channel 24

সর্বশেষ

  • ফেসবুকে স্ট্যাটাসের ঘটনায় একজনকে আটকের জেরে...

  • ভোলার বোরহানউদ্দিনে পুলিশ ও স্থানীয়দের সংঘর্ষে নিহত ৪...

  • ১০ পুলিশ সদস্যসহ আহত শতাধিক; বিজিবি মোতায়েন

  • ভারী ট্রাক চলাচলে গোপালগঞ্জের কালনা ফেরিঘাট থেকে ভাটিয়াপাড়া সড়কের বেহাল দশা

  • নিষিদ্ধ সময়ে চারঘাট সীমান্তে পদ্মায় ইলিশ ধরেন ভারতীয় জেলেরা; বিএসএফের বিরুদ্ধে সহযোগিতার অভিযোগ

  • ঢাকা উত্তর সিটির আলোচিত কাউন্সিলর রাজিব গ্রেপ্তার; কার্যালয়সহ বাসায় তল্লাশি; অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার

বিচার হবে বিচারপতির

বিচার হবে বিচারপতির

অর্থ-আত্মসাতের অভিযোগে বিচার হবে বিচারপতির। ফারমার্স ব্যাংকে ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে অর্থ কেলেঙ্কারির ঘটনায় মামলা হয়েছে সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে। দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ে পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন বাদি হয়ে এ মামলা করেন। দেশের ইতিহাসে সাবেক প্রধান বিচারপতির নামে মামলার ঘটনা এটাই প্রথম।

বাংলাদেশের ২১তম প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা। ২০১৭ সালের অক্টোবরে দেশ ছাড়ার পর পদত্যাগ করেন তিনি। এর পরপরই তার বিরুদ্ধে নৈতিক স্খলনসহ বেশকয়েকটি অভিযোগ ওঠে।

এসকে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে যে মামলা হয়েছে, সেই এজহার ও ঘটনার পূর্বাপর অনুসন্ধানে জানা যায়, ২০১৬ সালে এসকে সিনহা তার উত্তরার ৬ তলা বাড়িটি ৬ কোটি টাকায় বিক্রি করেন ব্যক্তিগত সহকারী রঞ্জিত রায়ের স্ত্রী সান্ত্রি রায়ের কাছে। এরমধ্যে নগদ নেন ২ কোটি টাকা। আর বাকি ৪ কোটি টাকা ঋণের নামে জালিয়াতি করে ফারমার্স ব্যাংকের গুলশান শাখা থেকে তোলেন শাহজাহান ও নিরঞ্জন সাহা নামে দুজন। পরে সেই টাকা পে-অর্ডারের মাধ্যমে জমা হয়, সোনালী ব্যাংকের সুপ্রিম কোর্ট শাখায় এস কে সিনহার হিসাবে।

শাহজাহান ও নিরঞ্জন রঞ্জিতের ভাতিজা আর আরেকজন বন্ধু। তারা ছাড়াও এই মামলার অন্য আসামরিা হলেন- ফারমার্স ব্যাংকের সে সময়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ কে এম শামীমসহ ব্যাংকটির আরও কয়েকজন উর্দ্ধতন কর্মকর্তা।

দুদক সচিব জানান, তদন্ত কর্মকর্তা চাইলে প্রয়োজনে এস কে সিনহাকে দেশে ফেরত আনার চেষ্টা করা হবে।

এসকে সিনহার বিরুদ্ধে নাজমুল হুদার করা একটি মামলাও তদন্ত করছে দুদক।

ভিডিও প্রতিবেদন-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর