channel 24

সর্বশেষ

  • মানিকগঞ্জের পুখুরিয়ায় বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী বাবা-ছেলে নিহত

  • ভোটারদের কেন্দ্রে আনার দায়িত্ব প্রার্থীর, ইসির নয়: সিইসি

  • উন্নয়ন করতে গিয়ে গরিবের ক্ষতি করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

  • দায়িত্ব নিচ্ছেন ডাকসুর ভিপি নুর; অফিস বুঝে পেতে চিঠি...

  • ডাকসু নির্বাচন সংক্রান্ত অভিযোগ তদন্তে কমিটি; ৭ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন

  • ঢাকায় পরিবহন খাতে শৃঙ্খলা ফেরাতে ব্যর্থতা স্বীকার ডিএমপি কমিশনারের

  • ছাত্র আন্দোলনে উসকানি বিএনপির দেউলিয়াত্বের প্রমাণ: হানিফ

  • পদ্মাসেতুর জাজিরা প্রান্তে আজ বসানো হচ্ছে না অষ্টম স্প্যান

  • এমপিওভুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে...

  • সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করছে শিক্ষকরা

  • সড়ক দুর্ঘটনায় সিরাজগঞ্জ, খুলনা ও নরসিংদীতে ৩ স্কুলশিক্ষার্থী নিহত

  • রাজধানীর কল্যাণপুরে তেলবাহী লরির ধাক্কায় মাদ্রাসা শিক্ষক নিহত

বিজ্ঞানী আল মামুনের এক অনন্য রেকর্ড

বিজ্ঞানী আল মামুনের এক অনন্য রেকর্ড

ডক্টর আব্দুল্লাহ আল মামুন। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের এই অধ্যাপকের প্লাজমা ফিজিক্স বিষয়ক গবেষণা কর্ম প্রকাশিত হয়েছে বিশ্বের ৪শতাধিক জার্নালে। তার গবেষণা কর্ম তাই বিশ্বজুড়ে অন্য বিজ্ঞানীদের গবেষণার সূত্র হিসেবে অপরিহার্য। গুগল স্কলারের হিসেবে এসব সূত্রের যোগফলকে বলা হয় সাইটেশন ইনডেক্স। বাংলাদেশের কোনো বিজ্ঞানী হিসেবে তার সাইটেশন সংখ্যা ১২ হাজারের বেশি। যা এক অনন্য রেকর্ড।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক ডক্টর আব্দুল্লাহ আল মামুন। বিশ্বব্যাপী যার নাম ছড়িয়েছে একজন গবেষক হিসেবে। তিনি কাজ করছেন পদার্থের চতুর্থ অবস্থা প্লাজমা ফিজিক্স নিয়ে।

তার গবেষণাকে সূত্র হিসেবে ব্যবহার করেন বিশ্বের খ্যাতনামা পদার্থ বিজ্ঞানীরা। যার প্রমাণ হিসেবে মিলেছে অনন্য স্বীকৃতি। সবচেয়ে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগলের স্কলার আর্টিকেলে তালিকাভুক্ত হয়েছে ডক্টর মামুনের ১২ হাজারের বেশি সাইটেশন। যা কোনো বাংলাদেশি বিজ্ঞানী হিসেবে সর্বোচ্চ।   

প্লাজমা ফিজিক্সে অনন্য অবদান রাখায় এরইমধ্যে জার্মান চ্যান্সেলর পুরষ্কার, একাধিক বার ইতালির ত্রিয়েস্টো থার্ড ওয়ার্ল্ড একাডেমি অব সায়েন্স পুরষ্কার, এবং বাংলাদেশ একাডেমি অব সায়েন্স গোল্ড মেডেল পেয়েছেন এই বিজ্ঞানী।

গবেষণায় ডক্টর মামুনের সাধনা আর দেশপ্রেম অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত বলছেন, বিভাগের শিক্ষার্থী ও তরুণ গবেষকরা।

ডক্টর মামুনের গবেষণা কর্ম বিশ্বের ৪ শতাধিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর