channel 24

সর্বশেষ

  • রেমিটেন্সের বিপরীতে প্রণোদনার টাকা ছাড় দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক

  • তৃতীয় বছরে দৈনিক বিজনেস বাংলাদেশ

  • শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা

  • আট উপজেলা ও দুই পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

  • যশোরের যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ৫ আসামিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

  • আবরার হত্যা: আসামি অমিত সাহাকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার

  • জম্মু-কাশ্মীরে ৭২ দিন পর সচল করা হলো পোস্টপেইড মোবাইল সার্ভিস

  • কুড়িগ্রামের রেল স্টেশন ভবনের বেহাল দশা

  • লোভ আর চাপে ক্যাম্পাসে রাজনীতিতে জড়াচ্ছে মেধাবীরা

  • আবরার হত্যার সুষ্ঠু বিচার চায় সিপিবির নারী সেল

  • তীব্র স্রোত ও নাব্য সংকটে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ

  • থানার ভেতরেই ওসির যোগদানের বর্ষপূর্তি আয়োজন!

  • মালয়েশিয়ায় ১৭৭ বাংলাদেশি অবৈধ অভিবাসী আটক

  • দেশে উদ্বৃত্ত বিদ্যুৎ ৫ হাজার মেগাওয়াট; নেই প্রকৃত চাহিদার সুনির্দিষ্ট জরিপ

  • ওয়ার্ল্ড ব্যাংক গ্রুপ ও আইএমএফের বার্ষিক সভা শুরু হচ্ছে আজ

খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রক্রিয়ায় মাঝামাঝি পথে হাঁটছে সরকার

খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রক্রিয়ায় মাঝামাঝি পথে হাঁটছে সরকার

বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রক্রিয়ায় কোনো সমঝোতা বা ছাড় নয় বরং মাঝামাঝি পথে হাঁটছে সরকার। এমন মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলির সদস্য কাজী জাফরউল্যাহ। আর দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলছেন, তার মুক্তি চেয়ে সরকারের কাছে আবেদন অযৌক্তিক। কেননা এটি আদালতের বিষয়।

এ দফায় আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে কোনো ইস্যুকেই কাজে লাগিয়ে রাজনীতির মাঠ খুব একটা গরম করতে পারেনি বিএনপি।

২০১৫ সালে ৫ জানুয়ারিকে কেন্দ্র করে ডাকা টানা ৯২ দিনের অবরোধ ছাড়া  সেভাবে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি দলটি।

দলীয় চেয়াপারসনের মুক্তির জন্য এবার নতুন কৌশলে হাঁটছে বিএনপি। দলটির কয়েকজন সংসদ সদস্যের সাম্প্রতিক বক্তব্যে তা স্পষ্ট।

গতকাল মঙ্গলবার (২ অক্টোবর) বিএনপির সংসদ সদস্য হারুন অর রশীদ বলেন, 'আমি তার (খালেদা জিয়া) যে শারীরিক অবস্থা দেখেছি, এ অবস্থায় সর্বপ্রথম প্রয়োজন হচ্ছে উন্নত চিকিৎসা। সুতরাং এই উন্নত চিকিৎসা দেশের অভ্যন্তরে হউক বা দেশের বাইরে হউক।'

ক্ষমতাসীনদের ইঙ্গিতও প্রায় একই রকম।

বেগম খালেদা জিয়ার এই মুক্তির প্রক্রিয়াকে সমঝোতা বা রাজনৈতিক ছাড় কোনোটিই বলতে নারাজ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরউল্যাহ। তার মতে, বিএনপির এমন আবেদন তাদের ইতিবাচক রাজনীতির পথে নিয়ে যাবে।

কাজী জাফরউল্যাহ বলেন, তারা আবেদন করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে যে, মানবিক কারণে বিবেচনা করা হউক। তিনি অসুস্থ। তাকে যাতে জামিন দেয়া হয়। আপনারা সবকিছু সাদা বা কালো এইভাবে দেখেন। সাদা-কালোর মাঝখানে কিন্তু গ্রে একটা জায়গাও আছে।

মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি একমাত্র আদালতের এখতিয়ার, এ নিয়ে সরকারের কিছু করার নেই।

তিনি বলেন, আদালত দ্বারা দন্ডিত কাউকে চাইলেই যে সরকার মুক্তি দিতে পারে এমন কোন ক্ষমতা সাংবিধানিকভাবে দেয়া নেই। আমার মনে হয়, এই দাবিটা আইনসঙ্গত নয়।

আর এ দুই নেতাই মনে করেন, বেগম জিয়ার মুক্তির ইস্যুতে সরকারের পিছু হটেনি, বরং রাজনীতিতে বিএনপির মনোভাবের পরিবর্তন হয়ে থাকতে পারে।

নিউজটির প্রতিবেদন ভিডিওতে-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর