channel 24

সর্বশেষ

  • চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের নতুন সভাপতি এম এ সালাম...

  • সাধারণ সম্পাদক শেখ আতাউর রহমান

  • এসএ গেমস: ভারোত্তোলনে মাবিয়া আক্তার, জিয়ারুল ইসলাম...

  • ফেন্সিংয়ে ফাতেমা মুজিব স্বর্ণ জিতেছেন; বাংলাদেশের স্বর্ণ ৭

  • কারো নির্দেশে নয়, হস্তক্ষেপমুক্ত বিচার বিভাগ চাই: বিচারপতি নুরুজ্জামান

  • রাষ্ট্রের তিনটি বিভাগের মধ্যে সমন্বয় থাকা প্রয়োজন...

  • একের কাজে অন্যের হস্তক্ষেপ ন্যায়বিচার বাধাগ্রস্ত করে: প্রধানমন্ত্রী

  • খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে নাটক করছে সরকার: ফখরুল...

  • মুক্তি দাবিতে রাজধানীসহ দেশের সব জেলায় বিক্ষোভ কাল

  • স্টামফোর্ডের শিক্ষার্থী রুম্পাকে ধর্ষণ ও হত্যার বিচার দাবিতে...

  • ধানমন্ডি ও সিদ্ধেশ্বরীতে সহপাঠীদের মানববন্ধন

  • অন্যায়ভাবে চাকরিচ্যুতি ও ছাঁটাইয়ের অভিযোগে...

  • এসএ টিভির কার্যালয়ে তালা দিয়েছেন আন্দোলনরত সাংবাদিকরা

  • এসএ গেমস: ভারোত্তোলন: ৭৬ কেজিতে স্বর্ণ জিতেছেন মাবিয়া আক্তার...

  • আসরে এটি বাংলাদেশের পঞ্চম স্বর্ণ...

  • ৮১ কেজি ওজন শ্রেণিতে রৌপ্য জিতেছেন জোহরা খাতুন...

  • ক্রিকেট: নেপালকে ৪৪ রানে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ...

  • স্কোর: বাংলাদেশ ১৫৫/৬ (নাজমুল হোসেন ৭৫*) নেপাল ১১১/৯

বাংলাদেশে ফণীর মূল প্রভাব পড়তে পারে মধ্যরাতে

বাংলাদেশে ফণীর মূল প্রভাব পড়তে পারে মধ্যরাতে

আবহাওয়া অধিপ্তরের পরিচালক জানিয়েছেন, বাংলাদেশ ঘূর্ণিঝড় ফণীর মূল প্রভাব পড়তে পারে মধ্যরাতে। তবে এর প্রভাব থাকবে আজ সারা রাত এবং আগামীকালও। তিনি জানান, পশ্চিমবঙ্গ হয়ে খুলনা ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে আঘাত হানতে পারে ফণী। ঘূর্ণিঝড় এখন মোংলা বন্দর থেকে ৪১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে।

ফণা তুলেছে ঘূর্ণিঝড় ফণী, সাপের মতো এঁকেবেঁকে ধেয়ে আসছে প্রচণ্ড গতিতে, যা বাংলাদেশে আছড়ে পড়তে পারে  আজ সন্ধ্যায় অথবা মধ্যরাতে।

আবহাওয়া অফিস বলছে, ভারতের ওডিশা উপকূল অতিক্রম করে, বাংলাদেশে এসে কমতে পারে ফণীর গতিবেগ। এ সময় ঝড়ের সঙ্গে উপকূল ও চরাঞ্চলে হতে পারে, স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়েও ৪ থেকে ৫ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস।

উপকূলজুড়ে এরইমধ্যে জারি করা হয়েছে সতর্কতা, দেখানা হয়েছে বিপদসংকেতও। মোংলা ও পায়রায় ৭, চট্টগ্রামে ৬ এবং কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে দেখানো হয়েছে ৪ নম্বর বিপদসংকেত।

সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে দুর্গত এলাকার মানুষজনকে। যদিও অনেকই আঁকড়ে পড়ে আছেন ভিটেমাটি।

ঘূর্ণিঝড়ের ঝুঁকিতে থাকা ১৯ উপকূলীয় জেলায় খোলা হয়েছে ২৪ ঘন্টার নিয়ন্ত্রণ কক্ষ, প্রস্তুত রাখা হয়েছে প্রায় ৫৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবক। 

পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকার পরামর্শ আবহাওয়া অফিসের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর