channel 24

সর্বশেষ

  • সম্পদের তথ্য গোপন: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য...

  • ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়ার ৩ বছরের কারাদণ্ড

  • এবার সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে...

  • কোনো পর্যবেক্ষণ সংস্থা দায়িত্ব পালনে অনিয়ম করলে ব্যবস্থা: ইসি সচিব

  • তৃতীয় দিনের মতো চলছে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার

  • গুলশানে জাপার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠান চলছে...

  • জাতীয় পার্টি যে জোটে তারাই ক্ষমতায় আসবে: রুহুল আমিন হাওলাদার

নতুন জোটের রাজনীতি

নতুন জোটের রাজনীতি

বৈঠকখানা আলোচনার পর এবার রাজনীতির মাঠে নামছে যুক্তফ্রন্ট ও ড. কামালের গণফোরাম। সেপ্টেম্বর মাসেই জোটের পরিধি বাড়ানো আর তাদের ভাষায় ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ আনতে সাথে চান জনগণকে। ড. কামাল বলছেন, ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ আনতেঅন্তর্বর্তীকালীন ব্যবস্থা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে জনগণ। আর যুক্তফ্রন্টের একজন উদ্যোক্তা বলছেন, ক্ষমতার ভারসাম্য আনতে যারা একমত হবেন তাদেরই জোটসঙ্গী হিসেবে পেতে চান। এই জোটের সঙ্গে এক হতে বেশ ইতিবাচক বিএনপিও।

রাজনৈতিক মহলে আলোড়ন তোলা যুক্তফ্রন্ট এবার নামতে চাইছে রাজনীতির মাঠে। সাথে আছে ড. কামাল হোসেনের গণফোরাম। সবাইকে নিয়ে একটি গ্রহণযোগ্য ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে জনগণকে এক করতে চায় এই জোট। এজন্য সেপ্টেম্বর মাসকেই পাখির চোখ করছেন তারা।

গণফোরামের সভাপতি ও বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ কামাল হোসেন বলছেন, সুষ্ঠু ভোট করতে কোন পরিবেশই নেই। এজন্য অন্তর্বতীকালীণ কোন ব্যবস্থার বিষয়টি জনগণের হাতেই তুলে দিতে চান তিনি।

যুক্তফ্রন্টের একজন সংগঠক মাহমুদুর রহমান মান্না বলছেন, সরকারের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সবাইকে জোটে টানতে চান তারা। আর সেক্ষেত্রে ফর্মুলা হচ্ছে-ক্ষমতার ভারসাম্য নীতিতে একমত হওয়া।

এই জোটে যাওয়া না যাওয়া নিয়ে বেশ আলোচনায় বিএনপি। দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলছেন, জনগণের একতাকে রাজনীতিবিদরা অবশ্যই সম্মান জানাবে।
তবে এই ধরনের জোটে গেলে, আসন ভাগাভাগি নাকি অন্য কোন ফর্মূলায় এগুবেন, সেনিয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানান বিএনপির এই নেতা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর