channel 24

সর্বশেষ

  • কিউই তোপে উড়ে গেল ভারত

  • শেষ দিনের মতো চলছে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি

  • চাঁদপুরে পানীয় তৈরির নকল কারাখানা সিলগালা

  • ইয়েমেনে সৌদি জোটের বিমান হামলায় নিহত ১০

  • বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে আজ মাঠে নামছে বাংলাদেশ

  • পাম ডি' অর জিতলেন নির্মাতা বং জুন হো

  • বান্দরবানে আজ আধাবেলা হরতাল

  • সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে হিউম্যান সেফটি ফাউন্ডেশন

  • বারো লক্ষ কোটি টাকারও বেশি বিকল্প বাজেট প্রস্তাব অর্থনীতি সমিতির

  • অপহরণের তিনদিন পর আওয়ামী লীগ নেতার মরদেহ উদ্ধার

  • ছাত্রলীগের বাঁধায় ডাকসুর ভিপির ইফতার মাহফিল পণ্ড

  • থাইল্যান্ডে জেমি ডে শিষ্যদের অনুশীলন

  • কাল বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করছে বাংলাদেশ

  • বিশ্বকাপে পাকিস্তান দলের পরিসংখ্যান

  • বিশ্বকাপে মাহমুদুল্লাহ হতে পারে ঠান্ডা মাথার ফিনিশার

আবারও পেছাল প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

আবারও পেছাল প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০১৮’ লিখিত পরীক্ষা আগামী ১৫ মার্চ থেকে শুরুর কথা থাকলেও তা আবার পিছিয়ে গেল। আগামী ১৩ মার্চ ‘জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০১৯’ পালন করার সিদ্ধান্ত হওয়ায় ১৫ মার্চ নিয়োগ পরীক্ষা পিছিয়ে দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই)।

ডিপিইর মহাপরিচালক এ এফ এম মনজুর কাদির জানান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পাওয়া নির্দেশনা অনুযায়ী ১৫ মার্চ থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা ধাপে ধাপে সম্পন্ন করতে প্রস্তুতি শুরু করা হয়। কিন্তু আগামী ১৩ মার্চ জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৯ পালন করার সিদ্ধান্ত হওয়ায় তা আবারও পিছিয়ে দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, এবার নিয়োগ পরীক্ষা সম্পূর্ণ ডিজিটালাইজড পদ্ধতিতে নেয়া হবে। নির্ধারিত জেলায় পরীক্ষা আয়োজনের আগের রাতে ইন্টারনেটের মাধ্যমে জেলা প্রশাসকের কাছে প্রশ্নপত্রের সব সেট পাঠানো হবে। পরীক্ষার দিন সকাল ৮টায় প্রশ্নপত্র ছাপিয়ে তা কেন্দ্রে পৌঁছে দেয়া হবে।

ডিপিইর কর্মকর্তারা জানান, পাশাপাশি বসা পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কেউ যাতে একই সেট না পায় সে জন্য এবার ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রার্থীদের প্রশ্ন সেট নির্ধারণ করা হবে। পরীক্ষার্থীর রোল নম্বরের ওপর প্রশ্ন সেট নির্ধারণ করা হবে। 

পরীক্ষা শুরুর বিষয়ে জানতে চাইলে মহাপরিচালক বলেন, শিক্ষা সপ্তাহ আয়োজন শেষে মন্ত্রণালয়ের সভা করে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সময় পুনরায় নির্ধারণ করা হবে।

গত ১৫ জানুয়ারি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সভায় আগামী ১৫ মার্চ থেকে লিখিত পরীক্ষা শুরু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরবর্তীতে লিখিত পরীক্ষা আয়োজনে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে ডিপিইতে নির্দেশনা দেয়া হয়। এর আগে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে পরীক্ষা শুরুর নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রণালয়। তবে এসএসসি পরীক্ষার কারণে তা পিছিয়ে মার্চে নেওয়া হয়।

তবে মার্চের শেষে অথবা এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হতে পারে বলে মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্রে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর