channel 24

সর্বশেষ

  • মির্জা ফখরুল সংসদে থাকলে বিরোধীদল আরও শক্তিশালী হতো: কাদের

  • প্রিয়াংকা হত্যায় দোষীদের বিচার দাবিতে মানববন্ধন

  • ঢাকা মেট্রোতে টিকিট ছাড়া কোনো বাস চলবে না: সাঈদ খোকন

  • মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে আটক ১

  • ধানের ন্যায্য দাম নিয়ে শিগগিরই সিদ্ধান্ত নেবে সরকার: কৃষিমন্ত্রী

  • ধানের ন্যায্য দামের দাবিতে কৃষি ও খাদ্যমন্ত্রীর কুশপুত্তলিকা দাহ

  • ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

  • রূপপুর প্রকল্পে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বেতন পান সরকারি স্কেলে

  • স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দেয় পুলিশ!

  • খুলনায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে পাটকল শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি

  • সঠিক ওজন নিশ্চিতে ভালো মানের যন্ত্রপাতি ব্যহার করতে হবে: শিল্পমন্ত্রী

  • যুক্তরাষ্ট্রের সাথে যুদ্ধে জড়ালে ইরান ধ্বংস হয়ে যাবে: ট্রাম্প

  • ফলের বাজারে কেমিক্যাল মেশানো রোধে মনিটরিং টিম গঠনের নির্দেশ

  • রূপপুর প্রকল্পে অনিয়মে তদন্ত শেষে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

  • ভগ্নিপতি আয়ুষ শর্মাকে বড় পর্দায় আনছেন বলিউড ভাইজান সালমান

বিজ্ঞানী আল মামুনের এক অনন্য রেকর্ড

বিজ্ঞানী আল মামুনের এক অনন্য রেকর্ড

ডক্টর আব্দুল্লাহ আল মামুন। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের এই অধ্যাপকের প্লাজমা ফিজিক্স বিষয়ক গবেষণা কর্ম প্রকাশিত হয়েছে বিশ্বের ৪শতাধিক জার্নালে। তার গবেষণা কর্ম তাই বিশ্বজুড়ে অন্য বিজ্ঞানীদের গবেষণার সূত্র হিসেবে অপরিহার্য। গুগল স্কলারের হিসেবে এসব সূত্রের যোগফলকে বলা হয় সাইটেশন ইনডেক্স। বাংলাদেশের কোনো বিজ্ঞানী হিসেবে তার সাইটেশন সংখ্যা ১২ হাজারের বেশি। যা এক অনন্য রেকর্ড।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক ডক্টর আব্দুল্লাহ আল মামুন। বিশ্বব্যাপী যার নাম ছড়িয়েছে একজন গবেষক হিসেবে। তিনি কাজ করছেন পদার্থের চতুর্থ অবস্থা প্লাজমা ফিজিক্স নিয়ে।

তার গবেষণাকে সূত্র হিসেবে ব্যবহার করেন বিশ্বের খ্যাতনামা পদার্থ বিজ্ঞানীরা। যার প্রমাণ হিসেবে মিলেছে অনন্য স্বীকৃতি। সবচেয়ে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগলের স্কলার আর্টিকেলে তালিকাভুক্ত হয়েছে ডক্টর মামুনের ১২ হাজারের বেশি সাইটেশন। যা কোনো বাংলাদেশি বিজ্ঞানী হিসেবে সর্বোচ্চ।   

প্লাজমা ফিজিক্সে অনন্য অবদান রাখায় এরইমধ্যে জার্মান চ্যান্সেলর পুরষ্কার, একাধিক বার ইতালির ত্রিয়েস্টো থার্ড ওয়ার্ল্ড একাডেমি অব সায়েন্স পুরষ্কার, এবং বাংলাদেশ একাডেমি অব সায়েন্স গোল্ড মেডেল পেয়েছেন এই বিজ্ঞানী।

গবেষণায় ডক্টর মামুনের সাধনা আর দেশপ্রেম অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত বলছেন, বিভাগের শিক্ষার্থী ও তরুণ গবেষকরা।

ডক্টর মামুনের গবেষণা কর্ম বিশ্বের ৪ শতাধিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর