channel 24

সর্বশেষ

  • কুমিল্লায় সিজারে নবজাতক দ্বিখণ্ডিত: আয়া ও পরিচ্ছন্নতাকর্মী সাময়িক বরখাস্ত

  • বিশেষায়িত হাসপাতালে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা বিষয়ে...

  • রিটের শুনানি ১ অক্টোবর পর্যন্ত মুলতুবি

  • রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিশ্ব নেতাদের একসাথে কাজ করতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

  • নির্বাচনে সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়ার আহবান রাষ্ট্রপতির

  • ১৮ ঘণ্টা পর শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে স্বল্প পরিসরে ফেরি চলাচল শুরু

  • ১০ ঘণ্টা পর রাজধানীর মহাখালী টার্মিনাল থেকে বাস চলাচল শুরু

  • চট্টগ্রামে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত ৬ জন নিহত

গাজীপুর ও খুলনা সিটির নির্বাচনে সেনা মোতায়েন চায় বিএনপি

গাজীপুর ও খুলনা সিটির নির্বাচনে সেনা মোতায়েন চায় বিএনপি

গাজীপুর এবং খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেনা মোতায়েন চায় বিএনপি। একই সাথে ইভিএম পদ্ধতি ব্যবহার না করারও দাবি জানিয়েছে দলটি। সকালে আগারগাঁওয়ে কমিশনের সাথে বৈঠক শেষে এসব জানান, বিএনপির প্রতিনিধি দলের প্রধান ডক্টর খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তবে ইসি সচিব জানিয়েছেন, বিধি অনুযায়ী স্থানীয় সরকার নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের সুযোগ নেই।

বছর শেষে জাতীয় নির্বাচনের আগে, বেশ কয়েকটি স্থানীয় সরকার নির্বাচন। জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে নানামুখি বক্তব্য থাকলেও, স্থানীয় সরকার নির্বাচনে খুব সরব বিএনপি। তাই খুলনা ও গাজীপুর সিটির নির্বাচনকেও বেশ গুরুত্ব দিচ্ছে দলটি।

এই দুটি সিটি নির্বাচনে বেশকিছু দাবি দাওয়া নিয়ে, মঙ্গলবার কমিশনের সাথে বৈঠক করে বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল। দেড় ঘণ্টাব্যাপী এই বৈঠকের নেতৃত্ব দেন স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। যেখানে দাবি জানানো হয় সেনা মোতায়েনের।

বিএনপির দাবি ছিলো গাজীপুরের পুলিশ সুপারসহ বিতর্কিত প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের বদলি, নির্বাচন উপলক্ষ্যে গঠন করা সমন্বয়ক কমিটি বাতিল এবং দেশব্যাপী আওয়ামী লীগের মন্ত্রী এমপিদের নৌকা প্রতীকে ভোটা চাওয়া বন্ধেরও।

ভোট কেন্দ্রের নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন দাবিগুলো বাস্তবায়নের কথা বললেও, ইভিএম ও সেনাবাহিনীর দাবি নাকচ করেছে নির্বাচন কমিশন।

তবে, গাজীপুরের পুলিশ কর্মকর্তা হারুণ অর রশিদের পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগ, খতিয়ে দেখার পর সিদ্ধান্ত জানানো হবে বলে জানায় ইসি।

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর