channel 24

সর্বশেষ

  • বিএনপি ২১ আগস্টের মাধ্যমে রাজনীতিতে যে দেয়াল তৈরি করেছে তা...

  • এড়ানো সম্ভব নয়, হামলাকারীদের বিচার নিশ্চিত করা হবে: কাদের...

  • যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ১৯ জনের সাজা বৃদ্ধির আপিল করেনি রাষ্ট্রপক্ষ

  • জাহালম ইস্যুতে ১১ তদন্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা...

  • ৩৩টি মামলারই পুনঃতদন্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুদক

  • পঞ্চগড় কারাগারে আইনজীবী পলাশ আত্মহত্যা করেছিলেন...

  • বিচার বিভাগীয় প্রতিবেদন হাইকোর্টে জমা...

  • সারা দেশের কারাগারে আসামিদের নিরাপত্তায় কী ব্যবস্থা নেয়া হয়...

  • স্বরাষ্ট্র সচিব ও আইজি প্রিজন্সের কাছে জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

  • প্রত্যাবাসন নিয়ে ২য় দিনের মতো তালিকাভুক্ত রোহিঙ্গাদের মতামত নেয়া শুরু

  • ক্রিকেট: রাসেল ডমিঙ্গো ও চার্ল ল্যাঙ্গেভেল্টের কন্ডিশনিং ক্যাম্প পর্যবেক্ষণ...

  • সাফল্যের জন্য তরুণ ক্রিকেটারদের উন্নতি করতে হবে: ডমিঙ্গো

প্রেম ও বিয়ের ফাঁদে ফেলে জঙ্গি সংগঠনে অন্তর্ভুক্তি, গ্রেফতার ২

প্রেম ও বিয়ের ফাঁদে ফেলে জঙ্গি সংগঠনে অন্তর্ভুক্তি, গ্রেফতার ২

প্রেম ও বিয়ের ফাদে ফেলে জঙ্গী সংগঠনে অন্তর্ভুক্তির দায়ে ১ নারীসহ আনসার আল ইসলামের ২ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

এ সময় এক নারী ভিকটিমকে উদ্ধার করেছে র‍্যাব ১ এর সদস্যরা। ঢাকা ও বরিশাল থেকে তাদের আটক করা হয়।

মঙ্গলাবর (৯ জুলাই) র‍্যাবের লিগ্যাল এ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারি পরিচালক এসপি মিজানুর রহমান, র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ বিষয়গুলো জানান।

তিনি জানান, জঙ্গিরা কৌশলগত কারণে নারী সদস্য বৃদ্ধি করতে চাচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে ধর্মভীরু নারীদের টার্গেট করতো তারা। এরপর বিয়ের ফাঁদে ফেলে জঙ্গিবাদে জড়াতো সেই নারীকে। সম্প্রতি নাঈমা ও ফারুক নামের দুজনকে গ্রেফতারের পর এসব তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, চট্টগ্রামের তরুণী সাফিয়া আক্তার তানজীর সঙ্গে ফেসবুকের একটি গ্রুপে কয়েকজন মেয়ের পরিচয় হয়। যাদের একজন নাঈমা। তারপর নাঈমার মাধ্যমে তানজীর সঙ্গে পরিচয় হয় বরিশালের একটি স্কুলের শিক্ষকের সঙ্গে। তার নাম সহিফুল ওরফে সাইফ। এই সাইফের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের জন্য বিভিন্নভাবে তানজীকে উৎসাহিত করে নাঈমা। তানজীও সেই ফাঁদে পা দেয়। একপর্যায়ে ২৬ জুন সাইফকে বিয়ে করার জন্য নাঈমার সঙ্গে বাড়ি ছেড়ে বরিশালে পৌঁছানোর পর তানজীকে নাম পরিচয় গোপন করে নাঈমার বোন হিসেবে একটি মাদ্রাসায় ভর্তি করিয়ে দেয় সাইফ। তানজীর বাবা-মায়ের নামের জায়গায় বসানো হয় নাঈমার বাবা-মায়ের নাম। এরইমধ্যে তানজীর সঙ্গে সাইফের বিয়েও হয়। এই সময়ের মধ্যে তানজীকে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ করতে বিভিন্নভাবে প্ররোচনা চালায় সাইফ ও নাঈমা।

সাফিয়া আক্তার তানজী (২২) নামে এই তরুণী নিরুদ্দেশ হওয়ার ঘটনায়  চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন এলাকা থেকে ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-২ এর একটি টিম ৮ জুলাই রাত সাড়ে ১২টার দিকে বরিশালের একটি মাদ্রাসায় অভিযান চালিয়ে তানজীকে উদ্ধার করে। গ্রেফতার করা হয় জান্নাতুল নাঈমাকে। তবে পালিয়ে যায় সাইফ। পরবর্তীতে নাঈমার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাজধানীর ডেমরা এলাকা থেকে মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সকালে মো. আফজাল হোসেনকে (২৩) গ্রেফতার করা হয়েছে। নাঈমা ও আফজাল জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সদস্য। তারা সদস্য সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত ছিল।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর