channel 24

সর্বশেষ

  • অর্থনৈতিক অঞ্চল উন্নয়নে জাপানের সাথে বেজার চুক্তি

  • নুসরাত হত্যা: ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • কলকাতার ঈদের বাজারে বাংলাদেশিদের ভিড়

  • মৌলভীবাজারে আইনজীবী খুন, ভাড়াটিয়া পলাতক

  • মাগুরা, দিনাজপুর ও নাটোরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫

  • শান্তিচুক্তির দুই দশক পরও সন্ত্রাসের বলি পাহাড়ের সাধারণ মানুষ

  • সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় পাঁচজন নিহত

  • আদালত পরিবর্তন: খালেদার রিটের শুনানি কাল

  • পোল্ট্রি খাতে অ্যান্টিবায়োটিকের ৩৫টি মিশ্রন বাতিল

  • ইইউ পার্লামেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ

  • মোবাইল চুরির বিরোধের জেরে কলেজ ছাত্রকে হত্যা, আটক ৩

  • রোহিঙ্গা হত্যার দায়ে সাজাপ্রাপ্ত মিয়ানমারের ৭ সেনা সদস্যকে গোপনে মুক্তি

  • কিশোরগঞ্জে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত ১

  • গাজীপুরে কারখানায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ২

  • দুই সন্তানকে কিটনাশক খাইয়ে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ফণী

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ফণী

শক্তিশালী হয়ে উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ফণী। এতে মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর এবং চট্টগ্রামকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, বাংলাদেশে ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাত হানার সম্ভাবনা ৬০ ভাগ। এছাড়া, ভারতের বদলে সরাসরি দেশেও আঘাত হানতে পারে। ১৯টি উপকূলীয় জেলায় ৪-৫ ফিট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাস হতে পারে।

ঢাকাসহ সারা দেশে হালকা-মাঝারি ও ভারি বৃষ্টিসহ ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ফণীর প্রভাবে তাপমাত্রা কিছুটা কমলেও পরে দাবদাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় উপকূলে নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। জনগণকে সতর্ক থাকতে করা হচ্ছে, মাইকিং। সব ধরনের নৌযান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে, প্রশাসন। বাতিল করা হয়েছে বিআইডব্লিউটিএর সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ফণী শক্তি বাড়িয়ে ভারতের ওডিশার দিকে অগ্রসর হচ্ছে। ভারতের আবহাওয়া দপ্তর জানান, আগামী শুক্রবারের (৩ এপ্রিল) মধ্যে ঘূর্ণিঝড়টি প্রচণ্ড শক্তিশালী রুপ নিয়ে ওডিশা উপকূলে আঘাত হানতে পারে।

বৃহস্পতিবার (২ মে) সকালে বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ঘূর্ণিঝড় ফণী বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ১ হাজার ৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ২৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৯১৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৯২৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল। এটি আরও ঘণীভূত হয়ে উত্তর বা উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে।

ভারতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, ১৯৭৬ সালের পর এখন পর্যন্ত এপ্রিলে বঙ্গোপসাগরে যত ঘূর্ণিঝড় হয়েছে তার কোনোটি কখনই এত শক্তিশালী আকার ধারণ করেনি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর