channel 24

সর্বশেষ

  • নেগেটিভ রোগিকে রাখা হয়েছে করোনা ইউনিটে, আগুনে মৃত্যুর পর দেড় লাখ টাকা বিল দাবি!

  • ৮ জুলাই টেস্ট ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরছে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ

  • লালমনিরহাটে বাস শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ

  • করোনায় মারা গেলেন আরও এক পুলিশ সদস্য

  • ঢাকা দ. সিটির দুর্নীতি উৎপাটনের হুঁশিয়ারি তাপসের

  • অবৈধপথে বিদেশ পাড়ি; দালালচক্রের কাছে বন্দি জীবন

  • কক্সবাজারে পূর্ব শত্রুতার জেরে বৃদ্ধকে প্রকাশ্যে নির্যাতন

  • নগদ অর্থ সহায়তা ও ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম: বরখাস্ত আরও ১১ জনপ্রতিনিধি

  • ঝুঁকি নিয়েই স্বাভাবিক চেহারায় দেশ

  • করোনা আক্রান্ত দম্পতির স্থান হয়েছে পরিত্যক্ত মুরগীর খামারে

  • করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দেশে অর্ধলাখ ছাড়িয়েছে

  • চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত ৩ হাজার ছাড়ালো

  • গণপরিবহন বেড়েছে চট্টগ্রামের রাস্তায়

  • সিলেটে বাস শ্রমিকদের দুপক্ষের সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত কয়েকজন

  • তামাক খাতে দুই স্তরের কর কাঠোমো হলে রাজস্ব বাড়বে দ্বিগুণের বেশি

ঢাবিতে ভর্তি জালিয়াতিতে জড়িতরা বহিষ্কার না হওয়ায় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা

ঢাবিতে ভর্তি জালিয়াতিতে জড়িতরা বহিষ্কার না হওয়ায় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের এখনও কেন বহিষ্কার করা হচ্ছে না, তা নিয়ে ক্ষুব্ধ সাধারণ শিক্ষার্থী ও ছাত্র নেতারা। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলছে, সিআইডি চার্জশিট দিলেই বহিষ্কার করা হবে। আর সিআইডি জানিয়েছে, দ্রুতই অভিযোগপত্র দেয়া হবে।

শিক্ষাকে জাতির মেরুদণ্ড বলা হলেও প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিশাপে দিন দিন মেধাহীন হয়ে ওঠার আশংকা থেকে যায় একটি জাতির। সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে বেশ কয়েকজনকে আটক করে, সিআইডি। এনিয়ে আন্দোলনের প্রেক্ষিতে একটি ইউনিটে পুনঃপরীক্ষা নেয় প্রশাসন।

জড়িত সন্দেহে সিআইডি মোট ১২৫ জনকে শনাক্ত করেছে। যার মধ্যে ৯১ জনের তথ্য নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এরইমধ্যে ১৫ জনকে বহিস্কার করেছে প্রশাসন। তবে বাকিদেরও বিচার চায় শিক্ষার্থীরা।

জড়িতদের কেউ কেউ এখনও বিভিন্ন বিভাগে অধ্যয়নরত। কেউ আবার ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের সাথেও জড়িত। তবুও ছাত্র নেতারাও চান, শিগগরই এদের শাস্তি নিশ্চিত করা হোক।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলছে, সিআইডি'র চার্জশিট পেলেই জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে শনাক্ত হওয়া সবার নাম চার্জশিটে থাকবে কি-না সেজন্য অপেক্ষা করতে বলছে সিআইডি।

এর আগেও এমন অপরাধে জড়িত শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে কঠোর হয়েছিললো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিশিষ্ট এই শিক্ষাবিদ মনে করেন, শাস্তির চেয়ে জরুরি হলো- শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের জালিয়াতির মতো নৈতিক স্খলনে না জড়ানো।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর