channel 24

সর্বশেষ

  • ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর স্বাস্থ্যের কিছুটা উন্নতি

  • করোনায় দেশে আরও ৩৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৬৩৫

  • ডিএনসিসির মশক নিধন অভিযান শুরু

  • কক্সবাজারকে দেশের প্রথম রেড জোন ঘোষণা

  • ঢাকাতেই করোনা আক্রান্ত সাড়ে ৭ লাখের বেশি: দ্য ইকোনমিস্ট

  • টর্নেডোর তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চার গ্রাম, নিহত ১

  • রংপুরে বিভিন্ন মসজিদের নামে সরকারি বরাদ্দের টাকা আত্মসাৎ

  • আবহওয়া অনুকূলে থাকায় ব্রাক্ষণবাড়িয়ায় লিচুর বাম্পার ফলন

  • এডিপিতে এবার বিদ্যুৎখাতে বরাদ্দ প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকা

  • বাজেটে কর অবকাশ সুবিধা চান ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংশ্লিষ্টরা

  • করোনায় জীবনের মায়া ভুলে সেবা দিয়েও ৫ মাস বেতনহীন

  • সব সংকটে শক্ত হালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • করোনা চিকিৎসা: 'আমরা চাই না হাসপাতালটি বন্ধ হোক'

  • যুক্তরাষ্ট্রে বিমান দুর্ঘটনা, দুই শিশুসহ নিহত ৫

  • সাবেক মেয়র কামরান করোনায় আক্রান্ত

শবে বরাত ইস্যু শেষ পর্যন্ত গড়ালো আদালতে

শবে বরাত ইস্যু শেষ পর্যন্ত গড়ালো আদালতে

শবে বরাত কবে? ২০ না ২১ এপ্রিল? এমন সিদ্ধান্ত নিতে যখন কাজ করছে নতুন কমিটি, তখন চাঁদ দেখেছেন এমন দাবী নিয়ে দেশের সর্ব্বোচ্চ আদালতে এসেছেন কয়েকজন ব্যক্তি। যদিও হাইকোর্টের তিন বেঞ্চ ঘুরেও কোন আদেশ পাননি রিটকারীরা। আদালতের সাফ উত্তর এটা ধর্মীয় ইস্যু, আদালতের নয়। তাই সব পক্ষকেই বিভ্রান্তি দুর করতে ভরসা রাখতে বললেন চাঁদ দেখার নতুন কমিটির উপর। যারা সিদ্ধান্ত জানাবে ১৭ এপ্রিল।

জাতীয় চাঁদ কমিটি গত ৬ এপ্রিল জানায়, ২১ শে এপ্রিল পবিত্র শবে বরাত। কিন্তু ঘোষণার পরদিন কয়েকজন ব্যক্তি দাবি করেন, ৬ এপ্রিল চাঁদ দেখেছেন তারা। কাজেই শবেবরাত ২০ এপ্রিল।

পরে এ নিয়ে সৃষ্ট বিভ্রান্তি দূর করতে, একটি কমিটি করে দেয় ধর্মমন্ত্রণালয়। ১৭ এপ্রিল তাদের সিদ্ধান্ত জানানোর কথা।

কিন্তু তার আগেই আদালতে গড়ালো বিষয়টি।

শাবান মাসের চাঁদ দেখার দাবি নিয়ে মজলিসু রুইয়াতুল হিলাল নামে একটি সংগঠনের নেতৃত্বে ১০ ব্যক্তি রিট করেন হাইকোর্টে।   

আইনজীবী খুরশীদ আলম খানের সহযোগিতায় দুটি বেঞ্চে যান তারা।

তবে বিচারপতি মইনুল ইসলামী চৌধুরীর নেতৃত্বধীন বেঞ্চ তা না শুনে পরামর্শ দেন জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির কাছে যাওয়ার।

পরে আবেদনটি নিয়ে যাওয়া হয় বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসানের বেঞ্চে।

আদালত বলেন, ধর্মীয় সংবেদনশীল বিষয় আদালতের ইস্যু না করাই ভালো।

একই বিষয়ে বিএনপি নেতা তৈমুর আলম খন্দকার বিচারপতি তারিক উল হাকিমের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে গেলে গৃহিত হয়নি তাও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর