channel 24

সর্বশেষ

  • রাষ্ট্রীয় ব্যস্ততার কারণেই ভারত যাননি স্বরাষ্ট্র-পররাষ্ট্রমন্ত্রী: কাদের

  • খালেদা জিয়াকে জামিন না দেয়ার সিদ্ধান্ত আদালতের নয়, সরকারের: রিজভী

  • কেরাণীগঞ্জের প্লাস্টিক কারখানার অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আরও ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • ব্রিটেনের নির্বাচনে টিউলিপসহ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারীর জয়

  • যুক্তরাজ্যে নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেল কনজারভেটিভ পার্টি

মামলা দেওয়ায় ট্রাফিক পুলিশকে মারধর করলো মোটরসাইকেল চালক

মামলা দেওয়ায় ট্রাফিক পুলিশকে মারধর করলো মোটরসাইকেল চালক

রাজধানীর শ্যামলীতে সার্জেন্টসহ দুই ট্রাফিক পুলিশকে মেরে রক্তাক্ত করেছে তিন যুবক। মোটরসাইকেল চালকের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়ায় তাদের মারধর করা হয়েছে বলা জানা গেছে। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) বিকালে শ্যামলীর ১ নম্বর সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

সার্জেন্টসহ আহত দুই ট্রাফিক পুলিশকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সজীব আহম্মেদ ও ইয়াসিন নামে দুই হামলাকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। একজন পালিয়ে গেছে।

সজীবের বাড়ি ময়মনসিংহে এবং ইয়াসিনের বাড়ি ভোলা। তারা শ্যামলী ২ নম্বর সড়কের একটি বাসায় ভাড়া থাকে। তারা মেডিক্যাল এক্সেসরিজ বিক্রি করে।

ওই যুবকদের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধা ও পুলিশকে মারধরের অভিযোগ আনা হয়েছে। তাদের বুধবার (১০ জুলাই) আদালতে পাঠিয়ে সাত দিনের রিমান্ড চাইবে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ।

শেরেবাংলা নগর থানার পরিদর্শক বলেন, সার্জেন্ট কামরুল হাসান ও কনস্টেবল রোকুনুজ্জামান শ্যামলীতে ডিউটিতে ছিলেন। একটা মোটরসাইকেলের কাগজপত্র ঠিক না থাকায় সেটির বিরুদ্ধে সার্জেন্ট মামলা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মোটরসাইকেল চালক ও আরোহী সার্জেন্ট ও কনস্টেবলকে মারধর করে।

এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, মামলা দেওয়ার পর কনস্টেবলের সঙ্গে তর্কে জড়ায় মোটরসাইকেল চালক সজীব। সার্জেন্টের মুখে মাস্ক থাকায় তাকে মাস্ক খুলে কথা বলতে বলে চালক। এ সময় সার্জেন্ট মাস্ক না খোলায় তার মাস্ক ধরে টান দেয় তারা। এরপর কথাকাটাকাটি শুরু হয়। মোটরসাইকেল থেকে নেমে কনস্টেবলকে কিল-ঘুষি দিতে থাকে দুই যুবক। এ সময় কনস্টেবল মাটিতে পড়ে যান। এরপর সার্জেন্টকেও মারধর করা হয়। তাদের সঙ্গে আরও এক যুবক যোগ দেয়। এসময় পথচারীরা তাদের ধরে ফেলে। এরপর পুলিশ এসে তাদের আটক করে নিয়ে যায়।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর