channel 24

সর্বশেষ

  • খালেদা জিয়ার মুক্তিতে দলীয়ভাবে ব্যর্থ হয়ে...

  • বিএনপি সরকারের ঘাড়ে দোষ চাপাচ্ছে: সেতুমন্ত্রী

  • সমঝোতা নয়, আইনি পথেই খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে: মওদুদ

  • মানহানির ২ মামলায় হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার ৬ মাসের জামিন

  • মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি বন্ধ ও ধ্বংসের নির্দেশ হাইকোর্টের...

  • একমাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ

  • শেষ ধাপে ২০ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে...

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নাসিমার বাড়িতে দুর্বৃত্তের অগ্নিসংযোগ...

  • সিরাজগঞ্জে আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ২...

  • কারচুপির অভিযোগে গাজীপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইজাদুরের ভোট বর্জন

  • বিশ্বকাপ: আফগানিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করছে ইংল্যান্ড

মাদক মামলায় সাজা পেয়েছেন একজন; কারাগারে আরেকজন

মাদক মামলায় সাজা পেয়েছেন একজন; কারাগারে আরেকজন

মাদক মামলায় সাজা পেয়েছেন একজন, কিন্তু পুলিশ গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠিয়েছে আরেকজনকে। এমন অভিযোগ উঠেছে, যশোর কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশের বিরুদ্ধে। তবে পুলিশের দাবি, প্রকৃত অপরাধীকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বরং অপরাধী নিজের নাম পরিবর্তন করেছেন।

গত ২০ মার্চ যশোর শহরের রায়পাড়া এলাকা থেকে এক নারীকে গ্রেফতার করে কোতয়ালী থানা পুলিশ। বলা হচ্ছে, তিনি মাদক মামলায় দুই বছর সাজাপ্রাপ্ত শিরিন বেগম। কিন্তু তার আইনজীবীর দাবি, গ্রেফতার হওয়া নারীর নাম রেখা। পুলিশ ভুলবশত তাকে গ্রেফতার করেছে। তিনি সাজাপ্রাপ্ত শিরিন বেগমের আইনজীবী ছিলেন জানিয়ে বলেন, শিরিন বেগম বর্তমানে বিদেশে। এর সপক্ষে তিনি রেখার পাসপোর্ট ও জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপিও আদালতে জমা দেন।

যশোর শহরের রায়পাড়ার ইসমাইল কলোনির লোকেরা জানান, শিরিন ও রেখা একই নারী নন। তবে তাদের দুজনেরই স্বামী শহিদুল ইসলাম। সাজাপ্রাপ্ত শিরিন বেশ কয়েক বছর ধরে লেবাননে আছেন। একই কথা বলছেন শহিদুল ইসলামও।

যশোর কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অপূর্ব হাসানের দাবি, সাজাপ্রাপ্ত শিরিন বেগমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি নাম পরিবর্তন করে রেখা নামে চলাফেরা করেছেন।

সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত অপরাধীর শাস্তি এবং কারাগারে থাকা নারী নির্দোষ হলে তার মুক্তির দাবি জানিয়েছেন যশোরের মানুষ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর