channel 24

সর্বশেষ

  • সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ স্লোগানে...

  • আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ২১ দফা অঙ্গীকার...

  • অতীতের ভুলভ্রান্তি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর

  • বিএনপির নির্বাচনি ইশতেহার ঘোষণা করলেন মির্জা ফখরুল...

  • জাতীয় সংসদে উচ্চকক্ষ প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি...

  • রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতায় ভারসাম্য আনাসহ ১৯ প্রতিশ্রুতি

  • নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন না খালেদা জিয়া...

  • প্রার্থিতা বাতিলের বিরুদ্ধে রিট তৃতীয় বেঞ্চেও খারিজ

  • জামায়াতের ২২ নেতার প্রার্থিতা বাতিলে হাইকোর্টের রুল...

  • তিন কার্যদিবসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে ইসিকে নির্দেশ

পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার জালটাকা ব্যবসায়ী

পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার জালটাকা ব্যবসায়ী

কাওসার হামিদ। গত ১৪ বছর ধরে জালটাকার চক্রের সাথে জড়িত। পুলিশের কাছে গ্রেপ্তার হয়েছে আট বার। গত ছয়মাস আগে জেল থেকে ছাড়া পেয়ে এখন পর্যন্ত বাজারে ছেড়েছে প্রায় ১২ কোটি জালটাকা। ঈদকে সামনে রেখে আরও প্রায় আট কোটি টাকা ছাড়ার পরিকল্পনা ছিলো তার। গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে বৃহস্পতিবার রাতে ধরা পড়ে কাওসার ও তার সহযোগীরা।
বড় কোন উৎসব মানেই যেন জাল টাকার ছড়াছড়ি। এবারও কোরবানী ঈদ সামনে রেখে জাল টাকা তৈরীর চক্র আরও বেশী সক্রিয় হয়ে ওঠেছে।
কামরাঙ্গীরচরের একটি বাসায় অবস্থান করছে, সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে বড় জাল টাকা ব্যবসায়ী কাওসারের সহযোগীরা। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে চরের ছয়তলা ভবনের চারতলার একটি বাসায় অভিযান চালায় গোয়েন্দা পুলিশ। সেখানে হাতে নাতে ধরা পড়ে সজিবসহ বেশ কয়েকজন। এই বাসাতেই জাল টাকা তৈরীর প্রাথমিক কাজ সম্পন্ন করা হতো। সজিব জানায় প্রতি ৫০০ কাগজের বান্ডিলের জন্য ১২ হাজার টাকা পেতো সে।
সজিবের দেয়া তথ্যে মূলহোতা কাওসারের সন্ধান পায় পুলিশ। ঐ রাতেই লালবাগের একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে জালটাকা ও টাকা তৈরীর সরঞ্জামসহ গ্রেপ্তার করা হয় কাওসারকে। পুলিশ জানায়, প্রতি সপ্তাহে ৪৫-৫০ লাখ জাল টাকা বিক্রি করে কাওসার। আর গত ছয়মাসে প্রায় ১২ কোটি জাল টাকা বাজারে ছেড়েছে সে।
ঈদ সামনে রেখে জাল টাকা ব্যবসায়ী কাওসারের ব্যাপক প্রস্তুতি ছিল বলেও জানান, গোয়েন্দা পুলিশের কর্মকর্তা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর