channel 24

সর্বশেষ

  • বাণিজ্য মেলায় হকার-ভিক্ষুকের উপস্থিতি, আন্তর্জাতিন মান হারাচ্ছে মেলা

  • বিসিএস পরীক্ষার বয়সসীমা ৩২ বছর চেয়ে রিট দায়ের

  • ঢাকাকে স্মার্ট সিটি গড়ার ৩৮ প্রতিশ্রুতি দিয়ে আতিকের ইশতেহার

  • আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবসে টেলিছবি স্বর্ণমানব তিন

  • ইশরাকের নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা

  • অনলাইনে ভ্রমণ করের উদ্বোধন, ৩টি স্থল বন্দরে মেলবে এই সুবিধা

  • চট্টগ্রামের 'শেখ রাসেল পানি শোধনাগার' উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • ইশতেহার ঘোষণা করলেন আতিকুল ইসলাম

  • ৫০০০ টাকা মুচলেকায় ড. ইউনূসের জামিন

  • ঢাকায় ভারতের ৭১তম গণতন্ত্র দিবস উদযাপন

  • এসএসসি পরীক্ষা পেছানোয় কিছুটা অস্বস্তিতে শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা

  • বাঁশখালীতে র‍্যাবের সাথে 'বন্দুকযুদ্ধে' ডাকাত নিহত

  • কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • মুক্তাগাছায় ট্রাক-সিএনজির সংঘর্ষে নিহত ২

  • বিদ্যুৎকেন্দ্রের পাশের গ্রামেই নেই বিদ্যুৎ সুবিধা

ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলার তদন্তের নির্দেশ ভাসানটেক থানাকে

ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলার তদন্তের নির্দেশ ভাসানটেক থানাকে

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কটূক্তি করার অভিযোগে ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের বিরুদ্ধে করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা বিষয়ে ভাসানটেক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আস-সামছ জগলুল হোসেন মামলাটির শুনানি শেষে সোমবার (২২ জুলাই) এই আদেশ দেন।

এর আগে এ মামলাটি করেন গৌতম কুমার নামক রাজধানীর ভাষাণটেকের এক সমাজসেবক। গৌতম কুমারকে আইনগত সহায়তা করেন অ্যাডভোকেট সুমন কুমার রায়।

সুমন কুমার জানান, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার জন্য ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের বিরুদ্ধে এ মামলা করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ১৯ জুলাই ব্যারিস্টার সাইদুল হক সুমন ফেসবুকে লিখেন, পৃথিবীর মধ্যে নিকৃষ্ট এবং বর্বর জাতি হচ্ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বী। যাদের ধর্মের কোনো ভিত্তি নেই। মনগড়া বানানো ধর্ম। অনেক ঘটনা ধামাচাপা পড়ে যায় তাদের নৃশংসতার আড়ালে। গত ১৯ এপ্রিল সনাতন ধর্ম ও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের নিয়ে মিথ্যা, অশ্লীল চরম আপত্তিকর মন্তব্য করেন। এরকম আচরণ এবং সোস্যাল মিডিয়ার অশ্লীল অবমাননাকর ও অরুচিপূর্ণ বক্তব্যর ফলে রাষ্ট্র ও হিন্দু সমাজের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয় এবং ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে।

তবে এ বিষয়ে ব্যারিস্টার সুমন আগে থেকেই বলে আসছেন যে, ওই ফেসবুক আইডিটি ফেক।

এ নিয়ে তিনি গত ২০ জুলাই তার ভেরিফাইড ফেসবুকে লিখেছেন, 'আমার নাম ব্যাবহার করে একটি ফেক পেজ হিন্দু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে বিষেদগার করছে। আমি এ বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছি। আপনারা সচেতন থাকবেন। এটাই আমার একমাত্র পেজ যার ফলোয়ার ২০ লাখের অধিক।'

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর