channel 24

সর্বশেষ

  • অগ্নিকাণ্ডে অবহেলা: ইউনাইটেড হাসপাতালের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগীর মামলা

  • ময়মনসিংহ সার্কিট হাউস মাঠে দেয়াল নির্মাণের সিদ্ধান্তে খেলোয়াড়দের প্রতিবাদ

  • করোনায় বিশ্বে প্রাণহানি ৩ লাখ ৮০ হাজার ছাড়ালো, আক্রান্ত ৬৪ লাখ

  • রংপুরে জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে উত্তাপ

  • পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের ৮৫ গেটম্যানকে চাকরিচ্যুতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ

  • বাস ও ট্রেনে বেশিরভাগ যাত্রীই মানছেন স্বাস্থ্যবিধি, ব্যতিক্রম নৌপথে

  • স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে তিতুমীর কলেজ স্টাফদের সংঘর্ষের ঘটনায় পরিস্থিতি এখনও থমথমে

  • করোনা পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণের বাইরে: ফখরুল

  • ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার ঘটনায় দালাল চক্রের আরও ৬ সদস্য গ্রেপ্তার

  • তিন মৌসুমের চার শিরোপার প্রাইজমানি পায়নি বসুন্ধরা কিংস, ক্ষুব্ধ ক্লাব

  • কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যার প্রতিবাদ অব্যাহত বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে

  • সরকার সঠিকভাবে করোনা মোকাবিলা না করলে মৃত্যুহার আরো বেশি হতো: তথ্যমন্ত্রী

  • বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য কাজ করছেন গণমাধ্যমকর্মীরা: এলজিআরডি মন্ত্রী

  • পুঁজিবাজারে সূচকের পাশাপাশি কমেছে লেনদেন

  • লাকি আক্তারকে খুঁজে টাকা পৌঁছে দিলেন ছাত্রলীগ নেতা

দেশ থেকে অভিবাসনের ৮০ শতাংশই ২০ জেলার দখলে

দেশ থেকে অভিবাসনের ৮০ শতাংশই ২০ জেলার দখলে

দেশ থেকে যে পরিমাণ অভিবাসন হয় তার প্রায় ৮০ ভাগই মাত্র ২০টি জেলার দখলে। এই বৈষম্য দূর করতে প্রতিটি উপজেলা থেকে বছরে কমপক্ষে ১ হাজার কর্মী পাঠানোর ইশতেহার দেয় সরকার। এজন্য ৭০টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থাকার পরও তৈরি করা হচ্ছে আরও ৪০টি। কিন্তু শিক্ষক ও যন্ত্রপাতির অভাবে মিলছে না কাঙ্খিত ফল। এতে বিদেশে দক্ষকর্মী পাঠানোর সরকারের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ব্যাহত হচ্ছে।

গেলো বছর যে সাত লাখ ৩৪ হাজার বাংলাদেশি কাজ নিয়ে বিদেশে গেছেন তার সবচেয়ে বেশি সাড়ে ৬২ হাজারই কুমিল্লা থেকে। আর সবচেয়ে কম রাঙ্গামাটি থেকে মাত্র ৩৫৭ জন।

বিদেশ গমনে এই বৈষম্য দূর করতে বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা ছিল, প্রত্যেক উপজেলা থেকে বিদেশে কাজ নিয়ে যাবেন বছরে কমপক্ষে ১ হাজার কর্মী। যেখানে অগ্রাধিকার পাবেন অনগ্রসর জেলার বাসিন্দারা।

তাই প্রত্যেক জেলায় অন্তত একটি করে ৭০টি  টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার থাকার পরও আরো ৪০টি টিটিসি তৈরি করছে সরকার।  

বিএমইটির তথ্য বলছে, এসব টিটিসির বেশিরভাগেই ট্রেড থাকলেও শিক্ষক নেই কিংবা শিক্ষক থাকলেও নেই যন্ত্রপাতি । আবার কোনটি প্রত্যন্ত অঞ্চলে স্থাপিত হওয়ায় নেই প্রশিক্ষণার্থী। হয় না নিয়মিত ক্লাস। টিটিসিগুলোর বিরুদ্ধে অব্যবস্থাপনার অভিযোগও আছে।

এ অবস্থায় ব্যাহত হচ্ছে প্রশিক্ষিত জনশক্তি তৈরি। ফলে সরকার প্রতি উপজেলা থেকে যে ১ হাজার দক্ষকর্মী বিদেশে পাঠানোর  লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে, তা বাস্তবায়ন অসম্ভব বলে মনে করছেন এই অভিবাসন বিশেষজ্ঞ।
 
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বলছেন, যেসব জেলা থেকে বেশি জনশক্তি বিদেশে যায় সেগুলোকে গুরত্ব দিচ্ছে সরকার।

প্রতিমন্ত্রী জানান, বিদেশে কর্মসংস্থার ইস্যুতে সরকারের নির্বাচনি ইশতেহারে দেয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নেরও চেষ্টা চলছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর