channel 24

সর্বশেষ

  • সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে ৪৯ জন বেসরকারিভাবে বিজয়ী

  • কক্সবাজারের টেকনাফে ১০২ ইয়াবা ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ...

  • সাড়ে ৩ লাখ ইয়াবা ও ৩০টি অস্ত্র জমা...

  • আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কেউ মাদক ব্যবসায় জড়ালে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী...

  • মধ্যস্থতা করায় চ্যানেল টোয়েন্টিফোরকে ধন্যবাদ

  • মাদক সেবনের দায়ে কুষ্টিয়ায় পৌর কাউন্সিলর রবিউলের ২ বছরের সাজা

  • জামায়াত ক্ষমা চাইলেও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ হবে না: কাদের

  • বায়তুল মোকাররমে কবি আল মাহমুদের দ্বিতীয় জানাজা সম্পন্ন...

  • রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পারিবারিক কবরস্থানে দাফন

  • ক্রিকেট: ইনজুরিতে মুশফিক ও মিঠুন; তৃতীয় ওয়ানডেতে অনিশ্চিত

বদলাচ্ছে ডিএনডি বাঁধ এলাকার চিত্র

বদলাচ্ছে ডিএনডি বাঁধ এলাকার চিত্র

বহু বছর পর হলেও বদলানোর চেষ্টা শুরু হয়েছে ডিএনডি এলাকার চিত্র। দখল হয়ে যাওয়া প্রায় ৯৪ কিলোমিটার খাল উদ্ধারের কাজ শুরু হয়েছে। পানি নিষ্কাশনে পুরোদমে চলছে পাম্প স্টেশন বসানোর কাজও। প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বর্ষার আগেই শিমরাইলে চালু হবে নতুন পাম্প স্টেশন। যেখান থেকে প্রতি সেকেন্ডে ৩৯ হাজার লিটার পানি নিষ্কাশন করা যাবে শীতলক্ষ্মায়।

ডুবে থাকা পথ ঘাট বছরের পর বছর ধরে মানুষের দুর্ভোগ।

রাজধানী ঢাকা কিংবা অন্য কোনো শহরে এমন চিত্র ক্ষণিকের হলেও, এখানে তা কয়েক মাসের।

যাত্রাবাড়ী, ডেমরা, শ্যামপুর আর নারায়ণগঞ্জ সদর এই চার থানার লাখ লাখ মানুষের ময়লা পানি মাড়ানো এই কষ্ট বহুদিনের।

আরও জানতে: সকালে কেন্দ্রে ঢুকে সন্ধ্যায় পরীক্ষা দেবেন এসএসসি পরীক্ষার্থী রিকি

ধলেশ্বরীতেও ট্যানারির বিষ

প্রযুক্তির অতি ব্যবহার শুষে নিচ্ছে চোখের পানি

বর্ষার সময়ে এই কষ্ট সীমা ছাড়ায়। এমনকি শুষ্ক মৌসুমেও অনেকখানে জমে থাকা বিস্তৃর্ণ এই জলরাশি কারণ হয় ভোগান্তির। সাথে বেঁচে থাকা গুটি কয়েক খালে বয়ে চলা বিষাক্ত বর্জ্য।

এই দুর্ভোগের সূত্র ১৯৬৮ সালে এ অঞ্চলে সেচ ও বন্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য নির্মিত বাঁধ। যা পরিচিত ডিএনডি বাঁধ নামে। সেসময় থেকে এখন পর্যন্ত নড়বড়ে এই পাম্পই একমাত্র ভরসা বিশাল এই অঞ্চলের পানি নিষ্কাশনের। মাঝের এই কয়েক দশকে পাম্পের সাথে সংযুক্ত খাল হারিয়েছে সেই শ্রী।

ডিএনডি বাঁধ এলাকার ৯৪ কিলোমিটার খালের আদি রূপ ফিরিয়ে দিতে শুরু হয়েছে নতুন কার্যক্রম। ৫৫৮ কোটি টাকার এই প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ করছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। ২০১৭ এর শেষের দিকে শুরু হওয়া এই প্রকল্পের আওতায় রয়েছে, পাম্প স্টেশন-প্লান্ট, খাল উদ্ধার, ওয়াকওয়ে নির্মাণসহ অনেক কিছু। কাজের সময়সীমা ধরা হয়েছে ২০২০ সাল।

যদিও প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আসছে বর্ষার আগেই চালু হবে শিমরাইলে পাম্প স্টেশন।

শিমরাইল ছাড়াও ফতুল্লা ও শ্যামপুরে চলছে আরও ৩টি পাম্পিং প্লান্ট নির্মাণের কাজ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর