channel 24

সর্বশেষ

  • পাকিস্তানে ফিরলো টেস্ট ক্রিকেট

  • চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: রাতে মুখোমুখি বায়ার্ন মিউনিখ-টটেনহ্যাম

  • আইসিজেতে মামলার এখতিয়ার নেই গাম্বিয়ার: মিয়ানমারের আইনজীবী

  • নাগরিকত্ব বিল ঘিরে উত্তপ্ত ভারতের রাজ্যসভাও

  • বিজয়ীর বেশে দেশে ফিরলো দশ স্বর্ণজয়ী আর্চারি দল

  • খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য রিপোর্ট সুপ্রিম কোর্টে জমা; জামিন শুনানি কাল

  • গরু ছাগল চিনলেই চালক, দায়িত্বশীলদের কথা এমন হতে পারে না: হাইকোর্ট

  • আখাউড়া সীমান্তে নারী ও শিশুসহ ৯ রোহিঙ্গা আটক

  • বনানীতে মাটি চাপা অবস্থায় চীনা নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার

  • চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

  • কেরানীগঞ্জে অগ্নিদগ্ধ ৩৩ জন ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি, কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি ঘিরে আদালত প্রাঙ্গণে নিরাপত্তা জোরদার

  • ইলিয়াস কাঞ্চনের বিরুদ্ধে শ্রমিকদের আন্দোলন নোংরামি: হাইকোর্ট

  • শারীরিক প্রতিবন্ধকতা দমাতে পারেনি দুই ভাই-বোনকে

  • শহরগুলোকে স্মার্ট করতে প্রয়োজন প্রশাসনের বিকেন্দ্রীকরণ: মুহিত

হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হচ্ছে আজ

হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হচ্ছে আজ

হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হচ্ছে আজ (বৃহস্পতিবার, ৮ আগস্ট)। সন্ধ্যার পর নিজ নিজ আবাস এবং মসজিদুল হারাম থেকে ইহরাম বেধে মক্কা থেকে প্রায় ৯ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে মিনার উদ্দেশে যাত্রা করবেন হাজিরা।

এরপরেই শুরু হবে মুসলমানের অন্যতম ফরজ ইবাদাত হজ। দীর্ঘ যানজট এড়াতে অনেকে হেঁটে যাবেন মিনায়। হজ পালনকারীদের জন্য মিনায় অবস্থান করা সুন্নত।

শুক্রবার (৯ আগস্ট) সারাদিন মিনায় অবস্থান করে সেদিন রাতে ও ভোরে আরাফাতের ময়দানের দিকে যাত্রা করবেন।

শনিবার (১০ আগস্ট) আরাফাতের ময়দানে অবস্থিত মসজিদে নামিরা থেকে হজের খুৎবা দেওয়া হবে। সেদিন তারা মাগরিব ও এশার নামাজ আদার করবেন। মুজদালিফায় খোলা আকাশের নিচে সারারাত অবস্থানের পর শয়তানের স্তম্ভে পাথর নিক্ষেপের করতে মিনায় যাবেন তারা। এরপর পশু কুরবানি দেবেন তারা।

এরপর ১০, ১১ ও ১২ জিলহজ বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিদায়ী তাওয়াফের মাধ্যমে সমাপ্ত হবে হজের আনুষ্ঠানিকতা।

ইসলামের বিধান অনুযায়ী, ১০ জিলহজ মিনায় প্রত্যাবর্তনের পর হাজিদের পর্যায়ক্রমে চারটি কাজ সম্পন্ন করতে হয়। শয়তানের স্তম্ভে পাথর নিক্ষেপ, আল্লাহর উদ্দেশে পশু কোরবানি (অনেকেই মিনায় না পারলে মক্কায় ফিরে গিয়ে পশু কোরবানি দেন), মাথা ন্যাড়া করা এবং তাওয়াফে জিয়ারত। এরপর ১১ ও ১২ জিলহজ অবস্থান করে প্রতিদিন তিনটি শয়তানকে প্রতীকী পাথর নিক্ষেপ করবেন হাজিরা। সবশেষে কাবা শরিফকে বিদায়ী তাওয়াফের মধ্য দিয়ে শেষ হবে হজের আনুষ্ঠানিকতা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর