channel 24

সর্বশেষ

  • মানিকগঞ্জের পুখুরিয়ায় বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী বাবা-ছেলে নিহত

  • ভোটারদের কেন্দ্রে আনার দায়িত্ব প্রার্থীর, ইসির নয়: সিইসি

  • উন্নয়ন করতে গিয়ে গরিবের ক্ষতি করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

  • দায়িত্ব নিচ্ছেন ডাকসুর ভিপি নুর; অফিস বুঝে পেতে চিঠি...

  • ডাকসু নির্বাচন সংক্রান্ত অভিযোগ তদন্তে কমিটি; ৭ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন

  • ঢাকায় পরিবহন খাতে শৃঙ্খলা ফেরাতে ব্যর্থতা স্বীকার ডিএমপি কমিশনারের

  • ছাত্র আন্দোলনে উসকানি বিএনপির দেউলিয়াত্বের প্রমাণ: হানিফ

  • পদ্মাসেতুর জাজিরা প্রান্তে আজ বসানো হচ্ছে না অষ্টম স্প্যান

  • এমপিওভুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে...

  • সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করছে শিক্ষকরা

  • সড়ক দুর্ঘটনায় সিরাজগঞ্জ, খুলনা ও নরসিংদীতে ৩ স্কুলশিক্ষার্থী নিহত

  • রাজধানীর কল্যাণপুরে তেলবাহী লরির ধাক্কায় মাদ্রাসা শিক্ষক নিহত

বিশ্বের কোনো গবেষক যা করতে পারেননি, তাই করেছেন তারেক হাসান

বিশ্বের কোনো গবেষক যা করতে পারেননি, তাই করেছেন তারেক হাসান

স্বপ্ন যার আকাশ ছোঁয়া, তাকে দমিয়ে রাখে সাধ্য কার? বলছি কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক তারেক হাসান আল মাহমুদের কথা। বিশ্বের কোনো গবেষক যে কাজটি করতে পারেননি, তাই করে দেখিয়েছেন তিনি। গবেষণার মাধ্যমে দুটি মিসাইলের কৌণিক দূরত্ব কমিয়ে এনেছেন ২ ডিগ্রির মধ্যে। এ জন্য পেয়েছেন চীনের সেরা উদ্ভাবকের পুরস্কারও। বর্তমান পিএইচডি করছেন ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি অব চায়নাতে।

তারেক হাসান আল মাহমুদ কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক। বছর চারেক আগে ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি অব চায়নাতে যান পিএইচডি করতে।

বাংলাদেশি এই শিক্ষকের প্রতি আস্থা রেখে অত্যন্ত দুরহ একটি কাজের দায়িত্ব দেন তার সুপারভাইজার। বলা হয়, ৫ ডিগ্রি অ্যাংগুলার সেপারেশনের ভেতরে থাকা দুটি মিসাইলের দূরত্ব কমিয়ে ৩ ডিগ্রির মধ্যে আনতে।

গবেষণার মাধ্যমে এক বছরের চেষ্টায় সেই কঠিন কাজটি শেষ করেন, তারেক হাসান। দুটি মিসাইলের কৌণিক দূরত্ব কমিয়ে আনেন ২ ডিগ্রির মধ্যে। তবে এটি অন্যান্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রেও সম্ভব বলে জানান তিনি। আর এ আবিষ্কারের জন্য সম্প্রতি জিতে নেন, সেরা উদ্ভাবকের পুরস্কার বেস্ট রিসার্চ পেপার অ্যান্ড প্রেজেন্টেশন অ্যাওয়ার্ড। চীন থেকেই চ্যানেল টোয়েন্টিফোরকে দেয়া সাক্ষাতকারে এই স্বীকৃতি মাতৃভূমিকে উৎসর্গের কথা জানান।

চীনের এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রথম কোনো বাংলাদেশি পেলেন মর্যাদাপূর্ণ এ পুরস্কার। ভবিষ্যতে ফিরে এসে কাজ করতে চান দেশের জন্য।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শিক্ষকের সাফল্যে উচ্ছ্বসিত তার সহকর্মী ও শিক্ষার্থীরাও

শিক্ষক তারেক হাসান আল মাহমুদের গবেষণা এগিয়ে যাক আরও বিশ্ব দরবারে তুলে ধরুক লাল-সবুজের পতাকা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর