channel 24

সর্বশেষ

  • নতুন মেয়াদে সভাপতি হওয়ার পর বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা

  • বিজয় রুখতে বিএনপি প্রার্থীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে আ.লীগ: ফখরুল

  • হবিগঞ্জে গাছের সাথে বাসের ধাক্কায় ৩ জনের প্রাণহানি

  • সৌদিতে নবেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী চিহ্নিত

  • আইসিজের আদেশ: মেনে নেওয়ার আহবান গাম্বিয়ার; মায়নমারের প্রত্যাখ্যান

  • পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের শুভ সূচনা

সব জলাধার আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনা হবে: প্রধানমন্ত্রী

সব জলাধার আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনা হবে: প্রধানমন্ত্রী

সব জলাধার আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাজধানীর কৃষিবিদ ইন্সটিটিউটে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা জানান। বলেন, শুধু জলাধারই নয়, সব নদীতে ড্রেজিংয়ের মাধ্যমে পানির প্রবাহ বাড়ানোর ব্যবস্থা করা হবে। জাতীয় পর্যায়ে মাছ চাষে অবদান রাখায়, অনুষ্ঠানে ১৭ ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার দেয়া হয়।

মাছ উৎপাদনে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক সাফল্য বেশ ঈর্ষনীয়। বর্তমানে দেশে বছরে ৪২ লাখ ৭৭ হাজার মেট্রিক টন মাছ উৎপাদন হচ্ছে, যাতে পূরণ হচ্ছে আমিষের চাহিদার প্রায় ৬০ ভাগ। জাতিসংঘের হিসাবে, অভ্যন্তরীণ মুক্ত জলাশয়ে মাছ উৎপাদনে বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয় ও বদ্ধ জলাশয়ে পঞ্চম।

মাছ চাষে জনগণকে সম্পৃক্ত ও সচেতন করতে ১৯৭৩ সাল থেকে পালন করা হচ্ছে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ। রাজধানীর কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশনে, এবছরের মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আসেন সরকার প্রধান শেখ হাসিনা। জাতীয় পর্যায়ে মাছ চাষে অবদান রাখায় পুরস্কৃত করেন ১৭ ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানকে।

বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী তুলে ধরেন, পুষ্টিকর ও বৈচিত্রপূর্ণ মৎস্য খাতের উৎপাদন বাড়াতে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ। জানান, সচল রাখা হবে নদী ও জলাধারের পানি প্রবাহ।

শেখ হাসিনা বলেন, মাছ রপ্তানিতে মান বজায় রাখা একান্ত প্রয়োজন। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে মাছ প্রক্রিয়াজাতকরণের গুরুত্বের কথাও তুলে ধরেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোরবানি পশুর কোনো অংশই ফেলনা নয়। রক্ত, চামড়া, মাংস, লোমসহ সবই সচেতনতার সাথে ব্যবস্থাপনা ও সংরক্ষণ করতে হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর