channel 24

সর্বশেষ

  • শুদ্ধি অভিযানে টার্গেটকৃতদের আইনের আওতায় আনা হবে: কাদের

  • সড়ক দুর্ঘটনা: ঝিনাইদহে ২, হবিগঞ্জে ২ ও মৌলভীবাজারে নারী নিহত

  • চট্টগ্রামের নিমতলীতে একটি বাসা থেকে বাবা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার

  • আর্থিক সংকট: শনি ও রোববার বন্ধ থাকবে জাতিসংঘ সদর দপ্তর

বাংলাদেশে ফণীর মূল প্রভাব পড়তে পারে মধ্যরাতে

বাংলাদেশে ফণীর মূল প্রভাব পড়তে পারে মধ্যরাতে

আবহাওয়া অধিপ্তরের পরিচালক জানিয়েছেন, বাংলাদেশ ঘূর্ণিঝড় ফণীর মূল প্রভাব পড়তে পারে মধ্যরাতে। তবে এর প্রভাব থাকবে আজ সারা রাত এবং আগামীকালও। তিনি জানান, পশ্চিমবঙ্গ হয়ে খুলনা ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে আঘাত হানতে পারে ফণী। ঘূর্ণিঝড় এখন মোংলা বন্দর থেকে ৪১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে।

ফণা তুলেছে ঘূর্ণিঝড় ফণী, সাপের মতো এঁকেবেঁকে ধেয়ে আসছে প্রচণ্ড গতিতে, যা বাংলাদেশে আছড়ে পড়তে পারে  আজ সন্ধ্যায় অথবা মধ্যরাতে।

আবহাওয়া অফিস বলছে, ভারতের ওডিশা উপকূল অতিক্রম করে, বাংলাদেশে এসে কমতে পারে ফণীর গতিবেগ। এ সময় ঝড়ের সঙ্গে উপকূল ও চরাঞ্চলে হতে পারে, স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়েও ৪ থেকে ৫ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস।

উপকূলজুড়ে এরইমধ্যে জারি করা হয়েছে সতর্কতা, দেখানা হয়েছে বিপদসংকেতও। মোংলা ও পায়রায় ৭, চট্টগ্রামে ৬ এবং কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে দেখানো হয়েছে ৪ নম্বর বিপদসংকেত।

সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে দুর্গত এলাকার মানুষজনকে। যদিও অনেকই আঁকড়ে পড়ে আছেন ভিটেমাটি।

ঘূর্ণিঝড়ের ঝুঁকিতে থাকা ১৯ উপকূলীয় জেলায় খোলা হয়েছে ২৪ ঘন্টার নিয়ন্ত্রণ কক্ষ, প্রস্তুত রাখা হয়েছে প্রায় ৫৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবক। 

পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকার পরামর্শ আবহাওয়া অফিসের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর