channel 24

সর্বশেষ

  • অপরাধ করলে নিজের দলের লোককেও ক্ষমা নয়: ওবায়দুল কাদের

  • ক্যাসিনোর মূল হোতারা ধরা না পড়ায় অভিযান প্রশ্নবিদ্ধ: রিজভী

  • রোহিঙ্গাদের এনআইডি জালিয়াতি: চট্টগ্রাম ও কক্সবাজর অঞ্চলের...

  • ৭ ইসি কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান শুরু

  • জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি বাড়িতে...

  • কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের অভিযান; বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার; আটক ৩

  • অর্থ আত্মসাৎ: পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের...

  • তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. ইউনুছ শরীফ সাময়িক বরখাস্ত

  • নওগাঁর নিয়ামতপুরে বিএনপির দুপক্ষের সংঘর্ষে ইউপি চেয়ারম্যান নিহত

  • জাতিসংঘের ৭৪তম অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী...

  • এবারের অধিবেশনে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান খোঁজা হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি বাড়িতে...

  • পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের অভিযান; আটক ৩

  • আন্দোলনের মুখে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরকে প্রত্যাহার

  • গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির পদত্যাগ দাবিতে...

  • পঞ্চম দিনের মতো অনশনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা

ঋণখেলাপিদের বিশেষ সুবিধা দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলারে স্থগিতাদেশ

ঋণখেলাপিদের বিশেষ সুবিধা দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলারে স্থগিতাদেশ

ঋণখেলাপিদের বিশেষ সুবিধা দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের দেয়া সার্কুলারের ওপর স্থিতিস্থাবস্থা জারি করেছেন হাইকোর্ট।

এক আবেদনের প্রার্থমিক শুনানি শেষে মঙ্গলবার (২১ মে) বিচারপতি এফআর এম নাজমুল আহসান বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়গে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

একইসঙ্গে আগামী ২৪শে জুন অর্থপাচারকারীদের তালিকা জমা দিতে ফিন্যানশিয়াল ইন্টিলিজেন্স ইউনিটকে বলা হয়ছে। ঋনখেলাপি নিয়ে মামলা বিচারাধীন থাকা অবস্থায় বাংলাদেশ ব্যাংক অসৎ উদ্দেশ্য সার্কুলার দিয়েছিলো বলেও মন্তব্য করেন আদালত।

আদালত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আইনজীবীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, যারা কোটি কোটি টাকা পাচার করছে,ব্যাংক ধংস করছে তাদেরই দুধ কলা দিয়ে পোষা হচ্ছে। আগামী ২৪শে জুন এ মামলার পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে। ঐদিন ব্যাংকিং কমিশন গঠন নিয়ে শুনানি হবে।

গত ১৬ মে দুই শতাংশ ডাইন পেমেন্ট দিয়ে খেলাপি ঋণ পুনঃ তফসিলিকরণের সুযোগ দিয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

প্রজ্ঞাপনে বলে হয়, প্রজ্ঞাপন জারি হওয়ার পর থেকে ৯০ দিনের মধ্যে ঋণহীতাকে এ সুযোগের জন্য আবেদন করতে হবে।

এককালীন ২ শতাংশ টাকা পরিশোধ করে বাকি টাকা ১ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ১০ বছরে পরিশোধ করা যাবে। সেক্ষেত্রে যারা ১ বছরে পরিশোধ করবে তারা ব্যাংকের পরিচালন ব্যায়ের সমান সুদ হারে ঋণ পরিশোধের সুযোগ পাবেন। বাকিদের ক্ষেত্রে ৯ শতাংশ সুদের হার কার্যকর হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর