channel 24

সর্বশেষ

  • গোপীবাগের সংঘর্ষের ঘটনায় ৪ জন গ্রেপ্তার; একজন আটক

  • উত্তরে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথের ইশতেহার ঘোষণা...

  • ঢাকাকে পরিবারবান্ধব ও গতিশীল করার প্রতিশ্রুতি...

  • তিলোত্তমা নগরী করতে সমন্বিত পরিকল্পনা নেয়া হবে: আতিক...

  • গোপীবাগের সংঘর্ষের ঘটনায় ৪ জন গ্রেপ্তার; একজন আটক...

  • ভরাডুবি বুঝতে পেরেই সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে বিএনপি: তাপস...

  • প্রচারণায় সমান সুযোগ চান ইশরাক, নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের অভিযোগ

  • অনিয়ম রোধসহ বিভিন্ন দাবিতে দিনাজপুর হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের...

  • প্রশাসনিকসহ কয়েকটি ভবনে তালা দিয়েছে ছাত্রলীগ

  • রাজধানীর ওয়ারীতে ওয়াসার পানির গাড়িচাপায় স্কুলছাত্র নিহত

  • রাজধানীতে আন্তর্জাতিক নারী পাচারচক্রের ৮ সদস্য গ্রেপ্তার...

  • ২ তরুণী উদ্ধার, বিপুল পরিমাণ পাসপোর্ট জব্দ করেছে র‍্যাব

  • চীন থেকে বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে আনতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা: শাহরিয়ার...

  • দেশের বন্দরগুলোতে সতর্কতা জারি, মেডিকেল টিম গঠন...

  • চীনে করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮১, আক্রান্ত প্রায় ৩ হাজার

  • তৃতীয় ও শেষ টি টোয়েন্টি: পাকিস্তান-বাংলাদেশ (বিকাল ৩টা, লাহোর)

ঢাকা মেডিকেলে অজ্ঞাত বালকের চিকিৎসা চলছে টানা ১১ দিন

ঢাকা মেডিকেলে অজ্ঞাত বালকের চিকিৎসা চলছে টানা ১১ দিন

টানা ১১ দিন ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসা চলছে অজ্ঞাত এক বালকের। সিটি স্ক্যান রিপোর্ট ততোটা ভালো নয়। প্রয়োজন উন্নত চিকিৎসা। অথচ এখন পর্যন্ত জানা যায়নি তার পরিচয়। গেলো ১০ আগস্ট বিমানবন্দরের সামনের ফুটওভার ব্রিজ থেকে পড়ে গেলে, পুলিশের সহায়তায় তাকে ভর্তি করা হয় ঢাকা মেডিকেলে।

চিকিৎসকের চিকিৎসাপত্র কিংবা পথ্য তো আছেই, তবে এরপরও বাড়তি যত্নের যে মায়া কিংবা ভরসার একচিলতে ছায়া; সে তো লুকিয়ে থাকে আপনজনের ঘ্রাণেই।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২০৪ নম্বর ওয়ার্ডের প্রতিটি বিছানায় সেই টান থাকলেও, সবুজ এই বিছানা জুড়ে নেই সেই আপন ঘ্রাণ। কারণ শিশুটির পরিচয় যে অজ্ঞাত।

বেশিরভাগ সময় ঘুমের ঘোরেই থাকে সে মাঝে মাঝে চোখ মেললে, সেখানেও ভিড় করে নোনতাজল। নিষ্পলক চোখে হয়তো আছে অব্যক্ত অনেক কথাই, তবে ঠোঁট তার নিঃশ্চুপ টানা ১১ দিন পার হলেও, জানা যায়নি কোনো তথ্যই।

হয়তোবা মেলেনি আপনজন, তবে ইট-সুড়কির এই চারদেয়ালে অভাব হয়নি তার যত্মআত্তির। যে যেভাবে পারছে সাহায্য করছে।

শিশুটির সিটি স্ক্যান রিপোর্ট ততোটা ভালো নয়, মাথার ভিতর রক্ত জমে আছে ছোপ ছো। চিকিৎসক বলছেন, পুনরায় স্ক্যানের পর নেয়া হবে পরবর্তী পদক্ষেপ।

চিকিৎসা চলছে তার আপন গতিতেই, নেয়া যত্নও। তবুও সবার মতে, এখন শিশুটির সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন আপনজনের আদর।

নিউজটি দেখুন ভিডিওতে-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর