channel 24

সর্বশেষ

  • জব্দ করা ইয়াবা নিজেদের মধ্যে বণ্টন করে নেয়ায় ৫ পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

  • আসামিকে ছেড়ে দিয়ে জব্দ করা ইয়াবা বণ্টন করে নেয়ার ঘটনায়...

  • রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানার মামলায় ৫ পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

  • রংপুর-৩ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার

  • এবার এনআরসি হবে ভারতের হরিয়ানায়; কংগ্রেসের সমর্থন

  • তদারকিতে গঠন করা হবে পর্যবেক্ষণ কমিটি

  • পুঁজিবাজারে সুশাসন নিশ্চিতে কোনো ছাড় নয়: অর্থমন্ত্রী...

  • ড. কালাম স্মৃতি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডস গ্রহণ করলেন প্রধানমন্ত্রী...

  • বাংলাদেশের জনগণের প্রতি উৎসর্গ করলেন পুরস্কারটি

  • দলের যেই হোক, অপকর্ম করলে কোনো ছাড় নয়: ওবায়দুল কাদের...

  • দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিআরটিসিতে দরকার নেই

  • হাজার চেষ্টা করেও দুর্নীতি ঢেকে রাখতে পারছে না সরকার: মির্জা ফখরুল

  • ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি-সম্পাদকের শ্রদ্ধা

  • ব্যক্তি হতে পারে, ছাত্রলীগ আদর্শচ্যুত হতে পারে না: নাহিয়ান জয়

  • ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে খুলনা মেডিকেলে শিশুর মৃত্যু

  • নীলফামারীর পলাশবাড়িতে ট্রেনে কাটা পড়ে মা ও শিশুর মৃত্যু

  • তৃতীয় ও চতুর্থ টি টোয়েন্টির জন্য বাংলাদেশ দল: সাকিব...

  • মুশফিক, মাহমুদুল্লাহ, সাব্বির, মোসাদ্দেক, লিটন, আফিফ...

  • তাইজুল, রুবেল, শফিউল, মোস্তাফিজ, সাইফুদ্দিন...

  • নাঈম শেখ, আমিনুল বিপ্লব ও নাজমুল হোসেন শান্ত...

  • বাদ পড়েছেন সৌম্য, ইয়াসিন আরাফাত ও শেখ মেহেদী হাসান

শান্তিরক্ষা মিশনে পুরুষের সাথে সমান তালে এগিয়ে বাংলাদেশের নারী

শান্তিরক্ষা মিশনে পুরুষের সাথে সমান তালে এগিয়ে বাংলাদেশের নারী

শান্তিরক্ষা মিশনে পুরুষের সাথে সমান তালে এগিয়ে বাংলাদেশের নারীরাও। দুই দশক আগে মাত্র ৫ জন নারী সদস্য নিয়ে যাত্রা শুরু করা এই বহরে এখন শুধু সেনাবাহিনীরই আছেন তিন শতাধিক নারী। যদিও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে শান্তি প্রতিষ্ঠায় নিবেদিত এই নারীর সংখ্যা এখনও পুরুষের তুলনায় অনেক কম। তাই ভবিষ্যতে এই সংখ্যা মোট সদস্যের অন্তত ২৫ ভাগ করতে চায় জাতিসংঘ।

৮০ দশকের শেষের দিকে বাংলাদেশ শান্তিরক্ষা মিশনে নাম লেখালেও নারীদের অংশগ্রহণে সময় লাগে আরো এক যুগ।

২০০০ সালে ৫ জনের একটি নারী প্রতিনিধিদল প্রথমবারের মতো শান্তির বার্তা নিয়ে যায় পূর্ব তিমুরে। এরও এক দশক পর ২০১০ সালে কঙ্গো মিশনে যান পুলিশের ৮১ জন নারী সদস্য।  

গেলো ২ দশকে বিভিন্ন দেশে মিশন করেছেন দেড় হাজারের বেশি বাংলাদেশি নারী। বাহিনী বিচারে এ তালিকায় ২য় সেনাবাহিনী। বর্তমানে বিভিন্ন দেশে নিয়োজিত আছেন বাহিনীর ৬৮ জন নারী অফিসার। পুরুষদের পাশপাশি শান্তি প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখছেন তারাও।

কেবল দাপ্তরিক কিংবা সামাজিক কাজ নয় নেতৃত্বের গুণাবলীতেও ভাস্বর বাংলাদেশের নারীরা। এ যাবৎ জাতিসংঘে ৩টি মেডিকেল কোরের কন্টিনজেন্ট কমান্ডারও ছিলেন নারী সেনা কর্মকর্তা।

সদ্য মিশন শেষ করা (মেজর সানিয়া, মেজর রিফাত) এ দুই নারীই মনে করেন শান্তিরক্ষা মিশনে নারীর অংশগ্রহণ বাড়ানোর সুযোগ রয়েছে আরো। স্বপ্ন দেখেন জাতিসংঘ মিশনের উচ্চপদগুলোতেও একদিন আলো ছড়াবেন বাংলার নারীরা।

এতোদিন সেনাবাহিনীর নারী অফিসারদেরই কেবল মিশনের সুযোগ থাকলেও সম্প্রতি এ তালিকায় যুক্ত হয়েছেন নারী সৈনিকরাও। প্রথম ধাপে ৩১১ জনকে পাঠানো হয়েছে বিভিন্ন মিশনে।

এক কর্মকর্তার আশা, ২০২৮ সালের মধ্যে শান্তিরক্ষা মিশনে ২৫ শতাংশ নারী সদস্য নিশ্চিতে জাতিসংঘের যে লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে তা বাস্তবায়নে সফল হবে বাংলাদেশ।

ভিডিওতে শান্তিরক্ষা মিশনের প্রতিবেদন-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর