channel 24

সর্বশেষ

  • কমলাপুর স্টেশনে ট্রেনের বগি থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

  • ২২ তারিখের বৈঠকে বকেয়া বিষয়ে সিদ্ধান্ত: ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন...

  • পাওনা পরিশোধের নির্দেশনা না এলে...

  • তৈরি হবে অচলাবস্থা: হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন

  • জাতীয় স্কুল মিল নীতিমালার খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন...

  • প্রাথমিকে মোট ক্যালরির ৩০ ভাগ পূরণ করতে হবে স্কুলকে

  • নকশা জালিয়াতি: বনানীর এফ আর টাওয়ারের মালিক ফারুক গ্রেপ্তার

  • খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে না পেরে বিদেশে নালিশ করছে বিএনপি: সেতুমন্ত্রী

  • ডেঙ্গু: ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১,৬১৫ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • ঢাকা, বরিশাল, খুলনা, ফরিদপুর ও ময়মনসিংহে ৬ জনের মৃত্যু

  • বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া নয়, আ.লীগের লোকজন জড়িত: ফখরুল

  • জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ভিপি নুরের

  • নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের ওপর আদেশ কাল...

  • সাংবাদিক ছাড়া গণমাধ্যম মালিকদের অস্তিত্ব নেই: আপিল বিভাগ

  • খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কার্যালয়ে দুদকের অভিযান চলছে

  • তিন দিনের সফরে রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পদ্মা সেতু প্রকল্প: খরচ করতে না পেরে দেড় হাজার কোটি টাকা ফেরত

পদ্মা সেতু প্রকল্প: খরচ করতে না পেরে দেড় হাজার কোটি টাকা ফেরত

খরচ করতে না পেরে এডিপি বরাদ্দের প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকা ফেরত পাঠানো হচ্ছে পদ্মা সেতু প্রকল্প থেকে। ফলে, চলতি অর্থবছরের জন্য ৪ হাজার ৪শ কোটি টাকা নেমে আসছে তিন হাজার কোটিতে। প্রকল্প পরিচালক বলছেন, সময়মতো নকশা চূড়ান্ত করতে না পারায় বেশ খানিকটা পিছিয়ে ছিলো কাজকর্ম। আর বিশ্লেষকরা বলছেন, বিশেষ নজরদারিতে থাকার পরও বরাদ্দের টাকা কাটছাঁট হওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত।

পদ্মার বুকে সেতুর দৈর্ঘ্য বাড়ছে নিয়মিত বিরতি দিয়ে। এখন পর্যন্ত নয়টি স্প্যানে দৃশ্যমান হয়েছে সোয়া এক কিলোমিটারের বেশি। এগুচ্ছে, অন্যান্য কাজকর্মও। এছাড়া, পুরোপুরি প্রস্তুত বেশ কয়েকটি খুঁটি। যেগুলোর ওপরও বসানো হবে নতুন স্প্যান।

এক রকম প্রত্যাশিত গতিতে কাজ এগুলেও, সমস্যা রয়ে গেছে টাকা খরচের ক্ষেত্রে। কেননা, দীর্ঘদিন ধরে ৬ ও ৭ নম্বর খুঁটি নিয়ে জটিলতার সমাধান না হওয়ায় ফেরত পাঠাতে হচ্ছে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি- এডিপিতে থাকা বরাদ্দের টাকা।

পদ্মা প্রকল্পের জন্য এখন পর্যন্ত মোট খরচ ধরা হয়েছে ত্রিশ হাজার দুইশ কোটি টাকা। আর ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বরাদ্দ ছিল ৪ হাজার ৪শ কোটির মতো। কিন্তু, ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত হিসাব বলছে, বরাদ্দের বিপরীতে মোট ছাড় করা হয় ২হাজার কোটির বেশি। যার থেকে খরচ হয় দেড় হাজার কোটির কম। যা মোট বরাদ্দের মাত্র তিন ভাগের এক ভাগ। প্রশ্ন হলো, ফাস্টট্র্যাকের অধীনে থাকার পরও কেনো গতি নেই খরচের ক্ষেত্রে?

ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পদ্মা প্রকল্পে মোট খরচ হয়েছে সোয়া ১৮ হাজার কোটি টাকা। যা মোট বরাদ্দের পাঁচ ভাগের তিন ভাগ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর