channel 24

সর্বশেষ

  • চ্যারিটেবল মামলা: হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন; শুনানি মঙ্গলবার

  • রয়্যাল রিগ্যালিয়া মিউজিয়াম পরিদর্শন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • সরকারের কাছে মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষার পূরণ হয়েছে বলেই...

  • নির্বাচনে ভোটারের সংখ্যা কমেছে: রাজশাহীতে ইসি সচিব

  • অর্থনীতিতে সরকারের ১০০ দিন উদ্যমহীন...

  • বৈদেশিক ঋণের দায় শোধ সামনের চ্যালেঞ্জ: সিপিডি

  • ত্রুটিমুক্ত রেজাল্টসহ ৫ দফা দাবিতে নিউমার্কেট মোড় অবরোধ করে...

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

  • শ্রীলঙ্কা ট্র্যাজেডি: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩২১; আটক ৪০...

  • দেশটিতে পালিত হচ্ছে রাষ্ট্রীয় শোক; জরুরি অবস্থা জারি...

  • আইএসের সাথে মিলে স্থানীয় জঙ্গিগোষ্ঠী এনটিজে হামলা চালায়: মনিরুল..

  • শেখ সেলিমের নাতি জায়ানের মরদেহ আনা হবে কাল: হানিফ

  • ভারতে লোকসভা নির্বাচন: ৩য় দফায় ১১৭ আসনে ভোটগ্রহণ চলছে...

  • গুজরাটের আহমেদাবাদে ভোট দিলেন নরেন্দ্র মোদি

শবে বরাত ইস্যু শেষ পর্যন্ত গড়ালো আদালতে

শবে বরাত ইস্যু শেষ পর্যন্ত গড়ালো আদালতে

শবে বরাত কবে? ২০ না ২১ এপ্রিল? এমন সিদ্ধান্ত নিতে যখন কাজ করছে নতুন কমিটি, তখন চাঁদ দেখেছেন এমন দাবী নিয়ে দেশের সর্ব্বোচ্চ আদালতে এসেছেন কয়েকজন ব্যক্তি। যদিও হাইকোর্টের তিন বেঞ্চ ঘুরেও কোন আদেশ পাননি রিটকারীরা। আদালতের সাফ উত্তর এটা ধর্মীয় ইস্যু, আদালতের নয়। তাই সব পক্ষকেই বিভ্রান্তি দুর করতে ভরসা রাখতে বললেন চাঁদ দেখার নতুন কমিটির উপর। যারা সিদ্ধান্ত জানাবে ১৭ এপ্রিল।

জাতীয় চাঁদ কমিটি গত ৬ এপ্রিল জানায়, ২১ শে এপ্রিল পবিত্র শবে বরাত। কিন্তু ঘোষণার পরদিন কয়েকজন ব্যক্তি দাবি করেন, ৬ এপ্রিল চাঁদ দেখেছেন তারা। কাজেই শবেবরাত ২০ এপ্রিল।

পরে এ নিয়ে সৃষ্ট বিভ্রান্তি দূর করতে, একটি কমিটি করে দেয় ধর্মমন্ত্রণালয়। ১৭ এপ্রিল তাদের সিদ্ধান্ত জানানোর কথা।

কিন্তু তার আগেই আদালতে গড়ালো বিষয়টি।

শাবান মাসের চাঁদ দেখার দাবি নিয়ে মজলিসু রুইয়াতুল হিলাল নামে একটি সংগঠনের নেতৃত্বে ১০ ব্যক্তি রিট করেন হাইকোর্টে।   

আইনজীবী খুরশীদ আলম খানের সহযোগিতায় দুটি বেঞ্চে যান তারা।

তবে বিচারপতি মইনুল ইসলামী চৌধুরীর নেতৃত্বধীন বেঞ্চ তা না শুনে পরামর্শ দেন জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির কাছে যাওয়ার।

পরে আবেদনটি নিয়ে যাওয়া হয় বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসানের বেঞ্চে।

আদালত বলেন, ধর্মীয় সংবেদনশীল বিষয় আদালতের ইস্যু না করাই ভালো।

একই বিষয়ে বিএনপি নেতা তৈমুর আলম খন্দকার বিচারপতি তারিক উল হাকিমের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে গেলে গৃহিত হয়নি তাও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর