channel 24

সর্বশেষ

  • ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যন্ত্রপাতি ক্রয়ে ৪১ কোটি ১৩ লাখ টাকার...

  • অনিয়মে হাইকোর্টের বিস্ময়, ৬ মাসের মধ্যে তদন্তে ব্যবস্থার নির্দেশ দুদককে

  • রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে মরদেহ উদ্ধার হওয়া...

  • মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা; ময়নাতদন্তের রিপোর্ট

  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ২১ পরিবারের ১০৫ সদস্যের মতামত গ্রহণ আরআরআরসি'র

  • ঢাকা মহানগরের দখল হওয়া খাল ও দখলদারদের...

  • তালিকা চেয়ে ওয়াসা ও জেলা প্রশাসককে দুদকের চিঠি

  • চট্টগ্রামে জঙ্গি সংগঠন হামজা ব্রিগেডের ৩৩ সদস্যের বিচার শুরু...

  • বিএনপি নেত্রী শাকিলা ফারজানার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • রিফাত হত্যা: মিন্নিকে কেন জামিন দেয়া হবে না: হাইকোর্টের রুল...

  • মামলার সব নথি তলব; এসপির প্রেস ব্রিফিংয়ের লিখিত ব্যাখ্যার নির্দেশ

  • ডেঙ্গুতে শরীয়তপুরে গৃহবধূ ও ফরিদপুরে শ্রমিকের মৃত্যু

  • পর্যায়ক্রমে বৈদ্যুতিক লাইন মাটির নিচ দিয়ে নেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • কাশ্মীরে চালানো আগ্রাসনের কারণে ভারতীয় হিসেবে গর্ববোধ করি না...

  • গণতন্ত্র ছাড়া এ সমস্যার সমাধান নেই: নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন

  • আলোচিত বিষয়গুলোতে ঐকমত্যে পৌঁছেছি: বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী...

  • পারস্পরিক সমঝোতায় অভিন্ন নদীর পানি বণ্টন সমস্যা সমাধানের আশা জয়শঙ্করের...

  • বাংলাদেশ, ভারত ও মিয়ানমারের স্বার্থে রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফিরে যাওয়া দরকার

  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন: তালিকাভুক্তদের জানানো শুরু করেছে ইউএনএইচসিআর

  • মশার নতুন ওষুধ কার্যকরী, হাইকোর্টে উত্তর সিটির প্রতিবেদন...

  • দক্ষিণে আজ থেকে ছিটানো হবে নতুন ওষুধ: হাইকোর্টকে আইনজীবী...

  • ডেঙ্গু রোধে উত্তরের পদক্ষেপে সন্তুষ্ট হাইকোর্ট, দক্ষিণের ভূমিকায় ক্ষোভ...

  • ডেঙ্গু রোধে কাদের গাফিলতি, তদন্ত হওয়া দরকার: হাইকোর্ট

  • ডেঙ্গুতে শরীয়তপুরে গৃহবধূ ও ফরিদপুরে শ্রমিকের মৃত্যু

  • আন্তর্জাতিক চক্রান্তে চামড়া শিল্পের মতো সম্ভাবনাময় খাতগুলো মুখ থুবড়ে পড়ছে: ফখরুল

  • নিরাপত্তা চাইতে ডাকসুর ভিপি নুর হাইকোর্টে

মিয়ানমারকে অবশ্যই রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

মিয়ানমারকে অবশ্যই রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরু করার জন্য মিয়ানমারের প্রতি তার আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করে সোমবার বলেছেন, মিয়ানমারকে অবশ্যই তাদের নাগরিকদের বাংলাদেশ থেকে ফেরত নিতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, 'রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া অবশ্যই শুরু করতে হবে। আমরা আর কতদিন এ বোঝা বহন করবো? রোহিঙ্গাদের যত তাড়াতাড়ি প্রত্যাবাসন করা হবে, তা সকলের জন্য হবে মঙ্গলজনক।'

বাংলাদেশে নিযুক্ত ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত মারি-এনিক বুর্দিন সোমবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে শেখ হাসিনার সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি একথা বলেন।

বৈঠকের পর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আন্তর্জাতিক সংস্থা ও জাতিসংঘ সংস্থাগুলো বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনে তাদের জন্য ঘরবাড়ি নির্মাণসহ মিয়ানমারের ভিতরে কাজ করতে হবে।

কক্সবাজারে ১১ লাখ রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তাদের সংখ্যা স্থানীয়দের সংখ্যা থেকে ছাড়িয়ে গেছে। ইতোমধ্যে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে ৪০ হাজার রোহিঙ্গা শিশু জন্ম নিয়েছে।

জবাবে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত তার দেশ রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সহায়তা অব্যাহত রাখবে উল্লেখ করে বলেন, 'আমরা এই ইস্যুতে শুরু থেকেই বাংলাদেশকে সহায়তা শুরু করেছি এবং এটি অব্যাহত থাকবে।'

তবে মারি-এনিক বুর্দিন বলেন, বর্তমানে মিয়ানমারের অবস্থা রোহিঙ্গাদের ফিরে যাবার অনুকূল নয়।

রাষ্ট্রদূত জলবায়ু পরিবর্তন ইস্যুতে ফ্রান্সের ভূমিকা অব্যাহত থাকবে বলেও উল্লেখ করেন। এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী প্যারিস চুক্তি বাস্তবায়ন হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ কার্বন নিঃসরণে খুবই দায়ী হলেও দেশটি জলবায়ু পরিবর্তনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর অন্যতম।
তিনি বলেন, ‘দেশের উপকূলীয় জেলাগুলো জলবায়ু পরিবর্তনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে।’

প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন যে তাঁর সরকার জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় এক হাজার কোটি টাকা দিয়ে একটি জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা ট্রাস্ট তহবিল গঠন করেছে।

তিনি বলেন, 'জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় আমরা উপকূলীয় একটি সবুজ বেষ্টনী গড়ে তুলব।'

প্রধানমন্ত্রী স্মরণ করেন যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশে প্রথম বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ শুরু করেছিলেন।

শেখ হাসিনা বিদায়ী রাষ্ট্রদূতকে বাংলাদেশে সফলভাবে তার দায়িত্বের মেয়াদ সম্পন্ন করার জন্য অভিনন্দন জানান এবং দুদেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদার ও সম্প্রসারিত করার ক্ষেত্রে তার প্রচেষ্টা ও পরিশ্রমের প্রশংসা করেন।

রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন বাংলাদেশের জনগণ ও কর্মকর্তারা খুবই আন্তরিক ও বন্ধুত্বপূর্ণ।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য মো. নজিবুর রহমান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: বাসস

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর