channel 24

সর্বশেষ

  • ৮ বছর পেরিয়ে নয়ে পা রাখলো চ্যানেল টোয়েন্টিফোর

  • করোনায় মারা গেলেন আ.লীগের সাবেক এমপি হাজী মকবুল

  • অনির্দিষ্টকাল মানুষের আয়ের পথ বন্ধ রাখা সম্ভব নয় জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী

  • ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে শেখ হাসিনার ভাষণ

  • মহামারিতে কাল বিষাদের ঈদ

  • শারীরিক দূরত্ব মেনে বায়তুল মোকাররমে ৫টি জামাত

  • হালদা নদীতে আরও একটি ডলফিন মারা পড়লো

  • ৮ জুন থেকে লা লিগা ফিরতে বাধা নেই

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান কাদেরের

  • পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার তৌফিক উমর করোনায় আক্রান্ত

  • জয়পুরহাটে অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছে 'করোনা যুদ্ধে আমরা' সংগঠন

  • করোনায় ভেঙে পড়েছে ই-কমার্স খাত

  • ভিন্ন প্রেক্ষাপটে উদযাপিত হবে এবারের ঈদ

  • অনুমোদন না পেলেও মঙ্গলবার থেকে করোনা পরীক্ষা শুরু করবে গণস্বাস্থ্য

  • শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় বিপাকে কিন্ডারগার্টেনের শিক্ষকরা

মোহামেডানসহ নামিদামি কয়েকটি ক্লাবে অভিযান, মিলেছে ক্যাসিনোর অস্তিত্ব

মোহামেডানসহ নামিদামি কয়েকটি ক্লাবে অভিযান, মিলেছে ক্যাসিনোর অস্তিত্ব

এবার রাজধানীর মোহামেডানসহ বেশ কয়েকটি নামিদামি ক্লাব অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। অন্য ক্লাবগুলো হলো, আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ, দিলকুশা স্পোর্টিং এবং ভিক্টোরিয়া ক্লাব। এর মধ্যে আরামবাগ ক্লাবে অভিযানে নগদ টাকাসহ জুয়া খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ করা হয়।

রাজধানীর মতিঝিলের চারটি ক্লাবে এক সাথে পুলিশের অভিযান রোববার দুপুর আড়াইটা থেকে। কি নেই এসব ক্লাবে। দেখে মনে হবে ইউরোপ আমেরিকার কোনো ক্যাসিনো। তবে এটি মতিঝিল থানা থেকে মাত্র কয়েক গজ দূরে ভিক্টোরিয়া স্পোটিং ক্লাব। অভিযানের সময় জুয়া খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম ও মদ জব্দ করা হয়। মেলে নগদ ১ লাখ টাকাও।

দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাবের অভিযানে জব্দ করা হয় জুয়া খেলার কার্ড, বোর্ডসহ মাদক দ্রব্য। সেখানকার ক্যাসিনোতে কর্মরত এক কর্মচারির দাবি, এটি পরিচালনা করতেন নেপালের এক নাগরিক।

মতিঝিল বিভাগের এডিসি শিবলি নোমান নেতৃতে আরামবাগ ও দিলকুশা ক্লাবে অভিযান চালানো হয়।

শিবলি নোমান বলেন, ক্লাবে গিয়ে দেখা যায়, আগে থেকেই বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা। অন্ধকারে সবকিছু দেখা যাচ্ছিল না। তবে সেখানে ক্যাসিনো চলে সেটা বোঝা যাচ্ছিল। অভিযানের খবর শুনে সবাই পালিয়ে যায়। দিলকুশায়ও কাউকে পাওয়া যায়নি।

তবে পুলিশ বলছে, তদন্তের পরই বেরিয়ে আসবে জড়িত কারা। তবে এসব ক্লাবে ক্যাসিনো চলার বিষয়টি আগে জানতেন না বলে দাবি পুলিশের।

ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান ক্লাবেও অভিযান চালিয়ে জব্দ করা হয় জুয়া খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম। ক্যাসিনো চালাতে এই ক্লাবটিতে কর্মরত ছিলেন দশ জনের মতো নেপালের নাগরিক।

চারটি ক্লাবে অভিযানে আটক করা সম্ভব হয়নি কাউকেই।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর