channel 24

সর্বশেষ

  • চট্টগ্রামে নতুন করে ২‘শ ২৯ জন করোনায় আক্রান্ত

  • আর্চ্যারি ঘিরে স্বপ্ন ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা জানালেন রোমান সানা

  • করোনায় সর্বোচ্চ ২৫২৩ জন শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ২৩

  • কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় হাইড্রোক্সো-ক্লোরোকুইন ওষুধ না রাখার পরামর্শ

  • আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে প্রিন্স চার্লসের চিঠি

  • পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নগরবাসীকে আস্থা রাখতে বললেন দ. মেয়র তাপস

  • ডিএমসিতে করোনা রোগী নিজেই সংগ্রহ করছেন ওষুধ

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • মহামারির মধ্যে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র

  • আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস আজ

  • এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল মিলবে সম্পূর্ণ অনলাইনে

  • এগারো লাখ রোহিঙ্গার বোঝা আর বইতে পারছে না বাংলাদেশ

  • করোনায় বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি ৩ লাখ ৫৯ হাজার

  • সাধারণ ছুটির মেয়াদ না বাড়ানোয় কর্মস্থলে ফিরছে মানুষ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা

ওসি মোয়াজ্জেমের পরিণতি দেখে কিছুটা হলেও খুশি নুসরাতের স্বজনরা

ওসি মোয়াজ্জেমের পরিণতি দেখে কিছুটা হলেও খুশি নুসরাতের স্বজনরা

সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমের পরিণতি দেখে কিছুটা হলেও খুশি নুসরাত জাহান রাফির স্বজনরা। এখন তাদের দাবি, আইনের আওতায় আনা হোক তার সহযোগীদেরও। হত্যা মামলার সব আসামি গ্রেফতার হয়েছে আগেই।

ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তায় গুরুত্ব বাড়িয়েছে সোনাগাজী ইসলামিয়া মাদরাসা কর্তৃপক্ষ। 

আগুনে পুড়িয়ে খুন হওয়ার আগেই পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছিলেন নুসরাত। ব্যবস্থা নেয়াতো দূর, তার মৃত্যুর পর সোনাগাজীর তৎকালীন ওসির মোবাইলে ধারণ করা অভিযোগের ভিডিও ছড়িয়ে দেয়া হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ঘটনার সাইবার অপরাধ মামলায় ওসি মোয়াজ্জেমকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তাকে রাখা হয়েছে কেরাণীগঞ্জ কারাগারে।

প্রসঙ্গত, গত ৬ এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসায় আলিম প্রথমপত্রের পরীক্ষা দিতে যান নুসরাত। তিনি এই মাদ্রাসার এবারের আলিম পরীক্ষার্থী ছিলেন। এর আগে ২৭ মার্চ মাদ্রাসাটির অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলার হাতে যৌন হয়রানির শিকার হন নুসরাত। এ ঘটনায় তার মা বাদী হয়ে সোনাগাজী থানায় মামলা করেন। মামলা তুলে নিতে আসামিপক্ষ নানাভাবে চাপ প্রয়োগ করে। নির্যাতনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন নুসরাত। এর জের ধরেই তাকে ডেকে নিয়ে শরীরে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। ৮০ শতাংশ পোড়া শরীর নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে পাঁচ দিন লড়ার পর মারা যান নুসরাত।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর