channel 24

সর্বশেষ

  • ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস: বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ...

  • পলাতক ৭৮ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফেরত না পাঠালে নিরাপত্তা ও...

  • স্থিতিশীলতা ব্যাহত হওয়ার শঙ্কা প্রধানমন্ত্রীর

  • ঋণখেলাপিদের সুবিধা দিতে পাগল হয়ে গেছে...

  • বাংলাদেশ ব্যাংক: হাইকোর্ট; প্রজ্ঞাপনের বিষয়ে আদেশ কাল

  • ১৯৮৯ সালের হত্যা মামলা: ৩ মাসের মধ্যে নিস্পত্তির নির্দেশ হাইকোর্টের...

  • ২৮ বছর পর মামলা সচল হওয়ায় সাগেরা মোর্শেদের পরিবারের সন্তুষ্টি

  • ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী...

  • অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল ও জব্দে দুদকের চিঠি

  • দুই সাংবাদিককে ভিন্ন ভাষায় তলবকারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে...

  • বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ কমিশনের; চিঠির অবমাননাকর অংশ...

  • বাদ না দিলে আরও কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা গণমাধ্যমকর্মীদের

  • আসামে নাগরিকত্ব ইস্যু: খসড়া তালিকা থেকে ১ লাখ ২ হাজার...

  • ৪৬২ জনকে বাদ দিয়ে নতুন তালিকা প্রকাশ

'ডাকসু নির্বাচনে সরকার আর বিশ্ববিদ্যালয়ের সদিচ্ছা প্রয়োজন'

'ডাকসু নির্বাচনে সরকার আর বিশ্ববিদ্যালয়ের সদিচ্ছা প্রয়োজন'

সরকার আর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চাইলেই কেবল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ নির্বাচন সম্ভব। এমনটাই মনে করছেন ডাকসু'র সাবেক নেতারা।

আর নির্বাচনের জন্য বাড়তি সময় দরকার, তাই উচ্চ আদালতের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

তবে দীর্ঘদিনের বিরতিতে হলেও, নির্বাচনের ভাবনাকে স্বাগত জানিয়েছেন সাবেক আন্দোলনকারিরা।

শিক্ষা আন্দোলন থেকে শুরু করে বাঙালীর স্বাধিকার আন্দোলন, ওতোপ্রতোভাবে জড়িয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ-ডাকসু। এখানকার নির্বাচিত ছাত্রনেতারাই পরে নেতৃত্ব দেন দেশকে।

কিন্তু ১৯৯০-এর পর আর নির্বাচন না হওয়ায়, আটকে যায় গণতান্ত্রিক নেতৃত্ব তৈরির সেই প্রক্রিয়া।  

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বা সরকার, বিভিন্ন সময় সবাই বলেছেন, তারাও চান নির্বাচন। তারপরও ২৮ বছরেও কেন খোলেনি সেই বন্ধ দুয়ার?

ডাকসুর সাবেক ভিপি মাহফুজা খানম ও মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলছেন, এজন্য সরকার আর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সদিচ্ছার অভাবই দায়ী।

২০১২ সালে ডাকসু নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনে নামেন একদল শিক্ষার্থী। পরে নির্বাচন চেয়ে, দুটি রিট হয় উচ্চ আদালতে। এরই প্রেক্ষিতে ছয় মাসের মধ্যে নির্বাচন আয়োজনের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। তারপরই নড়েচড়ে বসে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

যদিও এরইমধ্যে সময় পার হওয়া উচ্চ আদালতের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) ড. মোহাম্মাদ সামাদ। বৈধ সিনেট সভার জন্য ডাকসুর বিকল্প নেই বলে মত দেন এই শিক্ষক।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর