channel 24

সর্বশেষ

  • ব্রিটেনে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৬৮৪ জনের প্রাণহানি

  • চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত প্রথম একজন শনাক্ত, বাড়ি লকডাউন

  • সাধারণ ছুটিতে বিপাকে ছিন্নমূল ও খেটেখাওয়া মানুষেরা

  • করোনার থাবায় নাস্তানাবুদ গোটা বিশ্ব, আক্রান্ত ছাড়ালো ১০ লাখ

  • খুলনায় বেশিরভাগ হাসপাতালে মিলছে না চিকিৎসা, ভোগান্তিতে রোগীরা

  • কিশোরগঞ্জে অটোরিকশার সিরিয়ালকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, নিহত ১

  • যে ছবি ভাইরাল হয়েছে

  • অনেক পণ্যের দাম কমলেও চট্টগ্রামে বেড়েছে চাল, ডালের মূল্য

  • একমাস লকডাউনের ঘোষণা সিঙ্গাপুরের

  • চট্টগ্রামে ত্রাণ বিতরণে সমন্বয় নেই, নেই হতদরিদ্রদের তালিকা

  • চট্টগ্রামে করোনা মোকাবিলায় ১০টি আইসিইউ শয্যা বরাদ্দ

  • খাগড়াছড়িতে পিকআপ ভ্যান উল্টে ১৮ পুলিশ সদস্য আহত

  • লালমনিরহাট ও জয়পুরহাটে অসহায় মানুষের পাশে কিছু স্বেচ্ছাসেবী মানুষ

  • গুজব ও অপপ্রচার ছড়িয়ে জনগণের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে একটি মহল: কাদের

  • ফ্রান্সে একদিনে মৃত্যু ১৩৫৫, মোট প্রাণহানি ৫ হাজার ছাড়িয়েছে

তল্লাশি না করতে র‌্যাবকে ১০ কোটির প্রস্তাব দেন জি কে শামীম

তল্লাশি না করতে র‌্যাবকে ১০ কোটির প্রস্তাব দেন জি কে শামীম

যুবলীগ নেতা ও প্রভাবশালী ঠিকাদার গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীমের নিকেতনের অফিস শুক্রবার ভোর থেকেই ঘিরে রাখে র‌্যাব। র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম নিকেতনে এলে একপর্যায়ে শুরু হয় অভিযান ও তল্লাশির প্রস্তুতি।

এসময় জি কে শামীম র‌্যাব কর্মকর্তাদের অভিযান ও তল্লাশি করতে বারণ করেন। অভিযান না করার পরিবর্তে র‍্যাবের এক কর্মকর্তাকে ১০ কোটি টাকা ঘুষ দেওয়ার প্রস্তাব দেন। তবে র‌্যাব তার প্রস্তাবে রাজি না হয়ে অভিযান চালায়। জব্দ করা হয় নগদ টাকা, সরঞ্জাম, এফডিআরসহ মাদক।

র‌্যাবের লিগ্যাল ও মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. সারওয়ার-বিন-কাশেম বলেন, ‘জি কে শামীম তার অফিস ও বাসায় অভিযান না চালাতে এবং গ্রেফতার এড়াতে আমাকে ১০ কোটি টাকার ঘুষ প্রস্তাব করেছিলেন। প্রস্তাব আমলে না নিয়ে আমরা জি কে শামীমের কার্যালয়ে অভিযান চালাই, তাকেসহ তার সাত দেহরক্ষীকে গ্রেফতার করি।’

তিনি আরও বলেন, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, মানি লন্ডারিংয়ের সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালত অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জি কে শামীমকে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তিনি এখন ডিবি হেফাজতে রয়েছেন।

রিমান্ডে নেয়ার আগে শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদে করে র‌্যাব। দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, জিজ্ঞাসাবাদের পর শামীম গণপূর্ত অধিদফতরের ২০ জন সাবেক সরকারি কর্মকর্তার নাম বলেছেন, যাদের মাসে ২-৫ লাখ টাকা দিতেন তিনি। সরকারি কর্মকর্তারা টাকার বদলে শামীমকে ঠিকাদারির কাজের টেন্ডার পেতে সাহায্য করতেন।

র‌্যাব সূত্র জানায়, ক্ষমতাসীন দলের ভুয়া পরিচয় দিয়ে চলাফেরা করতেন শামীম। তিনি একসময় বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাসের 'ডান হাত' হিসেবে পরিচিত ছিলেন। যুবদল ঢাকা মহানগরের সহ-সম্পাদকও ছিলেন তিনি। তবে ক্ষমতার পালাবদলে শামীমও তার পরিচয় বদলে ফেলেন। রাতারাতি ভোল পাল্টে আওয়ামী লীগ ও যুবলীগে ভিড়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর