channel 24

সর্বশেষ

  • কর্মস্থলে যোগ দিতে চট্টগ্রামে ফিরছে মানুষজন

  • পার্বত্য জেলাগুলোতে সেনাবাহিনীর খাদ্য সহায়তা অব্যাহত

  • করোনা চিকিৎসায় চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালগুলো পুরোপুরি তৎপর নয়

  • কুষ্টিয়ায় করোনা রোগীদের সেবায় একদল স্বেচ্ছাসেবী

  • চট্টগ্রামে নতুন করে ২‘শ ২৯ জন করোনায় আক্রান্ত

  • আর্চ্যারি ঘিরে স্বপ্ন ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা জানালেন রোমান সানা

  • করোনায় সর্বোচ্চ ২৫২৩ জন শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ২৩

  • কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় হাইড্রোক্সো-ক্লোরোকুইন ওষুধ না রাখার পরামর্শ

  • আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে প্রিন্স চার্লসের চিঠি

  • পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নগরবাসীকে আস্থা রাখতে বললেন দ. মেয়র তাপস

  • ডিএমসিতে করোনা রোগী নিজেই সংগ্রহ করছেন ওষুধ

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • মহামারির মধ্যে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র

  • আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস আজ

  • এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল মিলবে সম্পূর্ণ অনলাইনে

রোহিঙ্গাদের সার্বিক চাহিদা পূরণে বড় চ্যালেঞ্জ অর্থায়ন সংকট

রোহিঙ্গাদের সার্বিক চাহিদা পূরণে বড় চ্যালেঞ্জ অর্থায়ন সংকট

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন হচ্ছে না কারন দেশটির সরকারের প্রতি আস্থা নেই রোহিঙ্গাদের। এতে বাংলাদেশের গাফলতি নেই কোন। চ্যানেল টুয়েন্টি ফোরের সাথে সাক্ষাতকারে নিজেদের এমন অবস্থানের কথা জানান শাহরিয়ার আলম। তবে শরণার্থী বিশেষজ্ঞদের মতে, রোহিঙ্গাদের সার্বিক চাহিদা পূরণে আগামী দিনের বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে অর্থায়ন সংকট।

গত দুই বছরে রোহিঙ্গা সংকট সমাধান এবং প্রয়োজনীয় ত্রাণের সংস্থান করতে কক্সবাজার ঘুরে গেছেন কয়েকশ আন্তর্জাতিক ব্যক্তিবর্গ। বিশ্ব দরবারে পৌছে দেবার চেষ্টা করেছেন নিজের বার্তা।

বিশ্বজুড়ে শরণার্থী সংকটের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে এখানেও। গত বছর (২০১৮ সাল) রোহিঙ্গাদের প্রয়োজনীয় অর্থের মাত্র ২৩ শতাংশ জোগার করতে পারে জাতিসংঘ।

চলতি বছর প্রয়োজন প্রায় ৯০ কোটি ডলার। কিন্তু এখন পর্যন্ত দাতাদের সাড়া নেই তেমন একটা।

ফলে মানবিক কারনে পালিয়ে আসা মানুষগুলোর জন্য অর্থ জোগাড়ই হবে আগামী দিনের বড় সংকট।  

তবে বাস্তবতা হচ্ছে জাতিসংঘ কিংবা বাংলাদেশ সরকার কারোই জানা নেই কবে থেকে রোহিঙ্গারা ফিরবে নিজ ভূমিতে। 

নিউজটির ভিডিও-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর