channel 24

সর্বশেষ

  • মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হলেও ধ্বংস হয়েছে বন...

  • বৃক্ষমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা...

  • পরিবেশ দূষণ রোধে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহবান

  • চট্টগ্রাম থেকে নিখোঁজের ১১ দিন পর বনানীর বাসায় পৌঁছেছেন...

  • সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজের ভাগনে সৌরভ

  • জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার নথি প্রস্তুত...

  • আজ হাইকোর্টে আসার সম্ভাবনা, রোববার জামিন আবেদন: জয়নুল আবেদীন

  • নুসরাত হত্যা: আদালতে হাজির করা হয়েছে ১৬ আসামিকে

  • পায়রা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিক নিহতের ঘটনায় তদন্ত কাজ শুরু...

  • ৭ কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ জেলা প্রশাসকের

  • বিশ্বকাপ: বিকাল সাড়ে ৩টায় অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি বাংলাদেশ

নামমাত্র জেল-জরিমানায় ফের তৎপর খাদ্য ভেজালকারীরা

নামমাত্র জেল-জরিমানায় ফের তৎপর খাদ্য ভেজালকারীরা

পাঁচ-দশ লাখ টাকা জরিমানা কিংবা এক-দু'বছরের জেল দিয়ে টানা যাচ্ছে না ভেজালের লাগাম। তাই চুয়াত্তরের বিশেষ ক্ষমতা আইনে খাদ্যে ভেজালকারীদের সর্বোচ্চ সাজার পক্ষে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ। বিশ্লেষকরা বলছেন, বিশেষ ক্ষমতা আইনে যেখানে সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রয়েছে, সেখানে নতুন আইনে পার পেয়ে যাচ্ছে ভেজালকারীরা।

বর্তমানে ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালিত হয় সাধারণত দুটি আইনের মাধ্যমে। নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩ ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯।

এই দুটি আইনে সর্বোচ্চ শাস্তি যথাক্রমে ৫ বছর ও ৩ বছরের জেল।

কিন্তু ভ্রাম্যমান আদালত তার আইনি বাধ্যবাধকতার কারণে ২ বছরের বেশি সাজা দিতে পারেন না। ফলে নামমাত্র জেল-জরিমানার পর্ব শেষ করে, ফের ততপর হয়ে ওঠে ভেজালকারীরা।

অথচ ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-সি ধারায় খাদ্য, পানীয় ও ওষুধে ভেজাল দেয়ার শাস্তি মৃত্যুদণ্ড বা যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান থাকলেও আইনটি তেমন প্রয়োগ করতে দেখা যায় না।

খাদ্যপণ্যে ভেজাল দিয়ে গোটা দেশের মানুষকে প্রতিনিয়ত যারা মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছেন, তাদেরকে মৃত্যুদণ্ডের মতো দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দেয়ার তাগিদ অনুভব করছেন আইন প্রয়োগের সঙ্গে সম্পৃক্তরাও।

গত বছর ভেজালকারীদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে ১১টি মামলা করে র‍্যাব। কিন্তু প্রভাবশালীদের দৌরাত্ম ও স্বাক্ষী জটিলতায় এগোয়নি বেশি দূর।

ভারতে খাদ্যে ভেজাল দেয়ার শাস্তি হিসেবে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, চীনে মৃত্যদণ্ড এবং যুক্তরাষ্ট্রে ১০ বছরের জেল দেয়ার বিধান রয়েছে।

প্রতিবেদনের ভিডিও-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর