channel 24

সর্বশেষ

  • অ্যাসিড আক্রান্তদের পাশে দাড়ালেন শাহরুখ

  • ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিজির পদত্যাগ নিয়ে বিভ্রান্তি দুঃখজনক: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

  • খালেদা জিয়ার মুক্তিতে ব্যর্থ হয়ে সরকারের ঘাড়ে দায় চাপাচ্ছে বিএনপি: কাদের

  • সমঝোতা নয়, আইনি পথেই খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে: মওদুদ

  • 'গাছে, দেয়ালে অবৈধভাবে প্রচারণা চালালে ব্যবস্থা নেয়া হবে'

  • ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার ভিডিও ফেসবুকে শেয়ার দেয়ায় ২১ মাসের কারাদণ্ড

  • বিক্রয় লক্ষ্যমাত্রা ৩ হাজার কোটি ডলার কমিয়েছে হুয়াওয়ে

  • মানহানির দুই মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন

  • অপরাধ অনুযায়ী শাস্তি হবেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • আড়ংয়ে অভিযানে কর্মকর্তাকে যেভাবে বদলি করা হলো সেটা লজ্জার: হাইকোর্ট

  • লেইস ফিতার ব্যান্ডের প্রথম গান 'স্বপ্ন এখন আমার হাতে'

  • শীর্ষ জলদস্যু ফরিদ কমান্ডার অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার

  • লোকসভা নির্বাচনের সময় বাংলাদেশ থেকে কাদের আনা হয়েছিলো? প্রশ্ন মমতার

  • চিলির কাছে বিধ্বস্ত জাপান

  • বিশ্ব আর্চ্যারি চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ জিতে দেশে ফিরেছেন রোমান

ময়নাতদন্ত পাল্টে দেয়া: সিভিল সার্জনসহ দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ

ময়নাতদন্ত পাল্টে দেয়া: সিভিল সার্জনসহ দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ

গণধর্ষণ শেষে হত্যার ঘটনায় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে বিপরীতধর্মী তথ্য দেওয়ায় পটুয়াখালীর সিভিল সার্জন ডা. শাহ মো. মোজাহিদুল ইসলাম ও মেডিকেল অফিসার রেজাউর রহমানের বিরুদ্ধে অনুসন্ধানপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ আজ এ আদেশ দেন।

তলব আদেশে আদালতে হাজির হয়ে নি:শর্ত ক্ষমা চান ওই সিভিল সার্জন। আদালত ক্ষমা না করে চিকিৎসককে বলেন, এভাবে যদি ময়না তদন্ত রিপোর্ট দেন তাহলে জাতির কাছে কি বার্তা যায়? এভাবে রিপোর্ট দেওয়ার কারনে একটা মামলার বিচার প্রভাবিত হয়, এমনকি রায় ভিন্ন হয়। যেখানে বাদি ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়। পরে আদালত ক্ষমার আবেদন নাকচ করে ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেয়।

১৩ বছর বয়সী সীমা রাঙ্গাবালী হামিদিয়া মহিলা দাখিল মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। গত বছরের ২৪ অক্টোবর নিজ বাড়িতে সীমাকে গণধর্ষণের পর হত্যা করা হয়। ঘটনার তিন মাস পর গত ৩ জানুয়ারি পটুয়াখালীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে একটি নালিশি অভিযোগ করা হয়। সীমার মা তাসলিমা বেগম বাদী হয়ে ৮ জনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন। প্রথমে থানায় মামলা করতে গেলে থানা পুলিশ মামলা গ্রহণ করেনি। এ মামলার আসামি দানেশ চৌকিদার হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেন। ওই জামিন আবেদনে ময়না তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে আসামি পক্ষ। সেখানে ময়না তদন্তকারী চিকিৎসক ডা. রেজাউর রহমান প্রতিবেদনে লিখেছেন, গলায় দাগ রয়েছে, শ্বাসরোধে মেয়েটির মৃত্যু হয়েছে। তবে এটা দুর্ঘটনাজনিত কারণে হতে পারে। এই রিপোর্টের সঙ্গে একমত পোষণ করেন সিভিল সার্জন। আদালত বলেন, যেখানে মেয়েটির মা ধর্ষণের পর হত্যা করার অভিযোগে মামলা করেছে, সেখানে চিকিত্সক ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে কিভাবে অসঙ্গতিপূর্ণ মন্তব্য করেন?  এ সময় রাষ্ট্রপক্ষে সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোর্শেদ উপস্থিত ছিলেন।

ময়নাতদন্ত পাল্টে দেয়া: সিভিল সার্জনসহ দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর