channel 24

সর্বশেষ

  • দিল্লিতে সহিংসতার প্রতিবাদ জানিয়েছে ছাত্র অধিকার পরিষদ

  • অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের সময় র‍্যাবের হাতে লাঞ্ছিত ম্যাজিস্ট্রেট

  • ব্যাংক খালি হয়ে গেছে: হাইকোর্ট

  • ডাকঘর সঞ্চয়ে সুদহার আগের মতোই থাকছে: অর্থমন্ত্রী

  • দুদককে নিয়ে টিআইবির প্রতিবেদন সত্য নয়: দুদক সচিব

  • একে একে বেরিয়ে আসছে পাপিয়ার নানা পাপ

  • উন্নত চিকিৎসায় সম্মত হননি খালেদা জিয়া

  • দিল্লিতে গুজরাটের ছায়া; শিশু ও গোয়েন্দা কর্মকর্তাসহ প্রাণ গেছে ২৩ জনের

  • কোনো ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ হলে গ্রাহকরা সব টাকা পাবেন

  • ঢাকা মেডিকেলে পরজীবী শিশু আলাদা করে সফল অস্ত্রোপচার

  • ভর্তি পরীক্ষা হবে ৪টি গুচ্ছ পদ্ধতিতে, থাকছে না ঢাকাসহ ৫টি বিশ্ববিদ্যালয়

  • কোনো নারী বিয়ে পড়াতে পারবেন না: হাইকোর্ট

  • কাপ্তাই হ্রদের পানি কমছে ধীরগতিতে, ফসল নিয়ে দু:চিন্তায় চাষীরা

  • দেশের পুঁজিবাজারে বড় পতন

  • অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কঠিন পরীক্ষায় নামছে বাংলাদেশ নারী দল

প্রচলিত জুয়া আইন সংশোধনের পরামর্শ

প্রচলিত জুয়া আইন সংশোধনের পরামর্শ

ক্যাসিনো। বহু পুরনো ব্যবসা হলেও, দেশবাসীর কাছে যেন একেবারেই নতুন শব্দ। ফলে সাম্প্রতিক অভিযানে বিপুল অর্থ ও সরঞ্জাম উদ্ধারে হতবাক সাধারণ মানুষ। কিন্তু ক্যাসিনোর এই অর্থের উৎস কী, বা এই অর্থ বিদেশে পাচার হতো কি না, প্রয়োজনে সেটি দুদক তদন্ত করবে বলে জানিয়েছেন, সংস্থার আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। আর আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া বলছেন সময় এসেছে প্রচলিত জুয়া আইন সংশোধনের।

বিশ্বে প্রথম ক্যাসিনো চালু হয় ১৬৩৮ সালে ইতালিতে। যা বন্ধ করা হয় ১৭৭৪ সালে। এর ১৫৭ বছর পর ১৯৩১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নেভাদায় আধুনিক আকারে চালু করা হয় ক্যাসিনো। ওয়ার্ল্ড ক্যাসিনো ডিরোক্টরি অনুযায়ী ক্যাসিনোর জন্য বিখ্যাত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আর সবচেয়ে বেশি খ্যাতি লাস ভেগাসের। এরপর চীনের ম্যাকাও, সিঙ্গাপুর, ফ্রান্স, জার্মানি ফিলিপাইন, ইউরোপ এবং নেপাল।

সম্প্রতি রাজধানীর বিভিন্ন ক্লাবে অভিযানের পর দেশজুড়ে আলোচনায় ক্যাসিনো। যেখান থেকে মিলছে নানা ধরনের কয়েন যা জুয়া খেলার অন্যতম উপাদান। শঙ্কার কথা হলো এসব কয়েনের সাথে আন্তর্জাতিক কয়েনের মিল রয়েছে বলে গণমাধ্যমের খবরে উঠে এসেছে।

তাই প্রশ্ন উঠছে, যারা অবৈধ ক্যাসিনোগুলোতে নিয়মিত খেলতেন তারা কি দেশের বাইরে টাকা পাচার করতেন। যার অনুসন্ধান করতে বললেন দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

দেশে প্রচলিত জুয়া আইনে ক্যাসিনো বলে কোনো শব্দ নেই। সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়ার মতে, ক্যাসিনো বন্ধ না করে যুগোপযোগী করা যেতে পারে আইনটি।

আইনজীবীরা বলছেন, ক্যাসিনোগুলো থেকে যদি সত্যি সত্যি বিদেশে অর্থপাচার হয়ে থাকে, তাহলে জড়িতদের শাস্তি হওয়া উচিত। 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর