channel 24

সর্বশেষ

  • ভোটের তারিখ পরিবর্তনে সরকারের আপিত্ত নেই: কাদের

  • বিএনপির সমর্থনে জনগণ রাস্তায় নেমে এসেছে: মির্জা ফখরুল

  • ভোট ও পূজা একদিনে হলেও আইন-শৃঙ্খলার অবনতি হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • তুরাগ তীরে জুমার নামাজে লাখো মুসল্লির ঢল

রাষ্ট্রপতির ক্ষমার দশ বছর পর মুক্তি পেলেন জামালপুরের আজমত আলী

রাষ্ট্রপতির ক্ষমার দশ বছর পর মুক্তি পেলেন জামালপুরের আজমত আলী

চ্যানেল টোয়েন্টিফোরে সংবাদ প্রচারের পর জামালপুরের কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন আজমত আলী।

সোমবার (১৫ জুলাই) রাষ্ট্রপতি এ আদেশ দেন।

১৯৮৭ সালের পয়লা এপ্রিল জমি নিয়ে বিরোধের জেরে আজমত আলীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা হয়। পরে দেয়া হয় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। এরপর ১৯৯৬ সালের ২১ আগস্ট রাষ্ট্রপতি সাধারণ ক্ষমায় তিনি মুক্তি পান। তবে লিভ টু আপিল হলে ওই মামলায় ২০০৯ ফের আজমতকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরের বছর রাষ্ট্রপক্ষের আপিলে হাইকোর্টের রায় বাতিল করে যাবজ্জীবন সাজা বহাল রাখেন বিচারিক আদালত।

চ্যানেল 24 ২০১৮ সালের ২৪ অক্টোবর এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে যে, উচ্চ আদালতকে অবহিত না করায় রাষ্ট্রপতির সাধারণ ক্ষমা পেয়েও গত ১০ বছর ধরে কারাভোগ করছেন জামালপুরের ৭০ বছরের বৃদ্ধ আজমত আলী।

এর পরই তার মুক্তির প্রক্রিয়া শুরু হয়।

প্রসঙ্গত, জামালপুরের সরিষাবাড়ি উপজেলার পাখিমারা গ্রামের আজমত আলী। ১৯৮৭ সালে গ্রামের একটি মামলায় অনেকের সঙ্গে আসামি হন। কিন্তু মামলার সব আসামি জামিনে বেরিয়ে গেলেও দরিদ্র আজমত আলী থেকে যান কারাগারে। ১৯৮৯ সালে বিচারিক আদালতে তার যাবজ্জীবন সাজা হয়। এর বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করেন আজমত। তবে ১৯৯১ সালের কারাবিধির বিবেচেনায় ১৯৯৬ সালে রাষ্ট্রপতির সাধারণ ক্ষমায় মুক্তি পান তিনি। সে সময়ে হাইকোর্টেও খালাস পান আজমত। মুক্তির আনন্দ মিলিয়ে যায় ৮ বছরের মাথায়। কারণ হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আবেদন করা হলেও আপিল বিভাগে শুনানির সময় গোপন করা হয় রাষ্ট্রপতির সাধারণ ক্ষমার বিষয়টি। ফলে ২০০৮ সালে হাইকোর্টের রায় বাতিল করে বহাল রাখা হয় বিচারিক আদালতের রায়। ২০০৯ সালে আবারও কারাগারের জীবন শুরু আজমত আলীর।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর