদিনই এমন খবর আসছে খবরের কাগজ কিংবা টেলিভিশনে।

পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, গত ছয়মাসে ৪০৮ জন নারী ও শিশু ধর্ষণের শিকার হয় সারা দেশে। এরমধ্যে ২০৪ জনের বয়স ১৮ বছরের নিচে। গতবছরের প্রথম দশ মাসে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতনের শিকার হন ১ হাজার ৭৩৭জন। ২০১৭ সালে এ সংখ্যা ছিলো ৭৯১ জন। ২০১৬ তে ৭২৪ আর ২০১৫ তে ৭৭৭ জন।

কেন এ বর্বরতা? কেন এ অবক্ষয়? মানবাধিকার কর্মী নূর খানেরর মতে, সুশাসনের ঘাটতি ও নীতিহীন রাজনীতি সমাজে বিকৃতি বাড়াচ্ছে। তারই প্রভাবে বাড়ছে ধর্ষণের মতো অপরাধ।

আইনজীবী এলিনা খান বলছেন, আইনের প্রয়োগ না থাকায় অপরাধীরা পার পেয়ে যায়, যা শেষ পর্যন্ত অপরাধকে উৎসাহিত করে।

তারা দুজনই মনে করেন, ধর্ষণের মতো অপরাধ ঠেকাতে পরিবার ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নৈতিক শিক্ষার পাশাপাশি বাড়াতে হবে সামাজিক সচেতনতা।

ভিডিও প্রতিবেদন-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর