channel 24

সর্বশেষ

  • রিজেন্ট চেয়ারম্যান সাহেদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামে মামলা

  • মালদ্বীপে বকেয়া বেতনের দাবিতে পুলিশের সাথে শ্রমিকদের সংঘর্ষ, ৩৯ বাংলাদেশি আটক

  • পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি বিধায়কের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

  • থমকে যাওয়া সেই নৌপথে আবারও দুরন্ত গতিতে ছুটবে জলযান

  • সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • দু'বছর ধরে লাইসেন্স ছাড়াই লাজ ফার্মার ব্যবসা

  • জাভি হার্নান্দেজই হচ্ছেন বার্সেলোনার কোচ: ক্লাব প্রেসিডেন্ট

  • আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলতে বাধা নেই ম্যান ইউ'র

  • টাকা চাইলেই পাওনাদারদের ওপর নামতো জেকেজির নির্যাতনের খড়গ

  • বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ১০টি নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে

  • হজ্জ্ব ক্যাম্পে কোয়ারেন্টিন শেষে বাড়ি ফিরলো ৯৬ কুয়েত প্রবাসী

  • সর্দিজ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ৬ জনের মৃত্যু

  • ৭ মার্চকে 'জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস' ঘোষণার প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় সম্মতি

  • লাজ ফার্মায় র‌্যাবের অভিযান

  • সাবরিনার কাছে রিমান্ডে মিলতে পারে ভুয়া করোনা সনদ বাণিজ্যের তথ্য

আবরার পানি খাইতে চাইলে পানি দেওয়া হয় নাই: এজাহারভুক্ত আসামি সাদাত

আবরার পানি খাইতে চাইলে পানি দেওয়া হয় নাই: এজাহারভুক্ত আসামি সাদাত

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার মামলার এজাহারভুক্ত আসামি এএসএম নাজমুস সাদাত বলে, 'আবরার পানি খাইতে চাইলে পানি দেওয়া হয় নাই। অনিক সরকার, মোজাহিদ, সকাল, ও মনির ভাইসহ ১৫ ও ১৬ ব্যাচের ভাইরা বেশি মারছে। আমরা ভাইদের বলেছিলাম হাসপাতালে নিয়ে যাইতে, ভাইরা নিতে দেয় নাই।'

ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বুধবার (১৬ অক্টোবর) সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন নাজমুস সাদাত।

নাজমুস সাদাতকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক ওয়াহিদুজ্জামান ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করেন। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সোমবার (১৪ অক্টোবর) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে দিনাজপুরের বিরামপুর থানার কাটলা বাজার এলাকা থেকে  সাদাতকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে বুয়েটের যন্ত্রকৌশল বিভাগের ১৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থী।

নাজমুস সাদাত আরও বলে, 'আবরারকে রুম থেকে ডেকে নিয়ে আসতে আমাদের মনির ভাই বলে। আমরা নিচে গিয়ে ডেকে নিয়ে আসি। আমি রাত সাড়ে ১২টার দিকে রুমে চলে আসি।'

প্রসঙ্গত, ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস জেরে আবরার ফাহাদকে ৬ অক্টোবর রাতে ডেকে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দোতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঢাকা মেডিকেলের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ তিনি বলেন, নিহত আবরারে ফাহাদের হাত, পা ও পিঠে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। আবরারকে বাঁশ বা স্ট্যাম্প জাতীয় জিনিস দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। প্রচুর রক্ত ক্ষরণ হওয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে বাবা বরকত উল্লাহ ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজার মামলা করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর