channel 24

সর্বশেষ

  • জাতিসংঘের পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড পেলো ভূমি মন্ত্রণালয়

  • পুলিশ-চিকিৎসকসহ দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল

  • করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা যাবে ১ মিনিটেই!

  • করোনা থেকে বাঁচতে প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধই উত্তম: প্রধানমন্ত্রী

  • সড়কে যানবাহনের চাপ বাড়লেও রেল ও নৌপথে যাত্রী কম

  • বরিশালে ইমামকে জুতার মালা পরিয়ে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা

  • করোনায় অনিশ্চিত এ বছরের হজযাত্রা

  • করোনায় মারা গেছেন রানা প্লাজার মালিক আব্দুল খালেক

  • যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা: ৪ পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ গঠন

  • অর্থ সহায়তায় ও চাল বিক্রিতে অনিয়ম: এ পর্যন্ত ৮৭ ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্য বরখাস্ত

  • করোনায় প্রাণ গেল আরও এক পুলিশ সদস্যের

  • এএসপির বিরুদ্ধে নির্যাতন আর যৌতুকের অভিযোগ স্ত্রীর

  • পায়ের পেশির ইনজুরিতে লিওনেল মেসি

  • আম্পানে পটুয়াখালীতে ক্ষতিগ্রস্থ ৬ হাজার মাছের ঘের

  • সব বাধা পেরিয়ে চিকিৎসক হতে চায় হতদরিদ্র পরিবারের ছেলে মাসুদ

মোহামেডানসহ নামিদামি কয়েকটি ক্লাবে অভিযান, মিলেছে ক্যাসিনোর অস্তিত্ব

মোহামেডানসহ নামিদামি কয়েকটি ক্লাবে অভিযান, মিলেছে ক্যাসিনোর অস্তিত্ব

এবার রাজধানীর মোহামেডানসহ বেশ কয়েকটি নামিদামি ক্লাব অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। অন্য ক্লাবগুলো হলো, আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ, দিলকুশা স্পোর্টিং এবং ভিক্টোরিয়া ক্লাব। এর মধ্যে আরামবাগ ক্লাবে অভিযানে নগদ টাকাসহ জুয়া খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ করা হয়।

রাজধানীর মতিঝিলের চারটি ক্লাবে এক সাথে পুলিশের অভিযান রোববার দুপুর আড়াইটা থেকে। কি নেই এসব ক্লাবে। দেখে মনে হবে ইউরোপ আমেরিকার কোনো ক্যাসিনো। তবে এটি মতিঝিল থানা থেকে মাত্র কয়েক গজ দূরে ভিক্টোরিয়া স্পোটিং ক্লাব। অভিযানের সময় জুয়া খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম ও মদ জব্দ করা হয়। মেলে নগদ ১ লাখ টাকাও।

দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাবের অভিযানে জব্দ করা হয় জুয়া খেলার কার্ড, বোর্ডসহ মাদক দ্রব্য। সেখানকার ক্যাসিনোতে কর্মরত এক কর্মচারির দাবি, এটি পরিচালনা করতেন নেপালের এক নাগরিক।

মতিঝিল বিভাগের এডিসি শিবলি নোমান নেতৃতে আরামবাগ ও দিলকুশা ক্লাবে অভিযান চালানো হয়।

শিবলি নোমান বলেন, ক্লাবে গিয়ে দেখা যায়, আগে থেকেই বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা। অন্ধকারে সবকিছু দেখা যাচ্ছিল না। তবে সেখানে ক্যাসিনো চলে সেটা বোঝা যাচ্ছিল। অভিযানের খবর শুনে সবাই পালিয়ে যায়। দিলকুশায়ও কাউকে পাওয়া যায়নি।

তবে পুলিশ বলছে, তদন্তের পরই বেরিয়ে আসবে জড়িত কারা। তবে এসব ক্লাবে ক্যাসিনো চলার বিষয়টি আগে জানতেন না বলে দাবি পুলিশের।

ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান ক্লাবেও অভিযান চালিয়ে জব্দ করা হয় জুয়া খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম। ক্যাসিনো চালাতে এই ক্লাবটিতে কর্মরত ছিলেন দশ জনের মতো নেপালের নাগরিক।

চারটি ক্লাবে অভিযানে আটক করা সম্ভব হয়নি কাউকেই।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর