channel 24

সর্বশেষ

  • গুলশানে কূটনৈতিক এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে

  • শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে এক মাসের জন্য...

  • নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের অবস্থান কর্মসূচি স্থগিত

  • যন্ত্রপাতি ক্রয়ে দুর্নীতির অভিযোগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক...

  • আবদুর রশীদসহ ১৪ জনকে ১ থেকে ৩ এপ্রিল তলব করেছে দুদক

  • বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টকে ভাঙার চেষ্টায় সরকার: মির্জা ফখরুল

  • প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী শাহনাজ রহমতুল্লাহ মারা গেছেন...

  • বাদ জোহর বারিধারার পার্ক মসজিদে জানাজা...

  • বনানী সামরিক কবরস্থানে দাফন

  • তৃতীয় দফায় ১১৬ উপজেলায় ভোট চলছে...

  • অনিয়মের অভিযোগে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলায় ভোট স্থগিত...

  • অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শফিকুল ও কটিয়াদীর ওসি সামসুদ্দীনকে প্রত্যাহার..

  • মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে আ.লীগের দুই বিদ্রোহী প্রার্থীর ভোট বর্জন...

  • চট্টগ্রামের পূর্ব চন্দনাইশে দুপক্ষের সংঘর্ষে পুলিশসহ গুলিবিদ্ধ ২; আটক ৫...

  • ভোটারশূন্যতাই প্রমাণ করে ভোটের প্রতি জনগণের আস্থা নেই: রিজভী

  • বাসচাপায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে...

  • ৫ দফা দাবিতে সিলেটের চৌহাট্টায় সহপাঠীদের সড়ক অবরোধ

২২ বছর বয়সে সিইও

২২ বছর বয়সে সিইও

যে বয়সে আর দশজন ঠিক করতে পারে না জীবনের লক্ষ্য, সেই বয়সেই একটি বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। কাজের জন্যই দেখা হয়েছে দশটির বেশি দেশ। বলছি সাদমান সাদাবের কথা। প্রবল ইচ্ছাশক্তি আর বিনয় কাজে লাগিয়ে, মাত্র ২২ বছর বয়সে যিনি হয়েছেন ফিউচার সিটি সামিট লিমিটেড নামে হংকংভিত্তিক একটি উন্নয়ন সংস্থার সিইও।

কখনো সিঙ্গাপুর তো কখনো মালয়শিয়া, কখনো আবার ভারত, জাপান কিংবা শ্রীংলকা। গেল কয়েক বছরে সাদমান সাদাব ঘুরেছেন অন্তত ১০টিরও বেশি দেশ।

আরও জানতে: নিরাপত্তা প্রহরী: ১২ লাখ, সহকারী পদ: ২৫ লাখ; চলছে কর বিভাগে নিয়োগ বাণিজ্য

এবার সালমান মুক্তাদিরের বিরুদ্ধে ক্ষেপেছেন আইসিটি মন্ত্রী

মফস্বলের ভাষা সৈনিক আব্দুর রাশেদ মোল্লা

উন্নয়নশীল রাষ্ট্রগুলোর শহরের সমস্যা খোঁজা ও সমাধানই সাদমানের কাজ। একা নয়, কাজ করছেন দেশগুলোর একাধিক তরুণ সাথে নিয়ে। কাজটি যেন আরও সহজ হয়, এ জন্য প্রশিক্ষণ থেকে শুরু করে মাঠ পর্যায়ের সহায়তা সবকিছুই করে থাকেন সাদমান।

কাজের প্রতি তার নিষ্ঠা, একাগ্রতা আর দূরদর্শী চিন্তাই তাকে বানিয়ে দেয় ফিউচার সিটি সামিট লিমিটেড নামে হংকংভিত্তিক উন্নয়ন সংস্থার প্রধান নির্বাহি। তাও মাত্রই ২২ বছর বয়সে।

বিশ্বাস আর আস্থায় ভর করে জীবনের স্বপ্নের পথে সাদমান সাদাবের এগিয়ে চলার শুরু ক্লাস ফাইভ থেকেই। নারায়ণগঞ্জে স্কুলের গন্ডি পেরিয়ে নটরডেম কলেজ। সেখান থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। সবসময় নিজের মনের কথাই শুনেছেন। ছিলো বাবা-মার সমর্থনও। সন্তানের অর্জনে তাই বাবা-মাও গর্বিত।

জীবনে প্রাপ্তি যেমন আছে তেমনি আছে দায়িত্ববোধ আর কাজের চাপ। শুরুতে বাবা-মার দুশ্চিন্তার কারণ ছিল সন্তানের বিদেশ সফর, এখন অনেকটাই স্বাভাবিক মনে করেন।

এগিয়ে যাওয়ার জন্য সাদমান সাদাবের পরামর্শ, নিষ্ঠা আর বিনয়ের সাথে নিজের কাজ করা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর